BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মাদার টেরিজা স্মৃতি পুরস্কারে ভূষিত প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 12, 2017 9:59 am|    Updated: September 19, 2019 5:33 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বসুন্দরীর তকমা পেয়েছেন। কোনও গডফাদার ছাড়াই বলিউডে নিজের পায়ের তলার মাটি শক্ত করেছেন। তারপর পাড়ি দিয়েছেন হলিউডে। সেখানেও হয়ে উঠেছেন ভারতের মুখ। এরই মাঝে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া দাঁড়িয়েছেন সেই সমস্ত মানুষের পাশে, ভিটেছাড়া হয়ে যাঁদের দিনের পর দিন আশ্রিত হয়ে দিন কাটাতে হয়েছে। একদিন নয় বহু আগে থেকেই এই কাজ করে আসছেন পি সি। ইউনিসেফের গুডউইল অ্যাম্বাসাডর তিনি। এবার উদ্বাস্তুদের হয়ে সমাজসেবামূলক কাজ করার জন্য নয়া স্বীকৃতি পেলেন অভিনেত্রী। মাদার টেরিজা মেমোরিয়াল অ্যাওয়ার্ড ফর সোশ্যাল জাস্টিস দেওয়া হল তাঁকে।

[বিয়ের পরও নেটদুনিয়ার খোরাক বিরুষ্কা, শুভেচ্ছাতেও মশকরা]

কোয়ান্টিকোর তৃতীয় মরশুমের শুটিং চলছে। তাই নিজে হাতে পুরস্কার নিতে আসতে পারেননি প্রিয়াঙ্কা। মেয়ের হয়ে সম্মান গ্রহণ করলেন মা মধু চোপড়া। জানালেন, ছোটবেলা থেকেই অন্যের দুঃখ ভীষণভাবে প্রভাবিত করে প্রিয়াঙ্কাকে। অন্যের দুঃখ-দুর্দশা বোঝার মতো মন যাঁর কাছে রয়েছে, এমন মেয়ে পেয়ে গর্বিত তিনি। প্রিয়াঙ্কার বিশ্বাস, বিশ্বকে যতটা ফিরিয়ে দেবে ততটাই তুমি প্রতিদান হিসেবে পাবে। ছোট থেকেই মাদার টেরিজার ভক্ত পি সি। বরেলির প্রেম নিবাসকে ভীষণভাবে সমর্থন করেন তিনি। এই অ্যাওয়ার্ড তাঁর কাছেও ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ।

[সলমনের মতোই এবার ছবির ব্যর্থতার দায় নিলেন ‘হ্যারি’ শাহরুখ]

সম্প্রতি ইউনিসেফের হয়ে জর্ডন সফরে গিয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা। সেখানে সিরিয়ার উদ্বাস্তুদের সঙ্গে দেখা করেন নায়িকা। তাঁদের কথা তুলে ধরেন নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে। শিশুদের পড়ার অধিকার নিয়েও তিনি ইউনিসেফ-এ সরব হয়েছিলেন।

At Za’atari, I’m proud to have had the opportunity to visit the home of Seba and her whole family – Mohammed, 19; Seba, 17; Haya 14; Hiba, 12; Omar, 6; Hala, 4. In spite of their circumstances, their makeshift home, and very little to call their own, we were the recipients of the full Syrian hospitality and love. Her mother, Isdihaar, a dignified and happy spirit was so open about her earlier life, and all that they do now to survive. They had a full life in Syria, with a home and everything they could ask for, and now…sitting in their sparse living room, all I got was a resolve to hold on until they could return to their home and rebuild their life. Without her husband there, she’s taking care of her 6 children by working at an innovation lab, finding innovative solutions for everyday problems…like the neo-natal air conditioner created by just using a fan, ice cubes and box with holes. As I was leaving, Seba removed her bracelet and gave it to me and said it was so I’d never forget her. I will never forget her and the amazing people I’ve met, and it is because of them that my resolve to keep working by bringing attention to their situation has just grown stronger. Hoping that somehow we, the citizens of the world, will find it in our hearts to contribute to ease the largest humanitarian crisis since the end of World War II. To donate please go to UNICEF.com or visit link in bio. @unicef #MissionForChildren #ChildrenUprooted #ChildrenOfSyria #PCInJordan

A post shared by Priyanka Chopra (@priyankachopra) on

Today was very emotional. As we go about our daily privileged lives, it’s hard to imagine that everything can be taken from you in an moment. Today we spent the day in a host community meeting Syrian refugee families (like this one) so desperately seeking a safe place of normalcy for their families. More than 80% of the Syrian refugees in Jordan live outside refugee camps in cities, urban centers and farming villages (host communities.) Amman hosts the largest number of Syrian refugees, about 180,000 people. Refugee families in host communities have limited livelihood opportunities, and after 6 years, have depleted their savings and borrowed money from everywhere to feed and support their families. @unicef #ChildrenUprooted #TheyAreUs

A post shared by Priyanka Chopra (@priyankachopra) on

সেই সমস্ত কাজের পুরস্কার হিসেবেই মাদার টেরিজা মেমোরিয়াল অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। আর তাতে মা হিসেবে ভীষণই গর্বিত মধু চোপড়া। এই পুরস্কার পি সি-কে আরও উৎসাহ দেবে বলে মনে করেন মধু।

[ভাঙনের মুখে সুপারস্টার শাকিব-অপুর বিয়ে, ঠেকাতে কারা উদ্যোগী হল জানেন?]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement