BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ দেওয়ার বদলে নগ্ন হতে বলেন পরিচালক সাজিদ খান’, বিস্ফোরক মডেল

Published by: Suparna Majumder |    Posted: September 11, 2020 3:21 pm|    Updated: September 11, 2020 3:21 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বছর দু’য়েক আগে হলিউড, বলিউড তোলপাড় করে শুরু হয়েছিল ‘মি টু’ (#MeToo) আন্দোলন। তার রেশ ফিরিয়ে পরিচালক সাজিদ খানের (Sajid Khan) বিরুদ্ধে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ আনলেন ভারতীয় মডেল পাওলা (Paula)। নিজের ইনস্টাগ্রাম পোস্টে পাওলা জানিয়েছেন, ১৭ বছর বয়সে তাঁর সঙ্গে অশালীন আচরণ করেছিলেন ফারহা খানের ভাই। ‘হাউসফুল’ (Housefull) সিনেমায় অভিনয়ের সুযোগ দেওয়ার বদলে নগ্ন হতে বলেছিলেন পরিচালক। তাঁকে জোর করে ছোঁয়ারও চেষ্টা করেছিলেন।

২০১৮ সালে সারা বিশ্বের বিনোদন জগৎ তোলপাড় করেছিল ‘মি টু’ আন্দোলন। তার জেরেই এখন শ্রীঘরে হলিউডের প্রযোজক হার্ভে ওয়েনস্টাইন (Harvey Weinstein)। মুম্বইয়ে ‘মি টু’ আন্দোলনের সূত্রপাত হয়েছিল তনুশ্রী দত্তের (Tanushree Dutta) অভিযোগকে কেন্দ্র করে। নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে হেনস্তার অভিযোগ এনেছিলেন অভিনেত্রী। এরপরই একের পর এক নিগ্রহের ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছিল। তখনও অভিযুক্তদের তালিকায় ছিলেন সাজিদ খানও। বলিউড পরিচালকের  বিরুদ্ধে একাধিক মহিলা নিগ্রহের অভিযোগ এনেছিলেন। মন্দানা করিমি, সালোনি চোপড়া, রাচেল হোয়াইট থেকে শুরু করে জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ পর্যন্ত সাজিদের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন। ঘনিষ্ঠ মহলে সাজিদকে নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন অক্ষয় কুমার (Akshay Kumar), বিপাশা বসুর মতো তারকারা। ফলস্বরূপ ‘হাউসফুল ৪’ (Housefull 4) ছবির পরিচালনার দায়িত্ব ছাড়তে হয়েছিল সাজিদকে। তাঁর বদলে ছবিটি পরিচালনা করেন ফারহাদ শামজি। ইন্ডিয়ান ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন ডিরেক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে সাজিদকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল। সেই সময় কেন মুখ খোলেননি পাওলা?

[আরও পড়ুন: আদালতে খারিজ জামিনের আবেদন, এখনই জেল থেকে মুক্তি পাচ্ছেন না রিয়া চক্রবর্তী]

এই প্রশ্নের উত্তরও নিজের ইনস্টাগ্রাম পোস্টে দিয়েছেন পাওলা। জানিয়েছেন, তাঁর কোনও গডফাদার ছিল না। আর মা-বাবার দায়িত্ব কাঁধে ছিল। তাঁদের জন্য রোজগার করতে হত। এখন নিজের জন্য রোজগার করেন পাওলা। তাই কাজ হারানোর ভয় আর এখন নেই তাঁর। তবে সত্যি কথা সামনে আনার তাগিদ রয়েছে। যাতে সাজিদের মতো মানুষদের উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া যায়। সেই কারণেই এতদিন পর মুখ খুলেছেন ভারতীয় মডেল।

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 

🙏🏼 Before democracy dies and there is no freedom of speech anymore I thought I should speak !

A post shared by Dimple paul (@paulaa__official) on

[আরও পড়ুন: প্রিয় কঙ্গনার জন্য শিব সেনা মুখপাত্র সঞ্জয় রাউতকে হুমকি ফোন! টালিগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার যুবক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement