১৩ ফাল্গুন  ১৪২৬  বুধবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

‘ব্রিটিশরা আসার আগে ইন্ডিয়ার ধারণা ছিল না’, সইফের মন্তব্যের জেরে টার্গেট ছেলে তৈমুর

Published by: Bishakha Pal |    Posted: January 22, 2020 9:11 am|    Updated: January 22, 2020 10:44 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘ইন্ডিয়া’ কী? সে ব্যাপারে একটা সময় ইংরেজদের কোনও ধারণা ছিল না। এমন মন্তব্যের করেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোল হতে হয়েছে অভিনেতা সইফ আলি খানকে। কেউ কেউ আবার তাঁকে ‘ইতিহাসবিদ’ বলে কটাক্ষও করেছেন। ছবি, মানচিত্র পোস্ট করে নেটিজেনরা সইফ আলি খানকে বুঝিয়ে ছেড়েছেন যে, ইংরেজদের আগেও ভারতবর্ষের অস্তিত্ব ছিল। এ বার সইফকে আক্রমণে নেমে পড়ল বিজেপিও। তাও আবার ছেলে তৈমুরকে জড়িয়ে কটাক্ষে বিঁধলেন সাংসদ মীনাক্ষী লেখি।

সদ্য মুক্তি পেয়েছে ‘তানহাজি’। ছবিতে উদয়ভান সিং রাঠোর নামে খলনায়কের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সইফ। সেই ছবির প্রচারেই সূত্রেই একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, “আমি মনে করি না ইংরেজরা ভারতে আসার আগে পর্যন্ত ‘ইন্ডিয়া’ কী, সেটা কেউ জানত বলে।’’ তাঁর ওই সাক্ষাৎকারের এই অংশটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই তাঁর উপর ঝাঁপিয়ে পড়েন নেটিজেনরা। বিজেপি নেত্রী তথা কেন্দ্রের সাংসদ মীনাক্ষী লেখি টুইটারে লিখেছেন, “তুর্কিরাও তৈমুরকে (তৈমুরলঙ) নিষ্ঠুর হিসেবেই দেখতেন। কিন্তু কিছু লোক নিজের ছেলের নাম রাখেন তৈমুর।” বক্স অফিসে ১৫০ কোটির বাউন্ডারি পেরিয়ে গিয়েছে ওম রাউত পরিচালিত ‘তানহাজি’। এখনও দৌড় জারি রয়েছে ছবির। তবে মাঠের বাইরে ফাউল করে নেটিজেনদের কাছে লাল কার্ড দেখতে হল সইফকে।

[ আরও পড়ুন: ‘ক্ষমা চাইব না’, পেরিয়ারকে ‘অপমান’ করার অভিযোগ উড়য়ে স্পষ্টোক্তি রজনীকান্তের ]

তবে লেখি শুধু সইফের ব্যাপারেই মুখ খোলেননি। কিছুদিন আগেই CAA নিয়ে মাইক্রোসফট CEO সত্য নাদেল্লাকে নিয়েও কটাক্ষ করেছিলেন। প্রসঙ্গত, তৈমুরলঙ ছিলেন অত্যাচারী তুর্কি শাসক। হত্যা, লুণ্ঠনের মাধ্যমে এশিয়ার বিস্তীর্ণ এলাকায় তাঁর সাম্রাজ্য বিস্তার করেছিলেন। ১৩৯৮ সালে ভারতে আক্রমণ করে দিল্লি তছনছ করেছিলেন ওই তুর্কি শাসক। এ হেন অত্যাচারী শাসকের নামে ছেলের নাম রাখা নিয়ে আগেও প্রশ্ন তুলেছেন নেটিজেনদের অনেকেই। ওই সময় সইফের যুক্তি ছিল, “তুর্কি শাসকের ইতিহাস আমি জানি। তাঁর নাম ছিল ‘তিমুর’। কিন্তু আমার ছেলের নাম ‘তৈমুর’। প্রাচীন এই পার্সি নামের অর্থ ‘লোহা’। এই নামের অর্থও সুন্দর, শুনতেও ভাল লাগে।’’ তবে পরে একটি সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, ছেলের নাম পরিবর্তনের কথা ভেবেছিলেন তাঁরা। কিন্তু বিতর্ক এড়াতেই তা করেননি।

[ আরও পড়ুন: অবসাদের সঙ্গে লড়াইয়ে জয়লাভ, দাভোস সম্মেলনে সম্মানিত দীপিকা ]

An Images
An Images
An Images An Images