১৪  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ২৯ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

CAA ইস্যুতে মুখ খুললেন রজনীকান্ত, থালাইভার মন্তব্যে দ্বিধাবিভক্ত অনুরাগীরা

Published by: Bishakha Pal |    Posted: December 20, 2019 5:14 pm|    Updated: December 20, 2019 9:29 pm

Now Tamil star Rajinikanth opens up on CAA unrest

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে যখন দেশজুড়ে আন্দোলন চলছে, তখন একেবারে চুপ ছিলেন। জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের উপর পুলিশের লাঠিচার্জের প্রতিবাদে যখন সমাজের বিশিষ্ট মানুষরা সরব, তখনও রা কাড়েননি রজনীকান্ত। এমনকী কমল হাসান যখন টুইট করে ছাত্রছাত্রীদের প্রতি সমবেদনা দেখান, তখনও নীরব থালাইভা। এমন পরিস্থিতিতে কেন রজনীকান্ত কিছু বলছেন না, তা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনদের চর্চা চলছিলই। কিন্তু এবার যখন রজনীকান্ত মুখ খুললেন, আরও বেশি মাত্রায় সমালোচনার শিকার হলেন তিনি।

CAA’র প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বিকেলে মুম্বইয়ের ক্রান্তি ময়দানে জমায়েত হয়েছিল প্রায় কয়েক হাজার মানুষ। তাদের মধ্যে ছিলেন বলিউডের অনেক সেলেব্রিটি। ছিলেন স্বরা ভাস্কর, রাহুল বোস, সুশান্ত সিং, ফারহান আখতার-সহ অনেকে। শাহরুখ, সলমন বা আমিরকে যদিও আন্দোলনে শামিল হতে দেখা যায়নি। অনুপস্থিত ছিলেন অমিতাভ বচ্চনও। যদিও CAA ও তার প্রতিবাদে জামিয়া-সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের উপর পুলিশি লাঠিচার্জের বিরোধিতায় তাঁরা চুপ বলে বারবার ক্ষোভ উগরে দিয়েছে নেটিজেনরা। এদিনও তার ব্যতিক্রম হয়নি। কিন্তু এদিনের পর রজনীকান্ত কিন্তু চুপ থাকেননি। টুইটারে নিজের কথা জানিয়েছেন তিনি। লিখেছেন, দেশের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে ভারতীয়দের সজাগ ও সংঘবদ্ধ হওয়া দরকার। হিংসার রাস্তায় কোনও সমস্যার সমাধান হওয়া সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেন তিনি।

[ আরও পড়ুন: বাস্তুহারা কাশ্মীরি পণ্ডিতদের গল্প এবার বড়পর্দায়, আসছে ‘শিকারা’ ]

কিন্তু এরপরও রজনীকান্ত সমালোচনার শিকার হলেন। তাঁর মন্তব্য নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত নোটিজেনরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ইতিমধ্যেই তৈরি হয়েছে দু’টি হ্যাশট্যাগ। এর মধ্যে #ShameOnYouSanghiRajini হ্যাশট্যাগ দিয়ে ৩ হাজার ৬০০টি টুইট করা হয়েছে। আর #IStandWithRajinikanth হ্যাশট্যাগ দিয়ে টুইট হয়েছে ১ হাজার ৪০০ বার। অবশ্য এই পরিসংখ্যানের সময় শুক্রবার সকাল ১১টা পর্যন্ত। প্রথম পক্ষের বক্তব্য, রজনীকান্ত বিজেপিকে খুশি করতে চাইছেন। নিজের স্বার্থসিদ্ধির কথা ভাবছেন তিনি। তাই CAA নিয়ে যে দেশজোড়া আন্দোলন হচ্ছে, তা সমর্থন করার পরিবর্তে উলটো গাইছেন তিনি। আর দ্বিতীয় পক্ষ বলছে, থালাইভা তো ঠিক কথাই বলেছেন। হিংসা দিয়ে কখনও কোনও সমস্যার সমাধান হয়?

[ আরও পড়ুন: অনবদ্য ধৃতিমান, নকুড়বাবুর হাত ধরে এল ডোরাডো অভিযান সফল প্রোফেসর শঙ্কুর ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে