BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

গুরুতর অসুস্থ হয়ে ICU-তে সায়রা বানু, রয়েছে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা

Published by: Akash Misra |    Posted: September 1, 2021 2:47 pm|    Updated: September 1, 2021 3:15 pm

Saira Banu hospitalised | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গুরুতর অসুস্থ বলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেত্রী সায়রা বানু (Saira Banu)। জানা যায়, গত তিনদিন ধরে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। এরপরই সায়রাকে ভরতি করা হয় মুম্বইয়ের হিন্দুজা হাসপাতালে। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় বুধবার তাঁকে আইসিইউতে স্থানান্তরিত করা হয়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, অভিনেত্রীর শারীরিক অবস্থা সঙ্কটজনক।

গত ৭ জুলাই প্রয়াত হন সায়রা বানুর স্বামী বলিউডের কিংবদন্তি অভিনেতা দিলীপ কুমার (Dilip Kumar)। এতদিনের সঙ্গীকে ছেড়ে যাওয়াটাকে মেনে নিতে পারছেন না অভিনেত্রী। দিলীপ কুমারের মৃত্যুর পর থেকেই চরম নিঃসঙ্গতায় ভুগছিলেন সায়রা। ভুগছিলেন নানা শারীরিক ও মানসিক সমস্যাতেও।

 

[আরও পড়ুন: KBC 13: অমিতাভের সঙ্গে ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’ খেলার ‘শাস্তি’! মাইনে বাড়বে না রেলকর্মীর]

দিলীপ কুমারের থেকে বয়সে ২২ বছরের ছোট ছিলেন সায়রা বানু। বয়সকে এক পাশে সরিয়ে দিলীপ কুমারকে চুপি চুপি মনও দিয়ে ফেলেছিলেন সায়রা। তবে দিলীপ সাহাব একেবারেই সেটা টের পাননি প্রথমে। ততদিনে শাম্মি কাপুরের বিপরীতে বলিউডে পা দিয়ে ফেলেছেন সায়রা। তাঁর মিষ্টি চেহারা নিয়ে বলিউডে সেই সময় নানা কথা। দিলীপ কুমারেও চোখ এড়িয়ে যায়নি। সায়রার মিষ্টি স্বভাবে অল্প হলেও মন মজেছিল দিলীপ কুমারের। শোনা যায়, প্রথম দেখাতে নাকি সায়রার ভূয়সী প্রশংসা করেছিলেন দিলীপ। আর তা শুনে সায়রা একেবারেই লজ্জায় লাল। সেই প্রথম আলাপের পরেই প্রেমের সূত্রপাত।

১৯৬৬ সালের ১১ অক্টোবর সায়রার সঙ্গে বিয়ে করেন দিলীপ কুমার। তখন সায়রার বয়স ২২, দিলীপ কুমারের ৪৪। দিলীপ কুমার তাঁর বায়োগ্রাফিতে লিখেছিলেন, সায়রার গর্ভে এসেছিল সন্তান। তবে সন্তানধারনের পর সায়রা অসুস্থ হয়ে পড়েন। চিকিৎসক বাঁচাতে পারেনি দিলীপ-সায়রার সন্তানকে। ঠিক এই ঘটনার পরেই দিলীপ কুমার ১৯৮১ সালে ফের বিয়ে করেন। যা কিনা টিকে ছিল মাত্র দু’বছর। প্রেমের টানে ফের সায়রার কাছেই ফিরে আসেন তিনি। বায়োগ্রাফিতে দিলীপ সাহাব জানিয়েছেন, দ্বিতীয় বিয়ের সিদ্ধান্ত আমার জীবনের সবচেয়ে বড় ভুল ছিল।

অন্যদিকে, দিলীপের সংসারে মন দিতেই নিজের কেরিয়ারকে ছেড়ে ছিলেন সায়রা। দিলীপ সাহাবকেই জীবনের মূলমন্ত্র করেছিলেন তিনি। হঠাৎ করে স্বামী ছেড়ে যাওয়ায় ভেঙেও পড়েছিলেন সায়রা। তবে দিলীপের প্রতি ভালবাসা একটুও কমেনি। বরং দিলীপ সাহাবের কথা উঠলেই সায়রা বলতেন দিলীপ কুমার আমার কাছে কোহিনুর। যার প্রেমে সারাজীবন আবদ্ধ থাকব!

[আরও পড়ুন: Raj Kundra Case: সন্তানদের সঙ্গে নিয়ে স্বামীর ঘর ছাড়ছেন Shilpa Shetty!]

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে