১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দশ মাসের মেয়েকে ঘুম পাড়িয়ে শুটিং, লকডাউনের প্রথম শর্ট ফিল্মের অভিজ্ঞতা শেয়ার কনীনিকার

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 25, 2020 12:38 pm|    Updated: April 25, 2020 1:35 pm

An Images

বিদিশা চট্টোপাধ্যায়: লকডাউনের মধ্যেই একটি শর্ট ফিল্মের স্ক্রিপ্ট লিখে, অভিনয় করে, শুট করে ফেললেন অভিনেত্রী কনীনিকা বন্দোপাধ্যায়। বাড়িতে একাই সমস্ত কাজ করছেন তিনি। তার ফাঁকে দশ মাসের ছোট্ট মেয়েকে সামলানো। তার মধ্যেই ক্রিয়েটিভ কিছু করার ইচ্ছে ছিল কনীর।

‘বাড়িতে সব কাজ করছি। লকডাউনের মধ্যে দশ ঘণ্টার কাজের দিদিকে অনেকদিন আগেই ছুটি দিয়ে দিয়েছি। ফলে ঘরের কাজ আমার ঘাড়ে। আর আমি একটা জিনিস লক্ষ্য করেছি বাড়িতে বেশিরভাগ পুরুষেরা কাজ করতে চান না। যেন ঘরের কাজ মনে মেয়েদের সব করতে হবে। এটা তো ঠিক নয় তাই না! আর বিদেশে একরকম। কিন্তু এখানে আমরা পরিচারিকার ওপর এত বেশি নির্ভরশীল। যখন তারা থাকেন না তখন তাঁদের প্রয়োজনীয়তা আরও বেশি করে টের পাওয়া যায়। যদিও আমার বাড়ির কাজ করতে মন্দ লাগছে না। কিন্তু বেশিরভাগ বাড়ির চিত্রটা এটাই’, টেলিফোনে বলছিলেন কনীনিকা।

[ আরও পড়ুন: ত্রাণের দাবিতে হাহাকার বাদুড়িয়ায়, টিকটক ভিডিও করতে ব্যস্ত সাংসদ নুসরত ]

short film haat

তাঁর শর্ট ফিল্মের বিষয়টাও এই নিয়েই। ছবির নাম ‘হাত’। বউ, শ্বাশুড়ি এবং পরিচারিকা- এই তিনটে চরিত্রে দেখা যাবে কনীনিকাকেই। শুটিংয়ে সাহায্য করেছেন হাজব্যান্ড সুরজিৎ হরি। এডিট এবং মিউজিক করেছেন কৃষ্ণেন্দু দত্ত। সুরজিৎ নিজেই শুটিং করে দিয়েছেন। ‘এই তিনদিন আগে শুট করলাম। সত্যি বলতে কী, আমাদের কাজ কবে শুরু হবে জানি না। আগামী ছ’মাসে তো কিছু হবে বলে মনে হচ্ছে না। সারাদিন কিয়াকে সামলে, ঘরের কাজ করে, মনে হচ্ছিল- এটাই তো শুধু আমি নই। শুধুমাত্র এটাই তো আমার কাজ নয়। অভিনয় ব্যাপারটা, যেটা আমি খুব এনজয় করি, সেটা থেকে যেন আমি অনেক দূরে চলে এসেছি। আমি এই কাজটা খুব মিস করছিলাম। তাই এটা করে ফেলা। আর বললে বিশ্বাস করবে না, কিয়াকে ঘুম পাড়িয়ে জাস্ট তিন ঘণ্টায় শুট করেছি। সংলাপ মুখস্ত করা ব্যাপার নয়। মেকআপ পালটাতে যতটুকু সময় লেগেছে’, জানালেন কনীনিকা।

haat

[ আরও পড়ুন: টম হ্যাংকসের খবর জানতে চিঠি ৮ বছরের ‘করোনা’র, খুদে ভক্তকে টাইপরাইটার উপহার অভিনেতার ]

উৎসাহী কনী এও বললেন, আগামী শুক্রবার আরও একটা শর্ট ফিল্ম অনলাইনে রিলিজ করবেন। সব মিলিয়ে মোট তিনটে লকডাউন ট্রিলজির প্ল্যান করেছেন কনীনিকা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement