BREAKING NEWS

৮ আষাঢ়  ১৪২৮  বুধবার ২৩ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

নারদ মামলায় গ্রেপ্তারির থেকে করোনা টিকা কি বেশি প্রয়োজন নয়? প্রশ্ন রাজ-মিমির

Published by: Suparna Majumder |    Posted: May 17, 2021 1:36 pm|    Updated: May 17, 2021 2:17 pm

Mimi Chakraborty, Raj Chakraborty and Birsa Dasgupta says Corona Vaccine is more important that Narada Case arrest | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অতিমারী (Corona Pandemic) পরিস্থিতিতে রাজ্যে কার্যত লকডাউন। বেড, অক্সিজেন, টিকার হাহাকার। এমন সময় আচমকা সক্রিয় সিবিআই (CBI)। সোমবার সকালে নারদ কাণ্ডে গ্রেপ্তার করা হয় রাজ্যের দুই মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, বিধায়ক মদন মিত্র ও প্রাক্তন মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়কে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে তোলপাড় রাজ্য-রাজনীতি। প্রতিবাদে সরব হয়েছেন মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakraborty), রাজ চক্রবর্তী (Raj Chakraborty)।

বেলা সোয়া বারোটা নাগাদ নিজের টুইটার প্রোফাইলে তৃণমূলের তারকা সাংসদ (TMC MP) মিমি চক্রবর্তী লিখেছেন, “এবার সিবিআই? তাঁরা কি ভ্যাকসিন আনছেন?” অন্যদিকে পরিচালক বিরসা দাশগুপ্তর (Birsa Dasgupta) টুইট শেয়ার করেছেন তারকা বিধায়ক (TMC MLA) রাজ চক্রবর্তী। নিজের টুইটে বিরসা লেখেন, “আমাদের ভ্যাকসিন দিন। যদি বেঁচে থাকি, তাহলে সিবিআই পাঠাবেন। তবে ভ্যাকসিন আগে পাঠান।” পরে আবার ফেসবুকে বারাকপুরের তৃণমূল কর্মীদের শান্ত থাকার অনুরোধ জানান বিধায়ক রাজ। 

Mimi Chakraborty, Raj Chakraborty, Birsa Dasgupta says Corona Vaccine is more important that Narada Case arrest

[আরও পড়ুন: অর্থের অভাবে সংকটের মুখে বাবার চিকিৎসা, অসহায় বালিকার পাশে ‘ত্রাতা’ দেব]

সোমবার চার হেভিওয়েটকে আটক ও পরবর্তীতে গ্রেপ্তারি বেআইনি বলে দাবি করেন তৃণমূল নেতারা। ঘটনার নেপথ্যে বিজেপি (BJP) রয়েছে বলেই দাবি করেছে রাজ্যের শাসক দল। ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। এদিন সরাসরি নিজাম প্যালেসের ১৫ তলায় সিবিআই দপ্তরে উঠে যান তিনি। প্রথমে কথা বলেন আইনজীবীদের সঙ্গে। এরপর সিবিআই আধিকারিকদের সঙ্গেও কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী। দাবি করেন, যেভাবে এই চার রাজনীতিবিদকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তা বেআইনি। তাঁকেও গ্রেপ্তার করতে হবে, নাহলে নিজাম প্যালেস ছাড়বেন না বলেই জানিয়ে দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। এদিকে সকাল থেকেই নিজাম প্যালেসের বাইরে ক্রমাগত বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন তৃণমূল কর্মীরা। পরিস্থিতি সামলাতে দিল্লি থেকে বাড়তি কেন্দ্রীয় বাহিনী চেয়ে পাঠানো হয়েছে। দক্ষিণ কলকাতা, উত্তর কলকাতায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা। কাঁকুড়গাছি, মানিকতলায় নরেন্দ্র মোদির কুশপুতুল দাহ করা হয়েছে।  

[আরও পড়ুন: সংগীতকার জেমসকে নিয়ে আপত্তিকর পোস্ট নোবেলের, গায়কের সঙ্গে চুক্তি বাতিল সাউন্ডটেকের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement