BREAKING NEWS

৮ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২২ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

OMG! চুমু খেতে খেতে এ কী হল অভিনেতার?

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 11, 2019 11:27 am|    Updated: January 11, 2019 11:29 am

Imran Hasmi bored to play kissing scene

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অসুস্থ হয়ে পড়েছেন ইমরান হাসমি৷ কী হয়েছে ‘কিসিং কিং’-এর? তা নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা৷ কিন্তু সেই জল্পনায় জল ঢাললেন অভিনেতা স্বয়ং৷ নায়কের উত্তর শুনলে রীতিমতো অবাক হয়ে যাবেন আপনি৷ দাবি, চুমু খেয়ে নাকি ঠোঁট ফুলে গিয়েছে তাঁর৷

[রণবীর থেকে আলিয়া, প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে একঝাঁক বলিউড তারকা]

বলিউড, ইমরান হাসমি ও চুমু। এই তিনটি শব্দের মধ্যে জোরালো এক বন্ধন রয়েছে তা হিন্দি ছবির দর্শক মাত্রেই জানেন। ইমরান হাসমির চুমুর দৃশ্যে শিহরণ জাগে দর্শকদের৷ কিন্তু ‘কিসিং কিং’ এবার নাকি চুমু খেতে খেতে ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন। ইমরান জানিয়ে দিয়েছেন, ১৭ বছর ধরে পর্দায় চুমুর পর চুমু খেয়েছেন তিনি৷ তার ফলে নাকি ঠোঁট ফুলে গিয়েছে তাঁর। সেই ইমেজ থেকে বেরোতে মরিয়া চেষ্টা করছেন বলেও জানান ইমরান। নতুন ছবি ‘চিট ইন্ডিয়া’ মুক্তির প্রাক্কালে এভাবেই সংবাদমাধ্যমের সামনে মনের কথা খুলে বললেন ইমরান।

[‘এবিসিডি ৩’-এ বরুণের বিপরীতে নোরা ফতেহি]

ইমরান জানিয়েছেন, ‘‘আমি চুমু খেতে খেতে ক্লান্ত। কেউ আমার যন্ত্রণা বোঝে না। সতেরো বছর ধরে ছবি পিছু কুড়িটা করে চুমু। আমার ঠোঁট ফুলে গিয়েছে।’’  তবে এই ‘কিসিং কিং’ নামই যে তারকা হিসেবে প্রতিষ্ঠা দিয়েছে তাঁকে তা মেনে নিয়েছেন ইমরান। তিনি বলেন, ‘‘দর্শকরা নিজেদের বিচারে এক-একজন অভিনেতাকে এক-একরকম নাম দেন৷ সেভাবে আমি চুমুর জন্য বিখ্যাত হয়ে গিয়েছি৷ এই ইমেজের কারণে আমি লাভবানও হয়েছি। আমার বহু ছবি হিট হয়েছে ঠিক এই কারণেই। কিন্তু নিজের ইমেজ ধরে রাখতে গিয়ে খুবই কষ্ট পাচ্ছি৷ চুমু খেতে খেতে আমি ক্লান্ত৷’’

[৮ বছর পর ছোটপর্দায় ফিরছেন ঋ]

একটা ইমেজ তৈরি হয়ে গেলে সেখান থেকে বেরিয়ে আসা যে কঠিন, তাও মেনে নিচ্ছেন ইমরান। সে জন্য ভিন্ন ধরনের চরিত্রে কাজ করতে হবে বলে জানান তিনি। কিন্তু অন্য চরিত্রে কাজ করলেও কী এত বছর ধরে তৈরি হওয়া ‘কিসিং কিং’ তকমা মুছে যাবে তাঁর, এই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে ইমরানের অনুরাগীমহলের অন্দরে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে