৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যখন সোশ্যাল মিডিয়ায় যা পোস্ট করুন না কেন উপরি পাওনা হিসাবে এষা গুপ্তাকে নিয়ে আলোচনা হবেই৷ তা সে ভাল কথা হোক কিংবা সমালোচনা৷ বিতর্ক যেন কিছুতেই পিছু ছাড়েনা এষা গুপ্তার৷ স্বাধীনতা দিবসেও ঘটল ঠিক একইরকম৷ দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচিত হলেন তিনি৷

[আরও পড়ুন: এবার ওয়েব সিরিজে হাত পাকাতে চলেছেন বিরসা দাশগুপ্ত, প্রযোজনায় পরমব্রত]

গোটা দেশ বৃহস্পতিবার ৭৩তম স্বাধীনতা দিবস পালন করে৷ ঠিক সেই সময় আর পাঁচজনের মতো প্রাক্তন মিস ইন্ডিয়াও দেশবাসীকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানান৷ ওই পোস্ট নিয়ে চলছে শোরগোল৷ কিন্তু ঠিক কী পোস্ট করেছিলেন এষা? স্বাধীনতা দিবসে আচমকাই সাধারণতন্ত্র দিবসের শুভেচ্ছা জানালেন বলিউড অভিনেত্রী৷ নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে শেয়ারও করে ফেলেন সেই পোস্ট।

[আরও পড়ুন: স্বাধীনতা দিবসেই ‘গুমনামি’র টিজার, প্রকাশ্যে নেতাজিরূপী প্রসেনজিৎ]

এরপরই উঠেছে সমালোচনার ঝড়৷ স্বাধীনতা এবং সাধারণতন্ত্র দিবস কীভাবে গুলিয়ে ফেললেন বলিউড অভিনেত্রী, সেই প্রশ্নই তুলছেন নেটিজেনরা৷ যিনি স্বাধীনতা এবং সাধারণতন্ত্র দিবসের ফারাক জানেন না তাঁকে কীভাবে ২০০৭ সালে মিস ইন্ডিয়ার শিরোপা দেওয়া হল, সেই প্রশ্ন করতেও ছাড়েননি নেটিজেনদের একাংশ। অনেকেই আবার ব্যাখ্যা দিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছেন কোনটি স্বাধীনতা দিবস এবং সাধারণতন্ত্র দিবসের ইতিহাসও৷

নেটদুনিয়ার আক্রমণ সামাল দিতে নিজেই ময়দানে নেমে পড়েছেন এষা৷ অভিনেত্রীর দাবি, তাঁর টুইট অ্যাকাউন্ট নাকি হ্যাক করা হয়েছে৷ তিনি নিজে নন, যে হ্যাক করেছে সেই এভাবে স্বাধীনতা দিবসে সাধারণতন্ত্র দিবস নিয়ে টুইট করে৷ ওই বিতর্কিত টুইটটি রিটুইট না করারও আবেদন জানিয়েছেন এষা৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং