১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ৩ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ভরতি নিচ্ছে না হাসপাতাল, মুমূর্ষু করোনা রোগীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করলেন সাংসদ দেব

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: July 29, 2020 2:47 pm|    Updated: July 29, 2020 2:47 pm

Dev extends help to Covid patient, arranged hospital bed for the patient

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পরিযায়ীদের ঘরে ফিরিয়ে আগেই মন জয় করেছেন সাংসদ দেব (Dev)। দুস্থদের সাহায্যেও বারবার পাশে থেকেছেন। দিন কয়েক আগেই বেলঘড়িয়ার এক বৃদ্ধ মাস্ক বিক্রেতার পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। এবার সাংসদের সাহায্যেই মুমূর্ষু করোনা রোগী ভরতি হলেন হাসপাতালে।

করোনার কাল বেলায় হাসপাতালে বেড পাওয়া একপ্রকার দুষ্করই হয়ে দাঁড়িয়েছে। করোনা আক্রান্তের সংখ্যা উত্তোরত্তর বৃদ্ধি পেলেও হাসপাতালে ঠাঁই পেতে রোগীদের নাজেহাল হতে হচ্ছে বললেই চলে! করোনা আক্রান্ত স্বজনকে হাসপাতালে ভরতি করতে নাকানি-চোবানি খেতে হচ্ছে পরিবারগুলিকেও। এযাবৎকাল একাধিকবার হাসপাতালের দুয়ার থেকে রোগীদের ফিরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এমনই এক পরিস্থিতির শিকার হয়েছিলেন যাদবপুরের এক বাসিন্দা। সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় সেই খবর নজরে পড়তেই ফের ত্রাতার ভূমিকায় অবতরণ করলেন সাংসদ অভিনেতা দীপক অধিকারী ওরফে দেব (MP Actor Dev)।

Dev

‘রিল লাইফে’র পর ‘রিয়েল লাইফে’ও যে আদতে তিনি ‘হিরো’ হয়ে উঠেছেন, আবারও সেই প্রমাণই দিলেন দেব। যাদবপুরের শ্যামাপল্লীর এক বাসিন্দা বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ। সোমবারই তাঁর কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসে। কিন্তু একদিনের মাথাতেও অসুস্থ হওয়া সত্ত্বে সেই ব্যক্তিকে বাড়িতে থাকতে হয়েছে। কারণ, এদিক-ওদিক ঘুরেও হাসপাতালে ভরতি হতে পারেননি। কর্তৃপক্ষরা বলছে, হাসপাতালে বেড নেই। এদিকে বাড়িতে থেকে রোগীর আরও শোচনীয় পরিস্থিতি। যাদবপুরের সংশ্লিষ্ট কোভিড আক্রান্ত ব্যক্তির পরিবারের কথায়, কেপিসি মেডিক্যাল কলেজে বেড রয়েছে। কিন্তু তারা জানিয়েছে, স্বাস্থ্য দপ্তর তরফে কোনও ফোন না এলে ভরতি নেওয়া যাবে না। অতঃপর কোভিড রোগীকে নিয়ে বেজায় দুশ্চিন্তায় পড়তে হয় তাঁর পরিবারকে। গোটা ঘটনা জানিয়ে জনৈক ব্যক্তি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেছিলেন। আর সেই পোস্ট দেবের নজরে আসতেই তড়িঘড়ি করোনা রোগীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন সাংসদ।

[আরও পড়ুন: রিয়ার পরিবার সুশান্তকে পাগলা গারদে পাঠাতে চেয়েছিল! FIR-এ বিস্ফোরক দাবি অভিনেতার বাবার]

সংশ্লিষ্ট পোস্টেই রোগীর আত্মীয়ের নম্বর দেওয়া ছিল। দেবের ব্যক্তিগত সচিব তাঁদের ফোন করে যাবতীয় ডিটেলস নেন। এরপরই স্বাস্থ্য দপ্তরের সঙ্গে কথা বলে হাসপাতালে বেডের ব্যবস্থা করে দেন দেব। ফোন যায় ওই কোভিড রোগীর বাড়িতে। সাংসদের উদ্যোগে আপাতত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি। নিজস্ব সংসদীয় এলাকার আওতায় না পড়লেও মানবিকতার খাতিরেই তিনি সবসময়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। 

দেবের কথায়, “দিনের শেষে আমরা সকলেই এক পরিস্থিতির শিকার। তাই আমি সকলের কাছে আরজি জানাচ্ছি যে এই কঠিন সময়ে যেন পরস্পরের পাশে দাঁড়ান তাঁরা। যতটুকুই সামর্থ্য থাকুক না কেন, দয়া করে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন। ভুলে যাবেন না, রাস্তায় পড়ে থাকা কোভিড রোগী কিন্তু কাল আপনার স্বজনও হতে পারেন। তাই অনুরোধ করব নিজের সাধ্যমতো সাহায্য করুন।” এর পাশাপাশি অনুরাগীদের তিনি আশ্বাস দেন ভবিষ্যতে কোনও করোনা রোগীর হাসপাতালে বেড পেতে অসুবিধে হলে তিনি তাঁদের পাশেও দাঁড়াবেন নিজের সাধ্যমতো।

[আরও পড়ুন: উলুবেড়িয়ার ছাত্রের মাউথ অর্গানের সুরে মুগ্ধ অমিতাভ, টুইটে ভূয়সী প্রশংসা বঙ্গসন্তানের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে