BREAKING NEWS

২৭ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

‘কয়েকটা অ্যাপ ব্যান করলেই কি সমস্যা মিটবে?’ TikTok নিষিদ্ধ হওয়া নিয়ে মুখ খুললেন নুসরত

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: July 1, 2020 9:41 am|    Updated: July 1, 2020 9:41 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “কয়েকটি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করলেই কি ইন্দো-চিন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের গুরুতর সমস্যার সমাধান হবে? অনেক প্রশ্নেরই উত্তর মিলছে না এখনও, সেগুলোও পর্যালোচনা করে দেখা উচিত সরকারের”, TikTok নিষিদ্ধ হওয়ায় প্রতিক্রিয়া তৃণমূল সাংসদ তথা অভিনেত্রী নুসরত জাহানের।

তবে সাংসদ কিন্তু সরকারের এই সিদ্ধান্তের মোটেই বিরোধিতা করেননি। নুসরতের (Nusrat Jahan) কথায়, “টিকটক আমার কাছে অনুরাগীদের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার একটা মাধ্যম ছাড়া আর কিছুই নয়! আর সেই অ্যাপ যদি দেশের স্বার্থে নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়, সেক্ষেত্রে আমার পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। কিন্তু আমার সন্দেহ রয়েছে, শুধুমাত্র কয়েকটি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করলেই কি এই গুরুতর সমস্যার সমাধান হবে? সরকারের উচিত, জনসাধারণের পকেটে কোনওরকম টান না দিয়েই এর বিকল্প ব্যবস্থা করা, বিশেষ করে চিনা দ্রব্যই যাঁদের রুটিরুজি, তাঁদের জন্য। সরকারে উচিত এই সিদ্ধান্তের পাশাপাশি অবিলম্বেই তাঁদের জন্য বিকল্প কোনও ব্যবস্থা করা।” “প্রধানমন্ত্রীর চিন সফর থেকে আমরা কি পেয়েছি?” গুরুতর প্রশ্ন তুলেছেন সাংসদ নুসরত জাহান।

[আরও পড়ুন: নেপোটিজম নিয়ে করণের পাশে দাঁড়িয়ে বিপাকে স্বরা, অভিনেত্রীকে তুলোধনা করলেন কঙ্গনা]

TikTok-এর মতো অ্যাপ যে ভারতে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছিল, এবং সর্বোপরি অনেকেই যে এই প্ল্যাটফর্মের দৌলতে রাতারাতি স্টার হয়ে গিয়েছেন, তা বোধহয় অস্বীকার করার কোনও জায়গা নেই। তারকারাও দিব্যি এই অ্যাপে অ্যাকাউন্ট খুলে লক্ষাধিক ফলোয়ার বাড়িয়ে নিয়েছিলেন। কিন্তু এবার তার ইতি ঘটল! টলিতারকাদের মধ্যে নুসরত জাহানের টিকটক অ্যাকাউন্ট ছিল বেশ জনপ্রিয়। ফলোয়ারের সংখ্যাও চোখ ধাঁধানো- প্রায় ১৪ লক্ষেরও বেশি। শুধু তাই নয়, লকডাউনে যখন রাজ্য তথা গোটা দেশে একাধিক সমস্যার উত্থান হয়েছে, তখন টিকটকে নাচের ভিডিও পোস্ট করে বহুল সমালোচিত হয়েছিলেন অভিনেত্রী সাংসদ। টিকটক অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন ২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে। তিনিই এবার ভারতে চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ হওয়া নিয়ে মুখ খুললেন।

লাইক, কমেন্টের মোহে টিকটকের (TikTok) নেশায় জেনওয়াই যে এতদিন বুঁদ ছিল, তার প্রমাণ সোশ্যাল মিডিয়া খুললে দিনরাত এক করে টাইমলাইনে বেয়ে যাওয়া টিকটক ভিডিও! তবে এখন থেকে আর সেই টিকটকারদের ভিডিও পাওয়া যাবে না! বন্ধ সেই উপায়। প্লে-স্টোর কিংবা অ্যাপল স্টোর থেকেও বিদায় নিয়েছে এই জনপ্রিয় অ্যাপ! কারণ, সোমবারই তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৬৯এ ধারায় অ্যাপটি নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে। খুব কম সময়ের মধ্যেই টিকটক যে ভারতীয় বিনোদন জগতের তারকাদের কাছে হট ফেভারিট হয়ে উঠেছিল, তা বোধহয় অস্বীকার করার কোনও জায়গাই নেই। অভিনেত্রী তথা সাংসদ নুসরত জাহান ছাড়াও টিকটকে অ্যাকাউন্ট রয়েছে মিমি চক্রবর্তী-সহ আরও অনেক টলিতারকারই। 

[আরও পড়ুন: খুনই হয়েছেন সুশান্ত! অভিনেতাকে নিয়ে প্রেতচর্চার ভিডিও প্রকাশ করে বিস্ফোরক দাবি যুবকের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement