৭  আশ্বিন  ১৪২৯  রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সলমনের ফার্মহাউসে চলত অসাধু কাজ, প্রতিবেশীর অভিযোগকেই মান্যতা দিল আদালত!

Published by: Akash Misra |    Posted: March 31, 2022 2:18 pm|    Updated: April 1, 2022 5:01 pm

Mumbai Court dismisses Salman Khan’s claim of being defamed | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আদালত, মামলা, অভিযোগ। সলমন খানের কাছে এসব  একেবারে জলভাত। গোটা কেরিয়ারে সলমন খানের (Salman Khan) নামে এত মামলা হয়েছে যে, বলিউডের দাবাং খান গুনে শেষ করতে পারবেন না। তবে এই খবর সলমন ও তাঁর ফার্মহাউসের বিরুদ্ধে ওঠা ভয়ঙ্কর অভিযোগ নিয়ে। যার বিরুদ্ধে মুম্বই আদালতে মানহানির মামলাও করেছিলেন সলমন খান। সলমনের সেই আবেদনকেই খারিজ করল আদালত।

কয়েক মাস আগে কেতন কক্কর নামে এক ব্যক্তি এক ইউটিউব চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিয়ে বলেন, সলমনের পানভেলের ফার্মহাউসে প্রকাশ্যে বেআইনি কার্যকলাপ ঘটে। এমনকী, কেতনের কথায়, সলমন নাকি এই ফার্মহাউস থেকে শিশুপাচার করেন। শুধু তাই নয়, কেতনের অভিযোগ এই ফার্মহাউজে নাকি বহু বলিউড অভিনেতাদের মৃতদেহ পোঁতা রয়েছে!

কেতনের এই অভিযোগের বিরুদ্ধেই মুম্বই আদালতে মানহানির মামলা করেন সলমন খান। সলমনের আইনজীবীর কথা অনুযায়ী, কেতন অভিনেতার খামারবাড়ির পাশে জমি নেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। জমির লেনদেন অবৈধ হওয়ায় তা বারবার বাতিল হচ্ছিল। সেই কারণেই সলমন খান ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ তুলতে শুরু করেন।

[আরও পড়ুন: ‘উইল স্মিথ আমার মতোই বদমেজাজি’, অস্কার মঞ্চে চড় কাণ্ডে প্রতিক্রিয়া কঙ্গনার ]

অন্যদিকে, কেতনের আইনজীবীর কথায়, কেতন অবসরের পরে পানভেলে থাকতে চান বলেই জমি কিনেছিলেন। সেই কারণেই ১৯৯৬ সালে জমিটি নিয়েছিলেন। গত ৭-৮ বছর ধরে সলমন ও তাঁর পরিবার কেতনের জমিতে নিজেদের অধিকার দাবি করে আসছে। এমনকী, বেআইনিভাবে জবরদখল করারও চেষ্টা করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন কেতন।

Salman Khan

কেতনের এসব অভিযোগের ভিত্তিতেই সলমন, কেতনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন। বৃহস্পতিবার আদালত সলমনের সেই আবেদনই খারিজ করে দেয়। মুম্বই আদালত স্পষ্ট করে জানিয়েছে, কেতন কক্করের কাছে থাকা প্রমাণগুলি সঠিক।

[আরও পড়ুন: ‘কারও আর্থিক সাহায্য পাইনি, চাইও না!’ ভুয়ো খবর নিয়ে মুখ খুললেন অভিষেকের স্ত্রী ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে