BREAKING NEWS

২৪  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

মহাজনদের আধিপত্য রুখে চলচ্চিত্রকে ‘ইন্ডাস্ট্রি’র মর্যাদা দিয়েছিলেন সুষমাই

Published by: Bishakha Pal |    Posted: August 7, 2019 1:07 pm|    Updated: August 7, 2019 1:07 pm

Former External Affairs Minister Sushma Swaraj made film an industry

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের অকাল প্রয়াণ এখনও মেনে নিতে পারছে না দেশবাসী। তাবড় রাজনীতিবিদ থেকে আমআদমি, মন খারাপ সবারই। দেশবাসীর জন্য কী না করেছেন তিনি। কানে শুধু খবর পৌঁছনোর অপেক্ষা ছিল। তারপর যত দ্রুত সম্ভব অ্যাকশন নিতেন তিনি। তাই দলের বাইরেও অনেকে তাঁকে মন থেকে ভালবাসত। তাই তাঁর প্রয়াণের খবর প্রকাশ্যে আসা মাত্রই সেই টুইটার ভেসে গিয়েছে শোকবার্তায়। এরই মধ্যে বলিউড অভিনেত্রী শাবানা আজমি তাঁর টুইটে এমন একটি কথা উল্লেখ করেছেন, যে তথ্য আজও অনেকের অজানা। বলিউডের যে আজ এত বাড়বাড়ন্ত, তার পিছনেও রয়েছে সুষমা স্বরাজের অবদান। কয়েক দশক আগে তিনি যে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, আজ তার সুফল ভোগ করেছে ‘ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি’।

[ আরও পড়ুন: পরিবারের অমতে বিয়ে, ৪৪ বছর পর সুষমাকে হারিয়ে নিঃসঙ্গ স্বামী ]

ব্যবসার দুনিয়ায় ‘ফিল্ম’ আজ একটি প্রতিষ্ঠিত ‘ইন্ডাস্ট্রি’। মাত্র ২৫ বছর বয়সে হরিয়ানার মন্ত্রিসভায় স্থান পেয়েছিলেন সুষমা স্বরাজ। এরপর তিনি দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হন। এই সময় জনগণের স্বার্থে অনেক কাজ করেছিলেন তিনি। কিন্তু অটল বিহারি বাজপেয়ীর আমলে যখন তিনি তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের দায়িত্ব পান, তখন দেশের চলচ্চিত্র শিল্পের দিকে নজর দেন তিনি। বলিউড থেকে শুরু করে আঞ্চলিক চলচ্চিত্র, সব জায়গারই অবস্থা ছিল এক। ছবি তখন বানাতে হত খুব ঝুঁকি নিয়ে। ১৯৯৮ সালের একটি সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট বলছে, তখন কোনও ছবি প্রযোজনা করতে বেশ বেগ পেতে হত। প্রায় ২৫ শতাংশ ফিল্মে প্রযোজনার টাকা দিত মহাজনরা। এর জন্য বড় অঙ্কের সুদ দাবি করত তারা। অনেক সময় তা বছরে ৩৬ থেকে ৪০ শতাংশ পর্যন্ত হয়ে যেত। আর ৭০ শতাংশ ছবি প্রযোজনা করত ব্যবসায়ীরা। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে গয়না ব্যবসায়ী ও প্রোমোটাররাই ছবি প্রযোজনায় টাকা ঢালত। ৫ শতাংশ ছবি প্রযোজনা করত আন্ডারওয়ার্ল্ডের প্রভাবশালী ব্যক্তিরা।

সুষমা স্বরাজই এই দুর্দিন থেকে বের করে আনেন ভারতীয় চলচ্চিত্রকে। তাঁর আমলেই চলচ্চিত্র ‘ইন্ডাস্ট্রি’র মর্যাদা পায়। ছবি প্রযোজনার জন্য তখন থেকেই ব্যাংক লোন দিতে শুরু করে। স্বস্তির নিশ্বাস ফেলেন পরিচালকরা। মহাজনী কারবার বন্ধ হয়। সুদের হার অনেক কমে যায়। বিভিন্ন বেআইনি সূত্র থেকে চলচ্চিত্র জগতে টাকা ঢোকাও বন্ধ হয়ে যায়। সুষমা স্বরাজের প্রয়াণের পর অভিনেত্রী শাবানা আজমি যে টুইট করেছেন, তাতে এর একটি সূক্ষ্ম আভাস দিয়েছেন তিনি। লিখেছেন, ‘she gave industry status to film.’

[ আরও পড়ুন: ‘আমাদের বাঁচান’, কাশ্মীর উল্লাসের মধ্যেই হাহাকার ৯ হাজার জেট কর্মীর  ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে