১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  সোমবার ৩ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘জ্যেষ্ঠপুত্র’-র ভাবনা বাস্তবের কতটা কাছাকাছি, খোলসা করলেন প্রসেনজিৎ

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 11, 2019 9:57 pm|    Updated: April 11, 2019 9:57 pm

The official trailer of new movie Jyeshthoputro is released

বিশাখা পাল: কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের ছবি মানেই নতুন কিছু। কখনও একেবারে নতুন বিষয় তাঁর ছবিতে উঠে আসে, কখনও আবার নিতান্ত সাধারণ ঘটনাকে নতুন আঙ্গিকে সেলুলয়েডে তুলে আনেন তিনি। কিন্তু ‘জ্যেষ্ঠপুত্র’ তাঁর অন্য ছবিগুলি থেকে একটু হলেও আলাদা। কারণ এই ছবির সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে ঋতুপর্ণ ঘোষের নাম। ছবির ভাবনাটা যে তাঁরই। তবে ভাবনা ঋতুপর্ণের মন থেকে আসেনি। একটি সত্যি ঘটনা তাঁকে ভিতর থেকে নাড়িয়ে দিয়েছিল। সেটাই সেলুলয়েডে তুলে ধরতে তুলে ধরতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তা করে উঠতে পারেননি তিনি। ঋতুপর্ণের সেই অপূর্ণ কাজ পূর্ণ করেন কৌশিক। ছবির ট্রেলার লঞ্চের দিন উঠে এস সেইসব কথা।

মুক্তি পেয়েছে ‘জ্যেষ্ঠপুত্র’ ছবির ট্রেলার। মুক্তির দিন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় খোলসা করলেন বন্ধু ঋতুপর্ণর সেই ভাবনার গল্প। বললেন, তাঁর মা যখন মারা যান তারপর যেসব ঘটনা ঘটেছিল, তার উপর ভিত্তি করেই ‘জ্যেষ্ঠপুত্র’-র কথা মাথায় আসে ঋতুপর্ণর। কারণ প্রসেনজিতের মা মারা যাওয়ার ঘটনা তিনি খুব সামনে থেকে প্রত্যক্ষ করেছিলেন। এই ঘটনার সাত-আটদিন পরে ঋতুপর্ণ বলেছিলেন, যাঁরা স্টার হন, তাঁদের আসলে দু’টো সত্ত্বা থাকে। একটি অবশ্যই সুপারস্টারের, আর একটা বাড়ির ছেলের। কী’করে একটা শ্রাদ্ধ বাড়িতে এই মানুষদের দু’টো ভূমিকাতেই সাবলীল থাকতে হয়, তা সেই সময় বুঝেছিলেন প্রসেনজিৎ। আর তা প্রত্যক্ষ করেছিলেন ঋতুপর্ণ।

[ আরও পড়ুন: শ্রমিকদের জীবনের সমস্যা নিয়ে আসছে তরুণ মজুমদারের ‘অধিকার’ ]

প্রসেনজিৎ সুপারস্টার। তাঁর অনুরাগী প্রচুর। ফলে সাংবাদিকদের দর্শক বা পাঠকদের চাহিদামতো প্রসেনজিতের মায়ের সঙ্গে ছবি দরকার। কাগজে ছাপতে হবে বা  টেলিভিশনে দেখাতে হবে। তাই পাঠক ও দর্শকের কথা মাথায় রেখে নেহাত পেশার খাতিরেই প্রসেনজিৎকে অনুরোধ করেছিলেন, মায়ের ছবির সামনে বসে পোজ দিতে। সেদিন রাগ করেননি প্রসেনজিৎ। পোজ দিয়েছিলেন। কিন্তু সেইসঙ্গে বুঝেছিলেন তাঁর দু’টি সত্ত্বা রয়েছে। একটি যেমন বাড়ির ছেলের, অন্যটি সুপারস্টারের।

এই গল্পই মনে গেঁথে গিয়েছিল ঋতুপর্ণের। সেখান থেকেই জন্ম নেয় ‘জ্যেষ্ঠপুত্র’। ট্রেলারেও তার আঁচ পাওয়া গিয়েছে। এখানেও বাড়ির বড় ছেলের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন প্রসেনজিৎ। এখানেও তিনি সুপারস্টার। বাবা মারা যাওয়ার পরও সেই ইমেজ থেকে বের হতে পারেন না তিনি। আর অন্যদিকে বাড়ির ছোট ছেলের ভূমিকায় রয়েছেন ঋত্বিক চক্রবর্তী। চরিত্রটি তাঁর আবেগময় এক বাঙালি বাড়ির ছেলের। বড় দাদার প্রতি তাঁর ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ দেখা গিয়েছে ট্রেলারে।

বুধবার প্রকাশ্যে আসে ছবির ট্রেলার। প্রসেনজিৎ ও ঋত্বিক ছাড়া ছবিতে অভিনয় করেছেন সুদীপ্তা চক্রবর্তী ও গার্গী রায়চৌধুরী। ২৬ এপ্রিল মুক্তি পাবে ছবিটি।

[ আরও পড়ুন: ‘ভবিষ্যতের ভূত’ ইস্যুতে সুপ্রিম রায়ে উচ্ছ্বসিত কৌশিক সেন ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে