BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

দীর্ঘক্ষণের বিমান সফরে অসুবিধে না হলে সিনেমা হল খুলতে বাধা কোথায়? মোদিকে চিঠি কৌশিকের

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: September 21, 2020 12:19 pm|    Updated: September 21, 2020 12:19 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সিনেমাহল খোলার আরজি জানিয়ে এবার সরাসরি প্রধানমন্ত্রীকে খোলা চিঠি লিখলেন টলিউড পরিচালক কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় (Kaushik Ganguly)। করোনার মারে বিপর্যস্ত বিনোদন ইন্ডাস্ট্রি। খোলেনি সিনেমা হল। বহু ছবি এখনও মুক্তির অপেক্ষায়। বড় পর্দা ছাড়া আবার অনেকেই ডিজিটাল প্রিমিয়ারে নারাজ। সদ্য কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় পরিচালিত ছেলে উজানের ‘লক্ষ্মীছেলে’ হার্টল্যান্ড ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে ভূয়সী প্রশংসা অর্জন করেছে। সব ঠিক থাকলে গত এপ্রিল-মে মাসেই মুক্তি পাওয়ার ছিল উইন্ডোজ প্রযোজিত এই ছবির। কিন্তু করোনাই ওলট-পালট করে দিল সব হিসেব। এরকমই বহু ছবি যেমন মুক্তির অপেক্ষায় দিন গুণছে, তেমনি সিনেমা হলের তালা না খোলায় অর্থাভাবে মালিকদের জীবন প্রায় ওষ্ঠাগত। সেই বিষয়েই এবার ‘সিনেমাওয়ালা’দের হয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (Narendra Modi) খোলা চিঠি লিখলেন পরিচালক কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়।

টুইটে পরিচালক মোদির কাছে আরজি জানিয়েছেন যে, দীর্ঘ বিরতির পর দেশে সব কিছুই যখন ধীরে ধীরে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরছে, তখন সিনেমা হলগুলি খোলার বিষয়টিও বিবেচনা করে দেখা হোক। “শ্রদ্ধেয় মোদিজি, বাংলার একজন চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে আপনার কাছে অনুরোধ রাখছি। কয়েক দশক ধরে দর্শকদের মনোরঞ্জন করে আসছে আমাদের এই সিনেদুনিয়া। কিন্তু এই অতিমারী আবহে বিনোদন জগতের সঙ্গে যুক্ত মানুষরা অত্যন্ত কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। তাই সবকিছুই যখন স্বাভাবিক ছন্দে ফিরছে, আমি আপনার কাছে সিনেমা হল খোলার আবেদন রাখছি। বদ্ধ এয়ারক্রাফটে যখন ঘণ্টার পর ঘণ্টা ট্রাভেল করা যাচ্ছে, তখন সিনেমা হলের ১৪০ মিনিট ফিরিয়ে আনা খুব একটা কঠিন নয় বলেই মনে হয়। শুধুমাত্র সেই মানুষগুলোর জন্য এতদিন যাঁরা দর্শকদের মনোরঞ্জনের কথা ভেবে সিনেমাকে বাঁচিয়ে রেখেছে”, চিঠিতে আরজি পরিচালক কৌশিকের।

কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের এই টুইট শেয়ার করেছেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়ও। উল্লেখ্য, এর আগে বাংলার পরিচালক এবং অভিনেতাদের অনেকেই সিনেমা হল খোলার পক্ষে সরব হয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সম্প্রতি, অভিনেত্রী তথা সাংসদ নুসরত জাহানও পার্লামেন্টের বাদল অধিবেশনে বিনোদন দুনিয়ার স্বার্থে কেন্দ্রের কাছে আর্থিক রিলিফ প্যাকেজের দাবি তুলেছিলেন।

[আরও পড়ুন: যৌন হেনস্তার অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যে, দাবি তুলে এবার আইনি পথে হাঁটছেন অনুরাগ কাশ্যপ]

এই অতিমারী আবহে অন্যান্য ক্ষেত্রের মতো বিনোদন ইন্ডাস্ট্রিও যে বড়সড় আর্থিক ধাক্কার সম্মুখীন হয়েছে, তা বোধহয় আর আলাদা করে বলার অপেক্ষা রাখে না! শুটিংয়ে ছাড়পত্র মিললেও থিয়েটার, সিনেমা হলের দরজা এখনও বন্ধ! সেই তালা কবে খুলবে জানা নেই। সিনেমা হল খোলা নিয়ে গত মাসে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক এবং তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রকের মধ্যে রুদ্ধধার বৈঠকে আলোচনা হলেও, সমাধান এখনও অধরাই। কারণ দেশের বেশ কিছু রাজ্যে সংক্রমণের হার ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে। উপরন্তু দুই মন্ত্রকের আলোচনার মধ্যে যে পয়েন্টগুলো উঠে এসেছে, লোকসানের আশঙ্কায় তা মেনে নিতে নারাজ অনেকেই। অতঃপর হলের তালা আর খোলেনি গত ৬ মাসে। আর ঠিক সেই কারণেই ওটিটি প্ল্যাটফর্মে ভরসা রাখছেন প্রযোজক-পরিচালকেরা। যার জেরে এদিকে জোর সমস্যার মুখে পড়েছেন সিঙ্গল স্ক্রিন সিনেমা হল মালিকেরা। বলাই বাহুল্য যে, তাঁরা এবার সিঁদুরে মেঘ দেখছেন! এমতাবস্থায় ‘সিনেমাওয়ালা’দের হয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে খোলা চিঠি লিখলেন পরিচালক কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়।

[আরও পড়ুন: মুম্বই থেকে মেঙ্গালুরু গিয়ে মাদক বেচার চেষ্টা, হাতেনাতে পাকড়াও বলিউড অভিনেতা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement