BREAKING NEWS

২১ আষাঢ়  ১৪২৭  সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

করোনা নেগেটিভ আমির খানের মা, রিপোর্ট আসতেই স্বস্তি অভিনেতার পরিবারে

Published by: Bishakha Pal |    Posted: July 1, 2020 4:03 pm|    Updated: July 1, 2020 4:17 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একসঙ্গে ৭ জন পরিচারক করেনায় আক্রান্ত হওয়ার পর রীতিমতো আতঙ্কে ছিল আমির খানের (Aamir Khan) গোটা পরিবার। মঙ্গলবার অভিনেতার মায়ের করোনা পরীক্ষা করা হয়। বুধবার তার রিপোর্ট এসেছে। জানা গিয়েছে, করোনায় আক্রান্ত নন আমিরের মা। তিনি সম্পূর্ণ সুস্থই রয়েছেন। তবে সতর্কতার জন্য হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে তাঁকে।

টুইটারে এ কথা জানিয়ছেন আমির। লিখেছেন, তাঁর ‘আম্মি’ করোনা নেগেটিভ। অনুরাগীদের শুভ কামনা ও প্রার্থনার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন অভিনেতা। করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে অভিনেতারও। এমনকী তাঁর পরিবারের আর কারও করোনা হয়নি। প্রত্যেকেই সুস্থ আছেন। কিন্তু আমিরের মা জিনাত হুসেনের মতো পরিবারের অন্যরাও ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন বলে সূত্রের খবর। আমিরের বাড়ির বাকি পরিচারক-পরিচারিকাদেরও করোনা পরীক্ষা করা হয়। তাঁদের রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।

মঙ্গলবার আমির খানের বাড়ির ৭ পরিচারকের দেহে করোনা ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া যায়। সঙ্গে সঙ্গে তাঁদের চিকিৎসার জন্য পাঠিয়ে দেওয়া হয়। টুইটারে একটি বিবৃতি জারি করে এই খবর জানান আমির। এও বলেন, স্টাফদের করোনা পরীক্ষা ও কোয়ারেন্টাইনের ব্যাপারে বৃহন্মুম্বই পুরনিগম (BMC) তাঁকে খুব সাহায্য করেছে। এর জন্য BMC-কে ধন্যবাদও দেন অভিনেতা। কর্মীদের করোনা পরীক্ষা ও মেডিক্যাল সাহায্যের জন্য BMC’র পাশাপাশি কোকিলাবেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকেও ধন্যবাদ জানিয়েছেন আমির। এরপরই মাকে নিয়ে হাসপাতালে করোনা পরীক্ষা করাতে যান আমির। বুধবার সেই রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।

বলিউডে করোনার থাবা অবশ্য এই প্রথম নয়। বলিউডে এখনও পাঁচজনের শরীরে থাবা বসিয়েছে এই মারণ ভাইরাস। গায়িকা কণিকা কাপুর, প্রযোজক করিম মোরানি, তাঁর দুই মেয়ে জোয়া ও শাজা মোরানি এবং কিরণ কুমার ছাড়া এখনও পর্যন্ত আর কেউ আক্রান্ত হননি। কিছুদিন আগে করোনায় আক্রান্ত হন বনি কাপুরের তিন পরিচারক। পরীক্ষা হয় বনি কাপুর ও দুই মেয়ে জাহ্নবী কাপুর ও খুশি কাপুরেরও। কিন্তু তাঁদের রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। এছাড়া পরিচালক করণ জোহরের বাড়ির দুই পরিচারকের শরীরেও বাসা বেঁধেছিল করোনা ভাইরাস। যদিও পরিচালক বা তাঁর মা হিরু জোহর করোনায় আক্রান্ত হননি। এছাড়া হৃতিক রোশনের শ্যালিকার বাড়ির এক পরিচারকের শরীরেও থাবা বসিয়েছিল এই মারণ ভাইরাসের জীবাণু। প্রতি ক্ষেত্রেই সবাই নিজেদের ১৪ দিন আইসোলেশনে রেখেছিলেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement