BREAKING NEWS

১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সুশান্তের শেষকৃত্যে না ডাকার জের, ‘ক্ষমতাশালী’ ব্যক্তিদের থেকে হুমকি পেলেন বন্ধু সন্দীপ!

Published by: Bishakha Pal |    Posted: June 26, 2020 4:53 pm|    Updated: June 26, 2020 11:14 pm

Sushant Singh Rajput’s friend Sandip got messages from powerful people

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) প্রয়াণের পর থেকে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসছে। তাঁর ঘনিষ্ঠ বন্ধু প্রযোজক সন্দীপ সিং সম্প্রতি এমনই আরও একটি তথ্য সামনে আনলেন। জানালেন অভিনেতার আত্মহত্যার পর একাধিক ‘ক্ষমতাশীল ব্যক্তি’র থেকে মেসেজ পেয়েছেন তিনি। তাঁদের সুশান্তের শেষকৃত্যে নিমন্ত্রণ না করার জন্য সন্দীপকে নাকি হুমকিও দিয়েছেন তাঁরা।

সুশান্ত যে অবসাদে ভুগছিলেন, তা তাঁর আত্মহত্যার পরই জানিয়েছিল পুলিশ। অভিনেতার বাড়ি থেকে ডিপ্রেশনের ওষুধও পাওয়া যায়। এরপরই উঠে আসে নানা তথ্য। জানান যায়, বলিউডে স্বজনপোষণের শিকার হয়েছিলেন সুশান্ত। একটি সাক্ষাৎকারে সন্দীপ বলেন, “লোকেরা তাঁর মৃত্যু নিয়ে নাটক করত। সুশান্ত এসব পছন্দ করতেন না।” এরপরই বোমা ফাটান সন্দীপ। বলেন, সুশান্তের শেষকৃত্য সেরে তিনি যখন বাড়ি ফিরে স্নানে যাচ্ছিলেন, তাঁক কাছে কয়েকটি ফোন আসে। কয়েকটি মেসেজও পান তিনি। আমাকে বলা হয়, আমি কেন তাঁদের শেষকৃত্যে আমন্ত্রণ জানাইনি? আমাকে লেখা হয়েছিল, ‘আমরা ক্ষমতাশালী। আর আপনি আমাদেরই আমন্ত্রণ জানালেন না!’ এইসব মানুষের মনে কী চলে?” বলেন সন্দীপ।

[ আরও পড়ুন: ‘দেশের সিংহভাগ মানুষই তো শ্যামলা, ফর্সা করার মিথ্যে স্বপ্ন দেখায় কী করে?’ বিস্ফোরক বিপাশা ]

তিনি আরও বলেন, সুশান্তের অবসাদের কারণ নিয়ে যে বিতর্ক তৈরি হয়েছে, সেখানে একতা কাপুরকে টানা হচ্ছে। কিন্তু উনি শেষকৃত্যের দিন নিজের ইচ্ছেতেই এসেছিলেন। সন্দীপ আরও জানান, “শ্রদ্ধা কাপুর, রণদীপ হুডার মতো মানুষ সেদিন সেখানে এসেছিলেন। বৃষ্টিতে দাঁড়িয়ে কাঁদছিলেন। ওঁদের শেষকৃত্যের জন্য নিমন্ত্রণের দরকার নেই। সুশান্তের মৃত্যুর চেয়ে এই সব লোকেরা তাঁকে নিয়ে যা করছে, তাতে আমি আরও বেশি আঘাত পেয়েছি।” শুধু তাই নয়। তাঁর আত্মহত্যার পর ফ্যানে ও মিডিয়ার প্রতিক্রিয়া নিয়েও অসন্তুষ্ট সন্দীপ। তিনি জানিয়েছেন, নিশ্চয়ই সুশান্তকে সবাই ভালবাসে। এটা আবেগ। কিন্তু এটা কাউকে দোষারোপ করার সময় নয়। সুশান্তের পরিবারের কথা কেউ ভাবছে না। সবাই বলছে সে ৭টি ছবি হারিয়েছিল। তাঁর ব্যক্তিগত সম্পর্ক ভাল ছিল না। তাঁর কাছে টাকা ছিল না। কিন্তু এগুলি সবই অনুমান।

[ আরও পড়ুন: ‘জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে চুপ কেন?’ পুরনো টুইট তুলে অমিতাভকে সরব হওয়ার আবেদন মন্ত্রীর ]

সুশান্তের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে আসার পর মুম্বই পুলিশ নিশ্চিত যে আত্মহত্যাই করেছেন অভিনেতা। কিন্তু তদন্ত এখনও চলছে। তাঁর মৃত্যুর পর বেশ কয়েকটি তথ্য সামনে আসে। জানা যায় অবসাদের শিকার হয়েছিলেন অভিনেতা। তাঁর বাড়ি থেকে ডিপ্রেশনের ওষুধও পাওয়া যায়। আত্মহত্যার তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ দেখে তাঁর শেষ টুইটি করা হয়েছিল ২৭ ডিসেম্বর। তাহলে তারপর থেকে কি সুশান্ত কোনও টুইট করেননি? নাকি সেগুলো মুছে দেওয়া হয়েছে? তা জানতে টুইটারকে চিঠি লিখবে মুম্বই পুলিশ। এছাড়া খতিয়ে দেখা হবে তাঁর ইনস্টাগ্রামও।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে