BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনার জেরে ৫০০ কোটির ধাক্কা, টেকনিশিয়ানদের অর্থ সাহায্যের প্রস্তাব বলিউড পরিচালকদের

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: March 17, 2020 3:20 pm|    Updated: March 17, 2020 3:20 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা নিয়ে কড়া সতর্কতা জারি হলিউড, বলিউড তথা টলিউডে। বন্ধ শুটিং, বাতিল সমস্ত কাজ। বিশ্বজুড়ে তারকারা আপাতত বিরতিতে রয়েছেন, তবে সেল‌ফ কোয়ারেন্টাইনে। অন্যান্য ক্ষেত্রের মতো বিনোদুনিয়াতেও যে বড়সড় আর্থিক ধ্বস নামতে চলেছে, তা বলাই বাহুল্য। সবচাইতে ক্ষতিগ্রস্থ হবে কলাকুশলীরা। যারা দিনরাত খেটে পরিচালকের ভাবনাকে পর্দায় ফুটিয়ে তুলতে সাহায্য করেন। আর তাই সেসমস্ত স্পটবয়, সহকারী-কলাকুশলীদের আর্থিক সাহায্যের জন্য হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন বলিউড পরিচালকরা।

বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে প্রায় হাজার হাজার স্পটবয়, লাইট অ্যাসিস্ট্যান্ট, সেট-শিল্পীরা রয়েছে, যারা রোজ ৮ ঘণ্টার শিফট হিসেবে পারিশ্রমিক পান। যা ভেঙে বললে দাঁড়ায়, ‘নো ওয়ার্ক নো পে!’ কয়েকদিন ইন্ডাস্ট্রি বন্ধ থাকলে সেই মানুষগুলি সবথেকে বেশি ক্ষতির সম্মুখীন হবে। দিন দুয়েক পর দু’বেলা খাবার জোগাড় করাও হয়তো তাদের জন্য কঠিন হয়ে দাঁড়াবে। রবিবার ইন্ডিয়ান মোশন পিকচার্স প্রোডিউসর্স অ্যাসোসিয়েশন (IMPPA), ফেডারেশন অফ ওয়েস্টার্ন ইন্ডিয়া সিনে এমপ্লয়িজ এবং ইন্ডিয়ান ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন ডিরেক্টর্স অ্যাসোসিয়েশন-এর সান্ধ্যকালীন বৈঠকে ৩১ মার্চ অবধি শুটিং বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়ার পরই বলিউড পরিচালক সুধীর মিশ্রই প্রথম জুনিয়র টেকনিশিয়ানদের আর্থিক সাহায্যের জন্য একটি তহবিল গড়ার প্রস্তাব পেশ করেন।

এদিন সন্ধেবেলাই সুধীর সোশ্যাল মিডিয়ায় এই প্রস্তাব রাখায় তাতে সমর্থন জানিয়েছেন অনুরাগ কাশ্যপ (Anurag Kashyap), অনুভব সিনহা (Anuvab Sinha), বিক্রমাদিত্য মোতওয়ানির মতো পরিচালকরা। অন্যদিকে ইন্ডিয়ান ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন ডিরেক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অশোক পণ্ডিত (Ashik Pandit) জানিয়েছেন তাঁদের সংগঠনের তরফে ইতিমধ্যেই জুনিয়র টেকনিশিয়ানদের জন্য রেশন বরাদ্দ করা হয়েছে। উপরন্তু অশোক নিজেও সুধীর, অনুরাগ, অনুভব, বিক্রমাদিত্যকে আহ্বান জানিয়েছেন যে তাঁরা সাহায্য করতে চাইলে সেই তহবিলেই অর্থ দান করতে পারবেন।

[আরও পড়ুন: করোনাই ‘ভিলেন’, জিতের ‘বাজি’র শুটিং বাতিল করে লন্ডন থেকে ফিরছেন মিমি ]

আগামী ৩১ মার্চ অবধি সিনেমা, ওয়েবসিরিজ কিংবা ধারাবাহিক, যাবতীয় শুটিংয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ায় এবং একাধিক বিগ বাজেটের ছবির মুক্তি পিছিয়ে যাওয়ায় বড়সড় লোকসানের মুখে বিনোদন ইন্ডাস্ট্রি। বাণিজ্য বিশ্লেষকরা বলছেন, করোনার ধাক্কায় বলিউডে প্রায় ৫০০ থেকে ৮০০ কোটি টাকার ক্ষতি হতে চলেছে। যার প্রভাব বেশ সুদুরপ্রসারী হবে বলেই মন করছেন তাঁরা। আগামী ১৯ তারিখ অর্থাৎ বৃহস্পতিবার থেকে বলিউডের সমস্ত সেটে লাগু হবে নির্দেশিকা।

বলিউডের পাশাপাশি করোনার ধাক্কা টালিগঞ্জের স্টুডিওপাড়াতেও। দেব, জিৎ-সহ একাধিক তারকার ছবির শুটিং বাতিল হল। পিছিয়েছে প্রচুর ছবির মুক্তি। উপরন্তু অগ্রীম টাকা দিয়ে লোকেশন বুক করেও বাতিল হয়েছে শুটিং। অতঃপর টলিউডও যে জোর অর্থনৈতিক ধাক্কার সম্মুখীন হবে, তা বলাই যায়। পরিচালক অরিন্দম শীলের কথায়, “টালিগঞ্জের জুনিয়র টেকনিশিয়ানদের দিন আনে দিন খাইয়ের মতো অবস্থা। এমতাবস্থায় তারা যে সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হবে, তা বলাই যায়!” বলিউড হোক কিংবা টলিউড, জুনিয়র টেকনিশিয়ানদের নিয়ে কিন্তু চিন্তায় বিনোদন ইন্ডাস্ট্রির সবাই।

[আরও পড়ুন: উদ্বিগ্ন হলিউড! এবার করোনা আক্রান্ত ‘গেম অফ থ্রোনস’ খ্যাত অভিনেতা ক্রিস্টোফার হিভজু]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement