BREAKING NEWS

১৫ চৈত্র  ১৪২৬  রবিবার ২৯ মার্চ ২০২০ 

Advertisement

‘দিল্লি জ্বলছে, আপনি ট্রাম্পের সঙ্গে নৈশভোজে ব্যস্ত?’, কটাক্ষের শিকার রহমান

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: February 26, 2020 3:00 pm|    Updated: February 26, 2020 3:00 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “দিল্লি  জ্বলছে আর আপনি রাষ্ট্রপতি ভবনে ট্রাম্পের সঙ্গে নৈশভোজে ব্যস্ত”, নেটদুনিয়ায় মন্তব্য উড়ে এল এ আর রহমানের উদ্দেশে।  মঙ্গলবার রাষ্ট্রপতি ভবনে নৈশভোজের জন্য সপরিবারে আমন্ত্রিত ছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এলাহি আয়োজন। সোনা-রুপোর পাত্রে খাবার পরিবেশন করা হয় ট্রাম্পকে। মেলানিয়া এবং ডোনাল্ড ট্রাম্পকে স্বাগত জানাতে উপস্থিত ছিলেন সস্ত্রীক রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। সেই এলাহি নৈশভোজের আসরেই উপস্থিত ছিলেন সংগীতকার এ আর রহমান। ইনস্টাগ্রামে নিজেই সেই ছবি শেয়ার করেছিলেন মঙ্গলবার রাতে। তারপরই নেটিজেনদের কটাক্ষের শিকার হন তিনি।

প্রসঙ্গত, সোমবার থেকেই নাগরিকপঞ্জী আইন এবং সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে কার্যত রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে উত্তর-পূর্ব দিল্লি। জারি হয়েছে ১৪৪ ধারা। বন্ধ মেট্রো তথা যানবাহন পরিষেবা। অ্যাম্বুল্যান্স যাওয়ার উপায়টিও নেই! দেখামাত্রই গুলি করার নির্দেশ জারি হয়েছে। ইতিমধ্যেই মৃত ১৫ এবং সেই সংখ্যা ক্রমশই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। এককথায় রণক্ষেত্র রাজধানী। সেই পরিস্থিতির মাঝেই এ আর রহমানকে দেখা গেল ট্রাম্পের নৈশভোজে। জায়েন্ট ডাইনিং টেবিলের সামনে দাঁড়িয়ে পোজ দিয়ে ছবি তুলেছেন।

“সভ্য নাগরিক হিসেবে কীভাবে দিল্লির এই অশান্ত পরিস্থিতিতে তিনি ঠান্ডা মাথায় সেখানে গিয়ে নৈশভোজ সারতে পারেন”, “স্যার, চুপ করে থাকবেন না CAA, NRC নিয়েও কথা বলুন”, রহমানের ছবি দেখে এমন মন্তব্যই উড়ে এসেছে। প্রসঙ্গত, ট্রাম্পের ভারত সফরের জন্য গানও বেঁধেছেন রহমান। গান্ধীর জন্মভূমিতে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে স্বাগত জানিয়েছেন ‘সংহতির’ সুর বেঁধে। 

[আরও পড়ুন: বলিউডে দাপুটে রেবতী রায়ের বায়োপিক, নেপথ্যে জন আব্রাহাম ]

উল্লেখ্য, ট্রাম্পের নৈশভোজ নিয়ে বিতর্ক আগেই তৈরি হয়েছিল। সোনিয়া গান্ধীকে আমন্ত্রণ না জানানোর জন্য দরবার হলে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে নৈশভোজ বয়কট করেছে কংগ্রেস। তবে, গতকাল রাষ্ট্রপতি ভবনের এই অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নাইডু, লোকসভা অধ্যক্ষ ওম বিড়লা ও অন্যান্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা। ছিলেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা, তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও, অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনেওয়াল ও হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টর। অন্যদিকে এ আর রহমান ছাড়াও ছিলেন সেলিব্রিটি শেফ বিকাশ খান্না।

[আরও পড়ুন: ‘দিল্লিতে হিংসার দায় কপিল মিশ্রদের’, রাজধানীর জ্বলন্ত পরিস্থিতি নিয়ে বিজেপিকে বিঁধলেন জাভেদ]

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

A post shared by @arrahman on

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

A post shared by @arrahman on

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement