২১ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৬ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

উলটো রথে ইসকন মন্দিরে নুসরত-নিখিল, রীতি মেনে দড়ি টেনে আরতিও করলেন দম্পতি

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: July 1, 2020 4:57 pm|    Updated: July 1, 2020 4:57 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইসকনের উলটো রথে অংশ নিলেন সাংসদ অভিনেত্রী নুসরত জাহান। আর শুধু অংশই নিলেন না, রীতিমতো নিয়ম মেনে মন্ত্রোচ্চারণ করে আরতি করলেন। রথের দড়ি টানলেন। সঙ্গে অবশ্য নুসরতের স্বামী নিখিল জৈনও ছিলেন। সাংসদ অভিনেত্রী কিন্তু আরও একবার বুঝিয়ে দিলেন যে, ‘মানবতাই শ্রেষ্ঠ ধর্ম’।

‘বসুধৈব কুটুম্বকম’, অর্থাৎ এই গোটা জগৎসংসারই একটা পরিবার। আর প্রত্যেকটা জীবই সেই পরিবারের সদস্য। ইসকন (ISKON) সেই মন্ত্রেই বিশ্বাসী। তাই কর্তৃপক্ষের তরফেই আমন্ত্রিত ছিলেন সাংসদ তথা অভিনেত্রী। আর সেই নিমন্ত্রণ রক্ষার্থে একেবারে নির্ধারিত সময়ে বেলা ১২.৩০টা নাগাদই স্বামী নিখিলকে (Nikhil Jain) নিয়ে পৌঁছে গেলেন। রথযাত্রায় অংশ নেওয়ার সেই ছবি নুসরত শেয়ারও করেছেন টুইটারে। সেই ছবিতেই সাংসদকে দেখা গেল সবুজ রঙের সালোয়ার-কুর্তা পরে যাবতীয় আচার পালন করতে।

প্রসঙ্গত, ইসকন কলকাতার আয়োজিত রথযাত্রা অনুষ্ঠানে নুসরত জাহান (Nusrat Jahan) অবশ্য গতবছরও স্বামী নিখিল জৈনকে নিয়ে অংশগ্রহণ করেছিলেন। সেবারও নিয়ম মেনে যাবতীয় লোকাচার পালন করেছেন। যার জন্য কটাক্ষের শিকারও হতে হয়েছিল সাংসদকে। কেন মুসলিম ধর্মাবলম্বী হয়ে হিন্দু আচার পালন করছেন? সেই প্রশ্ন তুলে চোখ রাঙিয়েছিলেন ধর্মের ধ্বজাধারীরা। তখন সদ্য বিয়ে সেরে তুরস্ক থেকে ফিরে শপথবাক্য পাঠ করেছেন পার্লামেন্টে। তবে, সেসব কটাক্ষ, কদর্য মন্তব্য কোনও কিছুতেই অভিনেত্রী কর্ণপাত করেননি। গোড়া থেকেই একটা কথা বলে এসেছেন, “মানব ধর্মই শ্রেষ্ঠ ধর্ম।” টুইটারে ছবি শেয়ার করে বুধবারও সেই কথাই লিখলেন ক্যাপশনে।

[আরও পড়ুন: ভারতকে নিয়ে কদর্য মন্তব্য! বাংলাদেশি নেটিজেনদের মোক্ষম জবাব দিলেন জয়া আহসান]

করোনা সংক্রমণের কারণে এবার কোথাও বড় করে রথযাত্রা পালন করা যায়নি। কড়া নির্দেশিকা মেনে একেবারে যৎসামান্য আয়োজনেই সারা হয়েছে রথযাত্রা। সেই তালিকায় রয়েছে ইসকনের রথও। প্রতি বছর যেভাবে বেশ কিছুটা পথ জগন্নাথ, বলরাম ও সুভদ্রাকে নিয়ে পাড়ি দেয় ইসকনের রথ, এবারে আর তেমনটা হয়নি। নিয়ম মেনে এবার কলকাতায় মন্দির চত্বরেই পালিত হয় ইসকনের রথযাত্রা। তবে নুসরতের শেয়ার করা ছবিতেই দেখা যাচ্ছে, সামান্য হলেও কৌতূহলী মুখেরা ভিড় জমিয়েছেন। ‌তবে কড়া পুলিশি ব্যবস্থা ছিল। যাতে কোনওভাবেই স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গ না হয়।

[আরও পড়ুন: রাজনীতির ময়দান থেকে শুটিং ফ্লোরে, সাংসদ হওয়ার পর প্রথমবার এক ছবিতে মিমি-নুসরত]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement