BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

দেবের ছবিতে জিতের ফ্যানেদের লাথি, ভিডিও টুইট করে প্রতিবাদ রুক্মিণীর

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: June 8, 2019 9:09 pm|    Updated: June 8, 2019 9:09 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইদ উপলক্ষে বুধবার একই দিনে মুক্তি পেয়েছিল দেবের ‘কিডন্যাপ‘ এবং জিতের ‘শেষ থেকে শুরু‘। সাধারণত দুই সুপারস্টারের ছবি একদিনে মুক্তি পেলে বক্স অফিসে জোর টক্কর লাগাটাই স্বাভাবিক। কারণ, বক্স অফিসের রিপোর্ট কার্ডে কে শীর্ষে থাকবে, শুরু হয় সেই প্রতিযোগিতা। কিন্তু সেই লড়াই যদি বক্স অফিসে আর সীমাবদ্ধ না থেকে শুরু হয় বাস্তবে? বুধবারও তাই হয়েছিল। এদিন হাজরা অঞ্চলের বসুশ্রী সিনেমা হলে দেব ও জিতের অনুরাগীদের মধ্যে হাতাহাতির ফলে ধুন্ধুমার কাণ্ড বাঁধে। সেই গন্ডগোল এমন পর্যায়ে পৌঁছেছিল যে আহত হয়েছিলেন ১ জন। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে মোতায়েন করা হয়েছিল পুলিশ। এবার সেই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে প্রতিবাদ জানালেন রুক্মিণী মৈত্র।

[আরও পড়ুন: চতুর্থ দিনেই ১০০ কোটির ব্যবসা, সলমনের কেরিয়ারে নয়া রেকর্ড গড়ল ‘ভারত’]

ঝামেলার সূত্রপাত হয় ৫ জুন বসুশ্রী সিনেমা হলে। এদিন প্রথমে জিতের ছবির শোয়ের পর ছিল দেবের শো। জিতের শো শেষের পর ভক্তরা যখন প্রেক্ষাগৃহ থেকে বেরিয়ে আসছিলেন তখন দেবের ছবিতে ফুল, দুধ দিচ্ছিলেন ভক্তরা। সেখান থেকেই একটা ফুল গিয়ে পড়ে এক জিৎ-ভক্তর গায়ে। সেখানেই হাতাহাতি শুরু হয়। বন্ধ করে দেওয়া হয় সব শো। তারপর দিন দুয়েক কাটতে না কাটতেই ঘটে আরেক বিপত্তি। ভাইরাল হয় আরেক ভিডিও। যেখানে এক জিৎ-ভক্তকে দেখা গিয়েছে দেবের ছবিতে লাথির মারতে। এমনকী, বাচ্চা ছেলেদেরও ইন্ধন যোগানো হচ্ছে দেবের ছবিতে লাথি মারার জন্য। সেই ভিডিওটি টুইট করে প্রতিবাদ জানান রুক্মিণী মৈত্র। তাঁর মতে, আমাদের মানবতা বোধ কোথায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে আজ। আমরা ভদ্রতা, সভ্যতা ভুলে যাচ্ছি। দয়া করে বাচ্চাদের ইন্ধন জোগাবেন না। নতুবা ভবিষ্যতে আমাদের সমাজ এবং দেশ অন্ধকারের দিকে এগোবে।

[আরও পড়ুন: অরিন্দমের মিতিন মাসি কোয়েল, পরমের বাজি অর্পিতা!]

সূত্রের খবর, বছর দুয়েক আগেই নাকি দুই সুপারস্টারের মধ্যে চুক্তি হয়েছিল একজনের ছবি ইদে মুক্তি পাবে তো অন্যজনের ছবি পুজোয়। হিসেব মাফিক গতবছর পুজোয় মুক্তি পেয়েছিল দেবের ‘হইচই আনলিমিটেড’ এবং অন্যদিকে ইদে মুক্তি পেয়েছিল ‘সুলতান-দ্য সেভিয়ার’। কিন্তু, এবছর কে চুক্তি লঙ্ঘন করল তা জানা যায়নি।

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement