৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ট্রাকে করে ত্রাণসামগ্রী পৌঁছচ্ছে মজুরদের বাড়ি, চুপিসারেই মানুষের সাহায্যে সলমন  

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: April 12, 2020 12:41 pm|    Updated: April 12, 2020 12:47 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনে ইন্ডাস্ট্রির প্রায় ২৫ হাজার দিনমজুরের দায়িত্ব একাই নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন বলিউডের ভাইজান। দিন আনি দিন খাই মানুষগুলির প্রত্যেককে আর্থিক সাহায্য করার কথা দিয়েছিলেন তিনি। প্রতিশ্রুতিমতো করছেনও তাই। কোনও সংস্থার হাতে টাকা না দিয়ে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির দিনমজুরদের ব্যাংক ডিটেলস চেয়ে পাঠিয়ে ইতিমধ্যেই প্রত্যেকের অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করা শুরু করেছেন সলমন খান। তবে তিনি কিন্তু শুধু টাকা দিয়েই ক্ষান্ত থাকেননি। পানভেলের ফার্মহাউসে কোয়ারেন্টাইনে থাকলেও ভাইজানের নির্দেশে প্যাকেট করা চাল, ডাল-সহ অত্যাবশকীয় ত্রাণসামগ্রী কিন্তু ট্রাকে করে পৌঁছে যাচ্ছে ইন্ডাস্ট্রির দুস্থ মানুষগুলির বাড়িতে। একেবারে নিঃশব্দেই কাজ সারছেন তিনি। তবে সলমন নিজে তাঁর এই দান-খয়রাতি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনওরকম পোস্ট না করলেও মহারাষ্ট্রের কংগ্রেস নেতা বাবা সিদ্দিকিই এই বিষয়টি প্রকাশ্যে এনে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ভাইজানকে।  

সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রাক ভরতি ত্রাণসামগ্রীর ছবি পোস্ট করে কং নেতা সিদ্দিকি ভাইজানের উদ্দেশে লিখেছেন, “দিনমজুরদের প্রতি আপনার এই অনুদানের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ সলমন। অসহায়, সম্বলহীনদের সাহায্যের ব্যাপারে আপনি যে সবসময়েই সবার থেকে একধাপ এগিয়ে, আবারও তা প্রমাণ করে দিলেন। কেউ যাতে পেটে খিদে নিয়ে ঘুমোতে না যায়, তা নিশ্চিত করার জন্য আবারও অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে।” উল্লেখ্য, সলমন যখন ২৫ হাজার দিনমজুরদের পেট ভরানোর দায়িত্ব নিয়েছিলেন, তখনও কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় কিংবা কোনও সংবাদমাধ্যমে এই বিষয়ে মুখ খোলেননি তিনি নিজে। ভাইজান ঘনিষ্ঠরাই প্রকাশ্যে এনেছিলেন করোনা মোকাবিলায় তাঁর অনুদানের কথা।  

[আরও পড়ুন: প্রিয় পোষ্যের সঙ্গে প্রাতঃরাশে ঘাস চিবোচ্ছেন সলমন! ভাইরাল ভাইজানের কাণ্ড]

উল্লেখ্য, ২১ দিনের লকডাউনের জেরে অন্যান্য ক্ষেত্রের মতো বিনোদুনিয়াতেও যে বড়সড় আর্থিক ধ্বস নামতে চলেছে, তা আর আলাদা করে বলার অপেক্ষা রাখে না! সবচাইতে ক্ষতিগ্রস্থ হবেন জুনিয়র টেকনিশিয়ানরা। তাই সেসমস্ত স্পটবয়, সেটের দিনমজুরদের সমস্যার কথা চিন্তা করেই এগিয়ে এসেছেন সলমন খান (Salman Khan)। ‘রাধে’র প্রোডাকশনের সঙ্গে জড়িত দুস্থ কর্মীদেরও আর্থিক সাহায্য করেছেন। উপরন্তু তাঁর নিজের বাড়ির হেঁশেলের রান্না করা খাবার পৌঁছচ্ছে তাঁর আবাসনের সমস্ত নিরাপত্তারক্ষীদের কাছে।

সলমন যে নানারকম সামাজিক কাজকর্মের সঙ্গে যুক্ত কিংবা ভিন্ন সময়ে ভিন্ন প্রেক্ষিতে একাধিকবার ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অসহায়দের ত্রাতা হিসেবে ধরা দিয়েছেন, সেকথা সবাই জানেন। সলমনের ‘বিইং হিউম্যান’ (Being Human) সংস্থাও বহু দুস্থদের পড়াশোনা, ওষুধপাতির দায়িত্ব নিয়েছে। এবার করোনার জেরে আবারও তিনি প্রমাণ করে দিলেন যে কেন তিনি বলিউডের ‘ভাইজান’? কারণ একাই ২৫ হাজার জনের দায়িত্ব নেওয়া চারটিখানি কথা নয়। ইন্ডাস্ট্রির এক সদস্যের কথায়, “ভাইজানকে যে সবরকম আপদে-বিপদে পেয়েছি আমরা, সেকথা সবারই জানা। আলাদা করে আর কী বলব? অভিনব উদ্যোগ তো বটেই!”

[আরও পড়ুন: মানবিক উদ্যোগ, পুরুলিয়ার দুস্থদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ প্রযোজক-অভিনেত্রী সুচন্দ্রা ভানিয়ার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement