০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২২ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Taliban Terror: ‘ভারতে এসে প্রাণে বাঁচলাম’, তালিবানের ভয়ে দেশ ছাড়েন সলমনের নায়িকা ওয়ারিনা

Published by: Akash Misra |    Posted: August 23, 2021 7:08 pm|    Updated: August 24, 2021 3:32 pm

Actress Warina Hussain on Afghanistan crisis | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আফগানিস্তানে (Afghaistan) তালিবানি সন্ত্রাস চলছেই। আফগানিস্তানের একের পর এক বীভৎস চিত্র সামনে আসছে। তালিবানের তাণ্ডব দেখে রীতিমতো ভয়ে তটস্থ গোটা বিশ্ব। ঠিক এরকমই সময়ে ২০ বছর আগের কথা মনে করে রীতিমতো ভয়ে কেঁপে উঠলেন সলমনের (Salman Khan) প্রযোজনায় তৈরি ‘লভযাত্রী’ ছবির নায়িকা ওয়ারিনা হোসেন। সম্প্রতি আফগানিস্তান নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে এমনটাই জানালেন ওয়ারিনা (Warina Hussain)।

২০ বছর আগে তালিবানের অত্যাচার থেকে বাঁচতে ওয়ারিনার গোটা পরিবার আফগানিস্তান থেকে পালিয়ে আসে ভারতে। আফিগানিস্তানের স্মৃতি মগজে থাকলেও, ভারতকেই নিজের দেশ হিসেবে মেনে নিয়েছেন ওয়ারিনা ও তাঁর পরিবার। এখন ওয়ারিনার কাছে ভারতই হল একমাত্র দেশ। তবুও টিভির পর্দায় আফগানিস্তানের অবস্থা দেখে আতঙ্কে দিন কাটছে ওয়ারিনার।

সলমন খানের সঙ্গে ওয়ারিনা এবং আয়ুশ শর্মা।

[আরও পড়ুন: Salman Khan’কে বিমানবন্দরের গেটে আটকানোর পরই বিপাকে CISF জওয়ান, বাজেয়াপ্ত মোবাইল]

এক ইংরেজি সংবাদ মাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে ওয়ারিনা জানান, ‘আফিগানিস্তানে এই অবস্থার পর আবার শরণার্থীর সংখ্যা বাড়বে। এত মানুষকে জায়গা দেওয়া সম্ভব নয় কোনও দেশের পক্ষেই। কিন্তু তাও আমি অনুরোধ করব সমস্ত রাষ্ট্রনেতাকে, এই কঠিন সময়ে আফগানদের পাশে দাঁড়ান। আমি ও আমার পরিবারের লোকজন সৌভাগ্যবান যে ভারত সে সময়ে আমাকে ও আমার পরিবারকে গ্রহণ করেছিল।’ ওয়ারিনা সাক্ষাৎকারে আরও বলেছেন, আফগানিস্তানে শুধু শোষণ এবং অত্যাচার। আগের মত‌ো সুন্দর আফগানিস্তান বোধহয় আর ফিরবে না।’

ওয়ারিনা এবং আয়ুশ শর্মা।

কয়েকদিন আগে আফগানিস্তানের অবস্থা নিয়ে মুখ খুলেছিলেন বলিউডের আরেক অভিনেত্রী সেলিনা জেটলি। সেলিনা জানিয়ে ছিলেন, ‘অনেকেই আমাকে ফোন করেছেন, অনেকেই জিজ্ঞেস করছেন আফগানিস্তান নিয়ে কেন আমি চুপ রয়েছি। কেন আমি কোনও প্রতিক্রিয়া দিচ্ছি না। আমার এই চুপ থাকাটাকে দুর্বলতা হিসেবে ধরে নেবেন না। আমি এড়িয়েও যেতে চাইছি না। আসলে আফগানিস্তানের অবস্থা দেখে আমি স্তম্ভিত। বিশ্বাসই করতে পারছি না, আমার জন্মভূমিতে এসব ঘটছে। চিন্তা হচ্ছে আফগানিস্তানে এবং গোটা দুনিয়ায় ছড়িয়ে থাকা আফগান মানুষদের জন্য। সেই মানুষদের জন্য কষ্ট হচ্ছে, যারা নতুন করে আফগানিস্তানকে গোটা দুনিয়ার কাছে তুলে ধরছিলেন। তাঁদের এই প্রচেষ্টা একেবারেই চূর্ণ হয়ে গেল। নিজেকে অসহায় লাগছে। ভিতর থেকে ভেঙে গিয়েছি। হ্যাঁ, আমি ভাগ্যবান যে আফগানিস্তানের সঙ্গে নাড়ির টান থাকলেও, আমি এখন সেই দেশে থাকি না। আর এটা সম্ভব হয়েছে, আমার প্রপিতামহীর জন্যই, যিনি সাহস করে ভারতে এসে আশ্রয় নিয়েছিলেন। ভারত এমন এক দেশ, যা আমাদের পরিবারকে সম্মান দিয়েছে। মাথায় ছাদ দিয়েছে। আর সেই কারণেই আজ আমি আপনাদের সামনে আসতে পেরেছি। বলতে পারছি আমার ক্ষোভ, আমার প্রতিবাদের কথা…।’

[আরও পড়ুন: Abhishek Bachchan: অসুস্থ অভিষেক বচ্চন ভরতি হাসপাতালে, ছেলেকে দেখতে গেলেন অমিতাভ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে