২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

হাই সোসাইটি ড্রাগ সিন্ডিকেটের সক্রিয় সদস্য রিয়া! জামিনের বিরোধিতায় যুক্তি এনসিবির

Published by: Suparna Majumder |    Posted: September 29, 2020 1:20 pm|    Updated: October 1, 2020 1:05 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হাই সোসাইটি ড্রাগ সিন্ডিকেটের সক্রিয় সদস্য ছিলেন রিয়া চক্রবর্তী (Rhea Chakraborty)। সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) প্রেমিকার জামিনের আবেদনের বিরোধিতায় নাকি এই যুক্তিই দেওয়া হয়েছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর পক্ষ থেকে। আজ, মঙ্গলবার বম্বে হাই কোর্টে (Bombay High Court) রিয়া এবং তাঁর ভাই সৌভিকের (Showik Chakraborty) জামিনের আবেদনের শুনানি। তার আগেই আদালতে জামিনের বিরোধিতায় হলফনামা দেয় NCB।

NCB-র পক্ষ থেকে হলফনামা দাখিল করেন সংস্থার আঞ্চলিক ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়ে (Sameer Wankhede)। সূত্রের খবর অনুযায়ী, এফিডেবিটে জামিনের বিরোধিতা করে জানানো হয়েছে, মাদক কারবারের সক্রিয় সদস্য ছিলেন রিয়া। নগদ, ক্রেডিট কার্ড, ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে নাকি নিয়মিত মাদক কিনতেন তিনি। রিয়াই নাকি হাই সোসাইটি এবং মাদক কারবারিদের যোগসূত্র ছিলেন। নিজের যুক্তির সপক্ষে বৈদ্যুতিন প্রমাণ হিসেবে রিয়ার হোয়াটসঅ্যাপ (Whatsapp) চ্যাট এবং কল লিস্ট জমা দিয়েছে NCB।

[আরও পড়ুন: সুশান্তের শরীরে মেলেনি জৈব বিষ, রিপোর্টে উল্লেখ করেও খুনের তত্ত্ব ওড়াল না AIIMS]

NCB-র এফিডেবিটে নাকি এও জানানো হয়েছে, সুশান্তের মাদকাসক্তির কথা রিয়া জানতেন। তা সত্ত্বেও নিয়মিত মাদক জোগাড় করতেন এবং সুশান্তকে দিতেন। রিয়া নিজেও সঙ্গ দিতেন বলেও জানানো হয়েছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর পক্ষ থেকে। সুশান্ত মামলায় মাদক যোগের তদন্তে এখনও পর্যন্ত ১৮ জনেরও বেশি অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে NCB। রিয়া, সৌভিক এবং ধর্মা প্রোডাকশনের প্রাক্তন ক্রিয়েটিভ প্রোডিউসার ছাড়া বাকি সকলেই মাদক কারবারি হিসেবে পরিচিত। আজ শুনানিতে রিয়ার পক্ষ রাখছেন তাঁর আইনজীবী সতীশ মানেশিন্ডে। সুশান্ত মামলায় মাদক যোগে দীপিকা পাড়ুকোন (Deepika Padukone), সারা আলি খান (Sara Ali Khan), শ্রদ্ধা কাপুর (Shradhha Kapoor) এবং রকুলপ্রীত সিংয়ের (Rakul Preet Singh) মতো বলিউড তারকাদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে NCB। শোনা গিয়েছে, জিজ্ঞাসাবাদের পর নাকি সারা এবং শ্রদ্ধার লিখিত বয়ানে স্বাক্ষর নিতে ভুলে গিয়েছিলেন NCB আধিকারিকরা। পরে অভিনেত্রীদের বাড়ি পৌঁছে সেই কাজ সম্পন্ন করা হয়।     

[আরও পড়ুন: ধর্ষকদের প্রকাশ্যে গুলি করে মারা হোক, দলিত যুবতীর মৃত্যুতে টুইটারে গর্জে উঠলেন কঙ্গনা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement