৪ মাঘ  ১৪২৫  শনিবার ১৯ জানুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফিরে দেখা ২০১৮ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চম্বল মানেই ডাকাতদের আস্তানা। সেখানে যেকোনও মুহূর্তে চলতে পারে গুলি। কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই শরীর এফোঁড়-ওফোঁড় করে দেয় তপ্ত বুলেট। ভয়ঙ্কর চম্বলের সেই গল্পই এবার উঠে আসছে বড়পর্দায়। ছবির নাম ‘সোনচিড়িয়া’। মুক্তি পেয়েছে সেই ছবির ট্রেলার।

ঘটনার পটভূমি ১৯৭৫ সাল। দেশে তখন চলছে জরুরি অবস্থা। চম্বলেও তার আঁচ পড়েছে। চম্বলের ডাকাতদের ধ্বংস করতে উঠেপড়ে লাগে পুলিশ। কিন্তু জঙ্গলে ডাকাতদের এলাকা। পুলিশ বাইরে থেকে উড়ে এসে তাদের বেড়ি পরিয়ে নিয়ে যাবে, তা কি হয়? অতএব, শুরু হল লড়াই। তবে এই লড়াইয়ের অনেকগুলো ধাপ আছে। কখনও পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় ডাকাতরা, কখনও নিজেদের মধ্যেই গুলি চালাচালি করে। নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে মরিয়া তারা। সেই গল্পই উঠে আসবে ‘সোনচিড়িয়া’-এ।

লালবাহাদুর শাস্ত্রীর মৃত্যুরহস্যের পর্দাফাঁস! আসছে ‘দ্য তাসখন্দ ফাইলস’  ]

তবে শুধু চম্বল দস্যুদের জীবনযাপনের গল্প নিয়ে ছবিটি তৈরি করেননি পরিচালক অভিষেক চৌবে।  চম্বলের ডাকাতের সঙ্গে পুলিশের সম্পর্ক খুব স্বাভাবিকভাবেই আদায়-কাঁচকলায়। কিন্তু অনেকসময় এই ‘অপরাধী’ তকমা গায়ে লাগিয়ে দস্যুদের অকারণেই তুলোধনা করে পুলিশ। নিজেদের ব্যক্তিগত আক্রোশ মেটায়। আবার দস্যুদের মধ্যেও মধ্যেও আত্মসমর্পণের হিড়িক ওঠে। সেই আত্মসমর্পণ কতটা সুখকর? আর পরিবারের সম্মান রক্ষার্থে নিজেদের মধ্যে যদি শত্রুতা তৈরি হয়, তাহলে?

এমনই নানা সমস্যার কথা উঠে এসেছে ‘সোনচিড়িয়া’-এ। ছবিতে অভিনয় করেছেন সুশান্ত সিং রাজপুত, মনোজ বাজপেয়ী, রণবীর শোরে, ভূমি পেডনেকর, আশুতোষ রানা। সবাই অভিনয়ে দক্ষ। ছবির ট্রেলারে তা স্পষ্টভাবে ফুটে উঠেছে। কিন্তু আলাদা করে নজর কেড়েছেন আশুতোষ রানা। তিনি এখানে নেগেটিভ চরিত্রে অভিনয় করেছেন। তাঁর অভিনয় দেখে ‘সংঘর্ষ’ ছবির কথা মনে আসতে পারে। ২০১২ সালে ‘পান সিং তোমর’ মুক্তি নাড়া দিয়েছিল দর্শকদের। ‘সোনচিড়িয়া’-ও তার ব্যতিক্রম হবে না। ৮ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাবে ‘সোনচিড়িয়া’।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং