২৯ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার আর ‘ইদি’ নয়, ভাইজানের তরফ থেকে থাকছে বড়দিনের উপহার। একটু খুলে বলা যাক! সলমন খানের ছবি মানেই ‘ইদ রিলিজ’। ঠিক এমন ধারণাই তৈরি হয়ে গিয়েছে ভাইজান ভক্তদের। কারণ, বিগত কয়েক বছর ধরে বলিউডের প্রথম সারির তারকাদের ট্রেন্ড হয়ে দাঁড়িয়েছে কোনও উৎসব উপলক্ষে ছবি মুক্তির দিনক্ষণ নির্ধারণ করা। তবে এবার সলমনের ক্ষেত্রে একটু উলটপুরাণই ঘটেছে বটে! কারণ, এবছর ভাইজানের বহু প্রতিক্ষীত ছবি ‘দাবাং ৩’ মুক্তি পাচ্ছে বড়দিনের সময়ে।

[আরও পড়ুন: মাথায় জোর আঘাত, বাথটবে রক্তাক্ত পরিণীতি, কেন এমন লুকে অভিনেত্রী!]

কবে? সলমন খোদ জানিয়েছেন ডিসেম্বরের ২০ তারিখে প্রেক্ষাগৃহ কাঁপাতে আসছে চুলবুল পাণ্ডে। এবং শুধু তাই নয়, ভারতীয়রা নিজেদের ভাষায় উপভোগ করতে পারবেন চুলবুল পাণ্ডের কাণ্ডকারখানা। অর্থাৎ মোট ৪টি ভারতীয় ভাষায় মুক্তি পাবে ‘দাবাং ৩’। না, বাঙালি সিনেদর্শকরা অবশ্য এই আওতায় পড়ছেন না। তাহলে? হিন্দি তো বটেই। তার সঙ্গে কন্নড়, তামিল ও তেলুগু ভাষাতেও মুক্তি পাবে প্রভুদেবা পরিচালিত এই ছবি। বুধবার ইনস্টাগ্রামে পরিচালক প্রভুর সঙ্গে নিজের ছবি শেয়ার করে সলমন লেখেন, “হিন্দি, কন্নড় ও তেলুগু অবতারে ২০ ডিসেম্বর আপনাদের কাছে পৌঁছচ্ছে চুলবুল পাণ্ডে।”  যদিও চেনা ছকের বাইরে গিয়ে সলমন অভিনীত ‘রেস থ্রি’ মুক্তি পেয়েছিল ডিসেম্বরেই।

[আরও পড়ুন: জাতীয় পুরস্কার আমার আগেই পাওয়া উচিত ছিল: আয়ুষ্মান খুরানা]

শুটিং এখনও চলছে। যার জন্য কসরত করে রীতিমতো ওজন ঝরাতে হয়েছে ভাইজানকে। সলমন খান এবং সোনাক্ষী সিনহা বর্তমানে ‘দাবাং ৩’ ছবির কাজেই ব্যস্ত। লোকেশন কখনও রাজস্থান, তো কখনও জয়পুর। মাঝেমধ্যেই ক্যামেরার নেপথ্যের দৃশ্য নিজের সোশ্যাল সাইটে পোস্ট করেন সলমন। ঠিক সেরকমই একটি পোস্ট ঘিরে এর আগে বিতর্কে পড়েছিলেন ভাইজান। ‘দাবাং ৩’-র সেটে পাটাতনের নিচে শিবলিঙ্গ, যার উপর দাঁড়িয়ে শুটিং করছিলেন সলমন। ঠিক এই ছবি ঘিরেই উগ্রপন্থীদের রোষানলে পড়েছিলেন অভিনেতা। এছাড়াও, মধ্যপ্রদেশে শুটিং করার সময়ে ভাস্কর্য ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় আইনি নোটিস গিয়েছিল সলমন এবং ‘দাবাং ৩’ টিমের কাছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং