BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

EXCLUSIVE: দিলীপ ঘোষের ‘রগড়ে দেব’ মন্তব্যের মোক্ষম জবাব দিলেন অনির্বাণ

Published by: Suparna Majumder |    Posted: April 8, 2021 7:48 pm|    Updated: April 8, 2021 8:06 pm

WB Polls 2021: EXCLUSIVE interview of Anirban Bhattacharya, Tollywood actor slams Dilip Ghosh's 'Rogre Debo' remark | Sangbad Pratidin

গৌতম ভট্টাচার্য: ‘নিজেদের মতে, নিজেদের গান’ গেয়েছেন অনেকে। মিউজিক ভিডিওয় অংশীদার হয়েছেন আরও অনেকে। তবে গানটি লিখেছেন অনির্বাণ ভট্টাচার্য (Anirban Bhattacharya)। তাঁর কলমের জোরেই রাজ্য-রাজনীতিতে ছড়িয়ে পড়েছে “আমি অন্য কোথাও যাব না, আমি এই দেশেতেই থাকব” লাইনটি। যা শুনে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh) আবার সংবাদ প্রতিদিন ফেসবুক লাইভে বলেছিলেন শিল্পীরা রাজনীতি করতে এলে তিনি ‘রগড়ে’ দেবেন। সংবাদ প্রতিদিন ফেসবুক লাইভেই তাঁর জবাব দিলেন অনির্বাণ।

দিলীপ ঘোষের ‘রগড়ে দেব’ মন্তব্যে কি ভয় পেলেন? প্রশ্নের উত্তরে হেসে ওঠেন অনির্বাণ। জানান ভয় তিনি পাননি। এরপরই অভিনেতা বলেন, “রগড়ে যদি দেন, রগড়ে দেবেন, কী আর করা যাবে? অভিনেতাদের সত্যিই রগড়ে দেওয়া যায়। কারণ অভিনেতাদের তো সেই অর্থে কোনও রেজিমেন্টেশন নেই, এই নেই, সেই নেই। আমরা এভাবেই ঘুরে বেড়াই। এখন আমরা একটা কথা বলি তার জন্য যদি আমাদের পরিণতিতে থাকে রগড়ে যাওয়া। তাহলে রগড়ে যেতে হবে কী করা যাবে?”

[আরও পড়ুন: ‘সাম্প্রদায়িক উসকানির চেষ্টা করছে বিজেপি’, বাবুল-রুদ্রনীলদের গানে আপত্তি তৃণমূলের]

অবশ্য দিলীপ ঘোষের স্পষ্টবাদিতার প্রশংসাও করেন অনির্বাণ। নির্বাচনী আবহে অনেক তারকাই নিজেদের রাজনৈতিক রং বেছে নিয়েছেন। তবে অনির্বাণ কোনও রাজনৈতিক রং বাছতে নারাজ। এমনকী নিজেকে বামপন্থী বলতেও নারাজ অনির্বাণ। তাঁর মতে, সমাজ থেকেই অভিনয় কিংবা লেখার রসদ খুঁজে নেন শিল্পী। তাই সমাজের কাহিনি তাঁর সৃষ্টিতে প্রতিফলিত হবে। তাই রাজনীতিবিদদের পাশাপাশি শিল্পীদেরও সমাজের পরিস্থিতি নিয়ে বলার অধিকার থাকে বলে মত তারকার।

অনির্বাণদের গানের জবাব দিয়ে তৈরি বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo), রুদ্রনীল ঘোষদের (Rudranil Ghosh) মিউজিক ভিডিও। যাতে বলা হয় ‘তুমি অন্য কোথাও যেও না, তুমি এই দেশেতেই থাকো।’ গানটি শুনেছেন অনির্বাণ। তবে তাঁর তেমন ভাল লাগেনি। মনে হয়েছে সৃষ্টিশীলতার দিক থেকে আরও একটু ভাল হতে পারত। আরও একটি জিনিস ভাল লাগে না অভিনেতার। রাজনৈতিক প্রভাবে টলিউডের বিভাজন। তাঁর মনে টলিউডের মতো আঞ্চলিক ইন্ডাস্ট্রির একজোট হয়ে থাকা উচিত ছিল। ২ মে অনেকেরই অনেক আশা থাকবে। অনির্বাণের কী আশা থাকবে? প্রশ্নের উত্তরে অভিনেতা জানান, ঘৃণার বদলে ভালবাসার জয় চান তিনি। তবে এ লড়াই কোনও নির্দিষ্ট দিনের নয় বলেই মত অভিনেতা। এ লড়াই চলতে থাকবে বলেই মনে করেন অভিনেতা। তাই সাক্ষাৎকারের শেষ প্রান্তে তাঁর কণ্ঠে উঠে এল ভালবাসার চেনা গানটি। দেখুন ভিডিও – 

[আরও পড়ুন: ‘ওঁর মতো নেতা সবদলেই প্রয়োজন’, বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যর প্রশংসা বিজেপির রূপাঞ্জনা মিত্রর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে