২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভিন্ন সামাজিক ইস্যু নিয়ে বলিউড তারকারা মাঝেমধ্যেই সরব হন। এবার সেই তালিকার নবতম সংযোজন অভিনেতা আয়ুষ্মান খুরানা। শিশুদের উপর হওয়া যৌন নির্যাতন রুখতে সচেতনতা বৃদ্ধির কাজ করবেন আয়ুষ্মান। ‘আর্টিকল ফিফটিন’, ‘অন্ধাধুন’ থেকে ‘ড্রিম গার্ল’ পরপর অনেকগুলো হিট দিয়েছেন তিনি। দর্শকমনে আয়ুষ্মান যে নিঃসন্দেহে জায়গা করে নিয়েছে, তা বলাই বাহুল্য। আর অভিনেতার সেই ভাবমূর্তিকেই কাজে লাগাতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার এবং ইউনিসেফ। শিশু যৌন হেনস্তা রোধের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর পদে দেখা যাবে আয়ুষ্মান খুরানাকে।

ইউনিসেফের কাছে ভারতীয় সরকারের তরফে আয়ুষ্মানের নাম সুপারিশ করেছে ভারত সরকার। শিশু যৌন হেনস্তার প্রতিবাদের জন্য একটি নতুন সংগঠন গঠন করা হচ্ছে ইউনিসেফের তরফে। মূলত, ২০১২ সালের পকসো আইনের উপর ভিত্তি করেই তৈরি হবে এই সংগঠন। সেই সুবাদেই কেন্দ্রীয় সরকারের মহিলা ও শিশু সমাজকল্যাণ দপ্তরের সঙ্গে যুক্ত হলেন আয়ুষ্মান। ইউনিসেফের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসেবে সম্প্রতি একটি ভিডিও শুট করে ফেলেছেন তিনি, যা টেলিভশন, সিনেমা হলে দেখানো হবে। পাশাপাশি  প্রচারের অন্যতম হাতিয়ার হিসেবে থাকছে সোশ্যাল মিডিয়াও।

[আরও পড়ুন: সংস্কৃততে টুইট লেডি গাগার, ধেয়ে এল ‘জয় শ্রীরাম’ মন্তব্য! ]

এ প্রসঙ্গে আয়ুষ্মান খুরানা বলেন, “দেশের সচেতন নাগরিক হিসেবে আমাদের সবার দায়িত্ব শিশুদের উপর হওয়া যৌন নির্যাতনের প্রতিবাদ করা। এ বিষয়ে মানুষকে আরও সচেতন করতে হবে। কারণ, দিন দিন বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে এরকম ভয়ংকর ঘটনার পরিমাণ ক্রমশ বেড়েই চলেছে। পকসো আইনে আওতায় শিশু যৌন হেনস্তার মতো নিন্দনীয় অপরাধের জন্য অপরাধীদের কীরকম কড়া শাস্তির বিধান রয়েছে, সেটাও জানা উচিত সকলের।”

অভিনেতা আরও বলেন, “শিশুরাই আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম। শিশুদের বিরুদ্ধে অপরাধ অত্যন্ত জঘন্য। ইউনিসেফকে অসংখ্য ধন্যবাদ শিশুদের বিরুদ্ধে হওয়া যৌন হেনস্তা রুখতে একটি সংগঠন তৈরি করার জন্য। কারণ, সাধারণ মানুষ এর থেকে অনেকটাই উপকৃত হবেন।”

[আরও পড়ুন: ভোটের জন্য মেলেনি অ্যাম্বুল্যান্স, প্রসব করতে গিয়ে মৃত্যু মুম্বইয়ের নামী অভিনেত্রীর]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং