BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৪ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

NCB’র জিজ্ঞাসাবাদে ‘ড্রাগ চ্যাটে’র কথা স্বীকার দীপিকার! বিস্ফোরক তথ্য দিলেন শ্রদ্ধা কাপুরও

Published by: Suparna Majumder |    Posted: September 26, 2020 3:44 pm|    Updated: October 1, 2020 3:59 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হোয়াটসঅ্যাপে (WhatsApp) ম্যানেজার করিশ্মা প্রকাশের সঙ্গে মাদক সংক্রান্ত চ্যাট করেছেন। নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর আধিকারিকদের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে নাকি একথা স্বীকার করে নিয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন (Deepika Padukone)। স্বীকার করেছেন জয়া সাহা (Jaya Saha) এবং করিশ্মার (Karishma Prakash) সঙ্গে গ্রুপ চ্যাটের কথাও। খবর রটেছিল, হোয়াটসঅ্যাপের ওই গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন দীপিকা। সেখানেই তিনি ‘মাল’-এর খোঁজ করেছিলেন। দীপিকার মোবাইল বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে বলেও খবর। শোনা গিয়েছে, সমস্ত প্রশ্নের উত্তর খুব ধীর গতিতে ভেবে চিন্তে দিয়েছেন দীপিকা। আগে থেকেই নিজের আইনি টিমের সঙ্গে আলোচনা সেরে এসেছিলেন। সেই মতো উত্তর দিয়েছেন ভেবেচিন্তে। টানা ছ’ঘণ্টার জিজ্ঞাসাবাদের পর NCB অফিস ত্যাগ করেন অভিনেত্রী। 

 

সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput) অভিনীত ‘ছিছোরে’র (Chhichhore) নায়িকা ছিলেন শ্রদ্ধা কাপুর (Shraddha Kapoor)। তিনিও শনিবার NCB দপ্তরে হাজির হয়েছেন। জিজ্ঞাসাবাদের মুখে নাকি সুশান্তের সঙ্গে পার্টি করার কথা স্বীকার করেছেন শ্রদ্ধা। এমনকী সুশান্তকে নাকি তিনি ভ্যানিটি ভ্যানে মাদক নিতেও দেখেছিলেন। কিন্তু নিজে কোনওদিন মাদক নেননি বা মাদক পাচারের সঙ্গে তাঁর কোনও সম্পর্ক নেই বলেই জানিয়েছেন শ্রদ্ধা। তবে শ্রদ্ধার উত্তরে NCB আধিকারিকরা সন্তুষ্ট নন।

[আরও পড়ুন: দীপিকার পরই মিডিয়ার চোখ এড়িয়ে NCB দপ্তরে শ্রদ্ধা-সারা, জিজ্ঞাসাবাদে ৫ সদস্যের টিম]

সুশান্তের সঙ্গে সারা আলি খানের (Sara Ali Khan) সম্পর্ক নিয়েও বিস্তর গুঞ্জন শোনা গিয়েছে। ‘কেদারনাথ’ ছবির সময় থেকেই নাকি দু’জনের প্রেম শুরু হয়েছিল। সুশান্ত ও তাঁর বন্ধুদের সঙ্গে নাকি ব্যাংককে দিয়ে সময়ও কাটিয়েছিলেন সারা। সেই বিষয়েও সইফকন্যাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে খবর। শুক্রবারই মাদক প্রসঙ্গে রকুলপ্রীত সিংকে (Rakul Preet Singh) জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল NCB। শোনা গিয়েছে, রিয়ার (Rhea Chakraborty) জন্য মাদক রাখার কথা নাকি স্বীকার করেছেন রকুল। তবে অভিনেত্রী দাবি করেছেন, এক বছর আগেই নাকি রিয়ার সঙ্গে তাঁর সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে গিয়েছে। ‘ড্রাগ চ্যাট’-এ উল্লেখিত ‘ডুব’ বা ‘ডুবি’ প্রসঙ্গের কথাও জানিয়েছেন রকুল। অভিনেত্রীর দাবি, রোল করা সিগারেটের ক্ষেত্রে এই কথা ব্যবহার করা হত। তবে নেটদুনিয়ার একাংশের দাবি এটি মাদক মিশ্রিত সিগারেটের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়।

এরই মধ্যে টানা দু’দিনের জিজ্ঞাসাবাদের পর করণ জোহরের ধর্মা প্রোডাকশনের প্রাক্তন এক্সিকিউটিভ প্রোডিউসার ক্ষীতিশ রবি প্রসাদকে গ্রেপ্তার করেছে NCB। ধর্মার সহকারী পরিচালক অনুভব চোপড়াকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল। এবার কি তাহলে করণের পালা? এই প্রশ্নই উঠছে বিভিন্ন মহলে। এই পরিস্থিতিতেই আবার করণ আগেভাগেই ঘোষণা করে দিয়েছেন, তিনি মাদক সেবন করেন না, আবার সমর্থনও করেন না। এমনকী অনুভব এবং ক্ষীতিশের সঙ্গে তাঁর ব্যক্তিগত সম্পর্ক নেই বলেও দাবি করেছেন।

 

[আরও পড়ুন: ‘মাদক সেবনকে সমর্থন করি না’, অভিযোগ উঠতেই সাফাই করণ জোহরের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement