BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ১ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ঐন্দ্রিলার অসুস্থতা সংক্রান্ত যাবতীয় পোস্ট ডিলিট করলেন সব্যসাচী, কিন্তু কেন?

Published by: Suparna Majumder |    Posted: November 19, 2022 9:05 pm|    Updated: November 19, 2022 9:31 pm

Sabyasachi Chowdhury deleted all his November FB post regarding Aindrila Sharma | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আচমকা ফেসবুক থেকে ঐন্দ্রিলা শর্মার (Aindrila Sharma) অসুস্থতা সংক্রান্ত যাবতীয় পোস্ট ডিলিট করে দিলেন সব্যসাচী চৌধুরী (Sabyasachi Chowdhury)। আর তাতেই সৃষ্টি হয়েছে তীব্র চাঞ্চল্য। কেন এমন কাজ করলেন অভিনেতা? সেই প্রশ্নে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া।

Aindrila-Sabyasachi

নভেম্বরে মাসের শুরুতে ব্রেনস্ট্রোকে আক্রান্ত হন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা। হাওড়ার বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয় তাঁকে। অস্ত্রোপচারের পর থেকেই ভেন্টিলেশনে অভিনেত্রী। তাঁর ছায়াসঙ্গী হয়ে রয়েছেন সব্যসাচী। ঐন্দ্রিলার শারীরিক অবস্থা সংক্রান্ত নানা খবর তিনি বিভিন্ন সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন। কখনও নেতিবাচক খবর ছড়ানো বন্ধ করার কথা লিখেছেন। কখনও আবার জানান, যেভাবে নিজের হাতে করে ঐন্দ্রিলাকে হাসপাতালে নিয়ে এসেছিলেন, সেভাবেই তাঁকে আবার ফিরিয়ে নিয়ে আসবেন।

[আরও পড়ুন: হাসিও পায় না, নেই বার্তাও, রীতেশ-জেনেলিয়ার ‘মিস্টার মাম্মি’ দেখার মতো নয়! পড়ুন রিভিউ]

গতকাল অর্থাৎ শুক্রবারও হৃদরোগে আক্রান্ত ঐন্দ্রিলার দুরন্ত লড়াইয়ের কথা জানিয়েছিলেন সব্যসাচী। সেসব কিছুই এখন আর তাঁর প্রোফাইলে নেই। আছে শুধু ৩১ অক্টোবরের পোস্ট। যাতে অভিনেতাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে। কিন্তু কেন এমন কাজ করলেন সব্যসাচী? তাহলে কি ঐন্দ্রিলার শারীরিক অবস্থা নিয়ে কোনও নতুন আশঙ্কা? নাকি ভুয়ো খবরে বিরক্ত হয়েই সমস্ত তথ্য ডিলিট করে দিলেন অভিনেতা? শুরু হয়েছে গুঞ্জন।

Sabyasachi-Chowdhury-post-delete

শুক্রবারের পোস্টে সব্যসাচী লিখেছিলেন, “মানুষের গায়ে আজকাল বড়ই শকুন শকুন গন্ধ পাই। গত দুইদিন ধরে হাসপাতালের নিচে বেশ ভিড় জমেছিল, ওর অবস্থার উন্নতি ঘটাতে কাল রাত থেকে একেবারে খাঁ খাঁ করছে।” তারপরে আবার ঐন্দ্রিলার দ্বিতীয়বার হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার খবর শোনা গিয়েছিল। যদিও হাসপাতালে জনসংযোগ আধিকারিকের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানা যায়, সে খবরটি ভুয়ো। তাহলে কি তাতেই বিরক্ত হয়ে এই পদক্ষেপ করেছেন সব্যসাচী? কারণ এখনও পর্যন্ত অজানা।

শনিবার পাওয়া খবর অনুযায়ী, ১০০ শতাংশ ভেন্টিলেশনে রয়েছেন ঐন্দ্রিলা। তাঁর রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে ইনোট্রোপেস দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও চলছে অ্যান্টিবায়োটিক। ঐন্দ্রিলার শরীরে গ্লাসগো কোমা স্কেলের মাত্রা ৫। এটি সংজ্ঞাহীনতার পরিমাপ। যা সুস্থ ও সাধারণ মানুষের ক্ষেত্রে ১৫ থাকে। তাঁর সুস্থতার প্রার্থনায় কেবল সব্যসাচীই নন, বিনোদন জগতের প্রতিনিধি থেকে সাধারণ মানুষও।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে