BREAKING NEWS

১৪ কার্তিক  ১৪২৭  শনিবার ৩১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

মৃত্যুর ৪ মাস পরই অতীত ইরফানের স্মৃতি? অভিনেতার সমাধির চারপাশে গজিয়েছে আগাছা

Published by: Suparna Majumder |    Posted: September 21, 2020 4:17 pm|    Updated: September 21, 2020 9:06 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নাম, যশ, অর্থ, প্রতিপত্তি, সাফল্য-ব্যর্থতা, হাসি-কান্না, রাগ-অভিমান, সমস্ত কিছুই পড়ে রয়েছে পার্থিব জগতে। নশ্বর দেহ মাটির কোলে আশ্রয় নিয়েছে। উপরে খোদাই করা সেই নাম, ইরফান খান (Irrfan Khan)। চার মাস পেরিয়ে গিয়েছে। করোনা (CoronaVirus) সংকটের আবহেই প্রিয় অভিনেতাকে হারিয়েছে চলচ্চিত্র জগৎ। সময়ের খাতায় সব হিসেবই পুরনো হয়ে যায়। শ্যাওলা পড়ে। গজিয়ে ওঠে আগাছা। সেই অবস্থাতেই পড়ে রয়েছে বিশ্বখ্যাত অভিনেতার সমাধি। চন্দন রায় সান্যালের (Chandan Roy Sanyal) টুইট করা ছবি দেখে চোখের কোণ ভিজছে অনুরাগীদের।

ভারসোভার মুসলিম কবরস্থানে (Versova Muslim Kabrastan) সমাধিস্থ করা হয়েছিল ইরফান খানকে। সেই সমাধির চারপাশে অযত্নের চিহ্ন। বিনা রক্ষণাবেক্ষণে যেখানে-সেখানে গজিয়ে উঠেছে আগাছা। কিছু পাথর দিয়ে ঘেরা রয়েছে। সামনে একটি ছোট্ট ফলকে লেখা নাম। ছবি শেয়ার করে ক্যাপশনে চন্দন লিখেছেন,

“কাল থেকেই ইরফানকে মিস করছিলাম। নিজেকে ধিক্কার জানাচ্ছিলাম চার মাস ধরে ওঁর সমাধিতে না যাওয়ার জন্য। এইখানেই একা একা বিশ্রাম নিচ্ছে গাছগাছালির মাঝখানে। আমি কিছু রজনীগন্ধা রেখে গেলাম। আর ওঁর সাম্রাজ্যের কিছু অংশ নিজের জন্য নিলাম। কতগুলো দিন কেটে গেল ইরফান খান!”

[আরও পড়ুন: বলিউডে মহিলাদের হেনস্তা নিয়ে এবার সোচ্চার রূপা, অনুরাগ ইস্যুতে সংসদের বাইরে ধরনা]

সত্যিই যেন কতদিন কেটে গেল! দীর্ঘদিন ধরে বিদেশে নিউরো এন্ডোক্রিন টিউমারের চিকিৎসা করাচ্ছিলেন ইরফান খান। দেশে ফিরে আসার পর শেষ ছবি ‘আংরেজি মিডিয়াম’-এর (Angrezi Medium) শুটিং শেষ করেন। ২৯ এপ্রিল কোলন ইনফেকশনের জেরে মৃত্যু হয় অভিনেতার। সেই শোক আজও কাটিয়ে উঠতে পারেননি চলচ্চিত্র অনুরাগীরা। কাটিয়ে উঠতে পারেননি অভিনেতা চন্দন রায় সান্যালও। সেই কারণেই বন্ধুর সমাধিস্থলে গিয়েছিলেন তিনি।  তাঁর সৌজন্যে যে ছবি প্রকাশ্যে এল তা মন ভেঙে দিয়েছে ইরফান অনুরাগীদের। প্রশ্ন উঠছে, চার মাসেই কি অতীতের খাতায় এতটা পিছনের পাতায় চলে গেল ইরফান খানের স্মৃতি? 

[আরও পড়ুন: দীর্ঘক্ষণের বিমান সফরে অসুবিধে না হলে সিনেমা হল খুলতে বাধা কোথায়? মোদিকে চিঠি কৌশিকের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement