BREAKING NEWS

৪ মাঘ  ১৪২৭  সোমবার ১৮ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘আপনার মূল্য কত?’ শাহিনবাগের দাদিকে নিয়ে ভুয়ো পোস্ট করে নেটিজেনদের কটাক্ষের মুখে কঙ্গনা

Published by: Suparna Majumder |    Posted: November 30, 2020 4:21 pm|    Updated: November 30, 2020 4:21 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কৃষক বিক্ষোভের সঙ্গে শাহিনবাগের যোগসূত্র খুঁজতে গিয়েছিলেন। কিন্তু তা হল না। উলটে ফেক পোস্ট করার জন্য নেটিজেনদের কটাক্ষের পাত্রী হতে হল কঙ্গনা রানাউতকে (Kangana Ranaut)। বিক্ষোভের মুখ হওয়ার জন্য নাকি ১০০ টাকা নেন শাহিনবাগের দাদি। ভুয়ো ছবি পোস্ট করে এমনটাই লিখেছিলেন কঙ্গনা। তাতেই চটেছেন নেটদুনিয়ার বাসিন্দারা। বিদ্রূপ করে এক নেটিজেন অভিনেত্রীকে প্রশ্ন করেছেন, “আপনার মূল্য কত?”

কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই উত্তাল উত্তর-পূর্ব ভারত। পাঞ্জাব-হরিয়ানা থেকে কাতারে কাতারে বিক্ষোভকারী ‘দিল্লি চলো’ অভিযানে শামিল হয়েছেন। শুরু থেকেই কৃষক বিদ্রোহের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন কঙ্গনা। এর বিরুদ্ধে একের পর এক টুইট করে চলেছেন তিনি। তেমনই এক টুইট করতে গিয়ে বিপাকে পড়েন বলিউডের ‘কন্ট্রোভার্সি ক্যুইন’। কৃষক বিক্ষোভে শামিল হওয়া এক বৃদ্ধার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছিল। অনেকেই তাঁকে শাহিনবাগের দাদি বিলকিস বানো (Shaheen Bagh Dadi) হিসেবে ব্যাখ্যা করেছেন, যাঁকে কিনা টাইমস ম্যাগাজিনের সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বের মধ্যে রাখা হয়েছিল।

[আরও পড়ুন: দার্জিলিংয়ে ম্যারাথনের ফাঁকে রাজভবনে সাক্ষাৎ, মিলিন্দ সোমনের প্রশংসা ধনকড়ের

সেই ছবি টুইটারে শেয়ার করে কঙ্গনা লিখেছিলেন, “হা! হা! ইনি তো সেই দাদি, যাঁকে টাইমস ম্যাগাজিনের প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বদের তালিকায় রাখা হয়েছিল। এঁকে তো ১০০ টাকার বিনিময়েই পাওয়া যায়। পাক সংবাদিকরা আন্তর্জাতিক মঞ্চে এঁকে ভারতের সম্মানহানির জন্য PR হিসেবে প্রদর্শন করছে। আন্তর্জাতিক মঞ্চে আমাদের কথা বলার জন্যও লোক প্রয়োজন।”

কঙ্গনার এই টুইটের তীব্র প্রতিবাদ করেন নেটিজেনরা। কটাক্ষের পাশাপাশি কেউ কেউ আবার কঙ্গনার বিরুদ্ধে বিলকিস বানোকে মামলা করুন, এমনটা চেয়ে পোস্ট করেছেন।

 

বেকায়দার পড়ে নিজের টুইটটি মুছে ফেলেছেন কঙ্গনা। তবে ততক্ষণে স্ক্রিনশট নেটদুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। এতে অবশ্য দমে যাননি অভিনেত্রী। বিক্ষোভরত কৃষকদের সরকারের পক্ষ থেকে অলোচনায় বসার প্রস্তাব দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)। সেই টুইট শেয়ার করে ক্যাপশনে লিখেছেন, “আমি কিছু বুঝতে পারছি না, একটু ইটালির ভাষায় বোঝান।”

[আরও পড়ুন: বিয়ের গুরুত্ব প্রমাণে দুর্বল চিহ্ন সিঁদুর, বিচ্ছেদের গুঞ্জনের মাঝে শ্রাবন্তীকে খোঁচা রোশনের!]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement