BREAKING NEWS

১৯ শ্রাবণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৫ আগস্ট ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সোশ্যাল মিডিয়ায় শিশুদের অশ্লীল ছবি-ভিডিও শেয়ার নয়, আবেদন টলিউড অভিনেতাদের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 22, 2021 10:43 am|    Updated: June 22, 2021 10:43 am

Tollywood artists ask people not to share offensive content on social media | Sangbad Pratidin

স্টাফ রিপোর্টার: সামাজিক মাধ্যমে শিশুদের অশ্লীল ছবি-ভিডিও (Child Pornography) দেখলেই স্বাভাবিক প্রবণতায় তা শেয়ার করে থাকে মানুষ। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ক্ষোভ বা দুঃখ প্রকাশের উদ্দেশ্যে শেয়ার, কমেন্ট, লাইক বা পুনরায় শেয়ার করা হয়। তাতে আসলে শিশুটিরই ক্ষতি হয়। তাই শিশুদের অশ্লীল ছবি বা শিশু নির্যাতনের বিষয়বস্তু শেয়ার না করে রিপোর্ট করার আবেদন জানালেন অভিনেতা প্রসেনজিৎ, জিৎ (Jeet), ঋতাভরী, কোয়েল, আবির-সহ টলিউডের (Tollywood) অন্যান্য অভিনেতা।

‘রিপোর্ট করুন, শেয়ার নয়’। অনলাইন মাধ্যমে শিশুদের সুরক্ষিত রাখতে আরম্ভ ইন্ডিয়া, সাইবার পিস ফাউন্ডেশন এবং অর্পণ-এর সঙ্গে মিলে এই নতুন উদ্যোগ নিয়েছে ফেসবুক (Facebook)। সম্প্রতি শিশু নির্যাতনের বিষয়বস্তু প্রচারে বাচ্চাদের উপর যে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে সে বিষয়ে একটি অ্যানিমেটেড ভিডিও প্রকাশের মাধ্যমে উদ্যোগের সূচনা করে ফেসবুক। অনলাইনে এই ধরনের বিষয়বস্তু দেখলে মানুষের কী করণীয়, সেই সম্পর্কে নিজস্ব মতামত-সহ ভিডিওটি সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করেন অভিনেতারা।

[আরও পড়ুন: নাতনির খাবার জোগাতে রাস্তায় ভায়োলিন নিয়ে বৃদ্ধ, সাহায্যের আশ্বাস বিধায়ক রাজের]

অভিনেতা জিতের (Jeet) কথায়, “প্রতিদিনই শিশু নির্যাতনের ভিডিও, ছবি সামাজিক মাধ্যমে প্রচারিত হচ্ছে। বেশিরভাগ সময়ই মানুষ রাগ, ভয় এবং দুঃখে এগুলিকে পুনরায় শেয়ার করেন। কিন্তু, এই ধরনের পোস্টে লাইক, কমেন্ট বা শেয়ার করলে বাচ্চাদের আরও বেশি ক্ষতি হয়। যদি অনলাইনে এই সমস্যা দেখতে পান তাহলে শেয়ার না করে সঙ্গে সঙ্গে রিপোর্ট করুন।” আবির চট্টোপাধ্যায়, কোয়েল মল্লিক (Koel Mallick), ঋতাভরী চক্রবর্তী, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prasenjit Chatterjee)-সহ অনেকে এই একই আবেদন জানিয়েছেন।

[আরও পড়ুন: হারমোনিয়াম বাজিয়ে গান গাইছেন অর্পিতা চট্টোপাধ্যায়, ব্যাপারটা কী?]

ফেসবুক ইন্ডিয়ার পলিসি প্রোগ্রামস অ্যান্ড আউটরিচ-এর প্রধান মাধু সিরোহি বলেন, “আমরা ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে সুরক্ষিত এবং সহায়ক পরিবেশ গড়ে তুলতে চাই। মানুষ দেখার আগেই এই ধরনের বিষয়বস্তুগুলি সরিয়ে ফেলতে মানবসম্পদ ও প্রযুক্তির উপর ভারী বিনিয়োগের সঙ্গে আমাদের প্ল্যাটফর্মে শিশু নির্যাতনের বিষয়বস্তু দেখলে উপযুক্ত আচরণ সম্পর্কে মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে চাই।” সম্প্রতি শিশু সুরক্ষা নীতিতেও (Child Security Policy) বদল এনেছে ফেসবুক। নীতিতে স্পষ্টভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, কোনওরকম বিধি লঙ্ঘন করলে ফেসবুক প্রোফাইল, পেজ, গ্রুপ এবং ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট সরিয়ে দেওয়া হবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement