BREAKING NEWS

১৯  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৫ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মৃত্যুর আগে নিজের যাবতীয় সম্পত্তি সঞ্জয় দত্তকে দিয়ে গেলেন অনুরাগী

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 7, 2018 5:19 pm|    Updated: March 7, 2018 5:19 pm

Deceased fan leaves all her money for Sanjay Dutt

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গাড়ির পিছনে তাড়া করা। একবার ছুঁতে চেষ্টা করা। আদব-কায়দা নকল করা। চুপিসারে প্রিয় তারকার বাড়িতে ঢুকতে গিয়ে পুলিশের লাঠির ঘা খাওয়া। এমন কত কাণ্ডই না ফ্যানেরা ঘটিয়ে থাকেন। সবই করে থাকেন ভালবাসার খাতিরে। যে ভালবাসা এক অনাত্মীয়র জন্য সারা জীবন মনের মধ্যে পোষণ করেন তাঁরা। এমনই এক ভালবাসা নমুনা পেলেন সঞ্জয় দত্ত

ফ্যানের মৃত্যুর পর তাঁর এই ভালবাসার এক অন্য রূপ দেখতে পেলেন বলিউড তারকা। ৬২ বছরের নিশা ত্রিপাঠি ছিলেন মুম্বইয়ের মালাবার হিল এলাকার বাসিন্দা। দীর্ঘ রোগভোগের পর  জানুয়ারি মাসের ১৫ তারিখ তাঁর মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পর আইনজীবী যখন তাঁর উইল পরিবারের সদস্যদের সামনে শোনান, জানা যায় নিজের স্থাবর-অস্থাবর সমস্ত সম্পত্তি নিজের প্রিয় তারকাকেই দিয়ে গিয়েছেন বৃদ্ধা। নিজের বসতবাড়িটি তো বটেই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে গচ্ছিত অর্থও তিনি সঞ্জয় দত্তের নামে লিখে গিয়েছেন। উকিলের চিঠিও ইতিমধ্যেই সঞ্জয়ের পালি হিলের বাংলোতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

[ব্রেন ক্যানসারে ভুগছেন ইরফান! অভিনেতার অসুস্থতা নিয়ে বাড়ছে ধোঁয়াশা]

সঞ্জয়ের সঙ্গে যোগাযোগও করা হয়েছে। নায়কের আইনজীবী মারফত জানা গিয়েছে, নিজের ভক্তের ভালবাসার এ দানে অভিভূত তিনি। বহু বছর ধরে বলিউডে কাজ করছেন। ফ্যানের এমন অনেক ভালবাসাই পেয়েছেন। অনেকে তো তাঁর নামেই নিজের শিশুর নাম রেখে দেন। কিন্তু এ ভালবাসায় মুগ্ধ সঞ্জয়। যে নিশার নামও তিনি এর আগে জানতেন না, তিনি তাঁকে মৃত্যুর পরও সম্মান জানিয়ে গিয়েছেন। তবে মহিলার সম্পত্তির থেকে একটি পয়সাও নেবেন না সঞ্জু। আপাতত সাহেব ‘বিবি অউর গ্যাংস্টার থ্রি’-র শুটিংয়ের জন্য কলকাতায় রয়েছেন তারকা। সেখানেই এক সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, সমস্ত আইনি প্রক্রিয়া মেনে নিশার সম্পত্তি তাঁর পরিবার-আত্মীয়দের ফিরিয়ে দেবেন। রেখে দেবেন কেবল ভক্তের ভালবাসা।

[রাজের রানি হলেন শুভশ্রী, কী বললেন দেব-মিমিরা?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে