১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:   ‘ময়ূরাক্ষী’র পর ফের অতনু ঘোষের ছবিতে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। তবে চমক অবশ্য অন্য। এই ছবির জুটিতে। এই প্রথম জুটি বাঁধছেন এপার বাংলা আর ওপার বাংলার দুই মেগা স্টার- প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় এবং জয়া আহসান। এইপ্রথম পর্দায় একসঙ্গে দেখা যাবে জয়া-প্রসেনজিতের রসায়ন। আর এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই কিন্তু বাঙালি সিনেদর্শকরা মুখিয়ে রয়েছেন সেই ছবির জন্য।

[আরও পড়ুন: পুজোয় আসছে ‘মিতিন মাসি’, রণং দেহি রূপে ট্রেলারেই বাজিমাত কোয়েলের ]

‘রবিবার’ দিনটির জন্য সারা সপ্তাহ ধরে অপেক্ষা করে বসে থাকি আমরা। তবে এক্ষেত্রে ব্যাপারখানা একটু আলাদা। কারণ, এই ছবির নামই যে ‘রবিবার’। বহুদিন ধরে বহু পরিচালক চেষ্টা চালিয়ে ছিলেন প্রসেনজিৎ এবং জয়াকে একফ্রেমে আনার। তবে শেষ পর্যন্ত তা সম্ভব করলেন অতনু ঘোষ। অন্যদিকে, জয়াও ‘বিনিসুতোয়’ ছবির পর এই দ্বিতীয়বার কাজ করতে চলেছেন অতনু ঘোষের সঙ্গে। মঙ্গলবার প্রকাশ্যে এল ‘রবিবার’-এর প্রথম পোস্টার।

রবিবার, হিসেবমতো সাপ্তাহিক ছুটির দিন। সারাদিন অবসর, আড্ডা আর ভাল ভাল খাওয়া। সেই সঙ্গে সম্পর্কের আয়নায় একটু চোখ বুলিয়ে নেওয়া। হতে পারে সেটা নতুন সম্পর্ক কিংবা পুরনো। আচ্ছা কেমন হয় যদি, অতীতের রবিবারে কাটানো কোনও দিন মনে পড়ে যায় বর্তমানের রবিবারে। কেমন আছে সেই স্মৃতিগুলো? দেওয়ালের ওপারে দাঁড়িয়ে থাকা এমনই এক সম্পর্কের গল্প নিয়ে তৈরি হচ্ছে অতনুর ‘রবিবার’৷

[আরও পড়ুন: ‘#MeToo আন্দোলনটাকেই দুর্বল করে দিলেন’, আমিরকে কটাক্ষ তনুশ্রীর]

জয়ার সঙ্গে কাজ করা নিয়ে কী বলছেন ইংল্যান্ড থেকে সদ্য ফেরা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়? “অনেক দিন ধরেই চেয়েছিলাম৷ জয়ার সঙ্গে কাজ করার জন্য আসলে সঠিক স্ক্রিপ্টের অপেক্ষায় ছিলাম। ঠিক যেমন সৌমিত্রকাকুর সঙ্গে কাজ করতে ‘ময়ূরাক্ষী’ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে।” আর অন্যদিকে জয়া আহসান কী বলছেন? তাঁর কথায়, “অবশেষে বুম্বাদার সঙ্গে কাজ করছি৷ আমি খুব গর্বিত তো বটেই, আনন্দিতও।” অতনু ঘোষের কথায়, জয়া টলিউডে খুব ভাল ভাল কাজ করছে৷ প্রসেনজিৎ এবং জয়াকে নিয়ে একসঙ্গে কাজ করতে পেরে আমি সত্যিই আনন্দিত৷”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং