BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘ধর্মের শিকলে মানুষকে বেঁধো না’, ভাষা দিবসে মানবতার জয়গান অনুপম রায়ের

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: February 21, 2020 11:34 am|    Updated: September 7, 2020 4:53 pm

An Images

সন্দীপ্তা ভঞ্জ: “যদি ওরা তোমায় চিন্তে চেয়ে প্রশ্ন করে… বল তুমি কে? হাসি মুখে জবাব‌ দিও- ভাই সবার উপরে মানুষ সত্য, তাহার ওপরে নাই…” বর্তমান পরিস্থিতিতে যেখানে ধর্মীয় মেরুকরণের রাজনীতি চলছে, সেখানে মানবতার জয়গান গাইলেন অনুপম রায়। “নিজের পরিচয় নিজের ভাষায় খুঁজে নাও” ভাষা দিবসের আগের দিন গানের মধ্য দিয়ে এমনভাবেই একতা, সংহতির কথা বললেন।  

মনুষ্যত্বই হোক পরম ধর্ম। মানবতাই হোক আসল পরিচয়। হিন্দু-মুসলিম কিংবা কোনও কাঁটাতার নয়, দুনিয়াজুড়ে শ্রেষ্ঠ হোক শুধু একটাই পরিচয় যে আমরা মানুষ। বর্তমান পরিস্থিতিতে যখন নাগরিকত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠছে, ভিটে-মাটি নিয়ে সংশয় নাগরিকদের মনে, দীর্ঘকাল এই মাটিতে বাস করার পর প্রশ্ন উঠেছে, ‘তোমার পরিচয় কি?’ সেই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়েই মানবতার গান বাঁধলেন গায়ক।   

ধর্মান্ধতার গণ্ডিতে বেঁধে যখন মানুষে মানুষে বিভেদের সৃষ্টি করা হচ্ছে, তখন ধর্মীয় ধ্বজ্জাধারীদের ‘বিভাজন নীতি’কে নিজের ‘পরিচয়’-এর মধ্য দিয়েই চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন অনুপম। গানের প্রতিটা শব্দের মধ্য দিয়েই প্রতিবাদে শামিল হলেন- “যদি ওরা হিংসা বেঁচে খায়, উগ্রবাদের বিষ ঢালতে চায়/ যুক্তিবাদের তর্কে জিতে যাও/ ধর্মের শিকলে মানুষকে বেঁধো না/ ঘৃণার পতাকা উড়তে দিও না।” ধর্ম দিয়ে নয়, বরং মানুষের কাজই হোক মানুষের পরিচয়। হতে পারে সে পুলিশ-উকিল, শিক্ষক-চিকিৎসক কিংবা শিল্পী। তার কাজই হোক তার পরিচয়। মানবতার ধর্মই শ্রেষ্ঠ ধর্ম, গানের ছত্রে ছত্রে তা বুঝিয়ে দিলেন অনুপম। গানের নাম ‘পরিচয়’। 

[আরও পড়ুন: বাংলা ভাষা নিয়ে আজব প্রশ্ন এফএম চ্যানেলের, প্রতিবাদে গর্জে উঠলেন কবীর সুমন ]

দেশজুড়ে নাগরিকপঞ্জী আইন নিয়ে যেখানে প্রশ্ন উঠেছে। প্রশ্ন উঠেছে নাগরিকত্ব নিয়ে। পরিচয়পত্র নিয়ে। প্রতিবাদে উত্তাল হয়েছে গোটা দেশ। অনুপম কণ্ঠ ছাড়লেন, “হিন্দু কিংবা মুসলিম হতে চাই না, তা বলে বৌদ্ধ বা খ্রিষ্টানও হতেও চাই না।” রক্তারক্তি, সাম্প্রদায়িক হানাহানির জেরে ‘মনুষ্যত্ব’ কোথায় গিয়ে পৌঁছেছে আজ, সেই উদ্বেগ ঝরে পড়ল অনুপমের কণ্ঠে। যে গানের শব্দে শব্দে তিনি সরকার, প্রশাসনকে কটাক্ষ করেছেন। যদিও সোজাসুজি নয়, খানিক পরোক্ষভাবেই। গানের লিরিকসেই একতার কথা, সংহতির সুর। দেশে সৃষ্টি হওয়া নৈরাজ্য নিয়ে সরব হলেন অনুপম। তবে নিজস্ব ভঙ্গীতে। গানকেই বেছে নিলেন প্রতিবাদের ভাষা হিসেবে।

গানটি অনুপম লিখেছিলেন ২০০৮ সালে। কিন্তু সমাজের বর্তমান প্রেক্ষাপট তাঁকে এই গানটি ফেরাতে বাধ্য করেছে। ধর্মের বেড়াজালে আটকে যেখানে মানবধর্মই সন্দিহান, সেই ধর্মীয় মেরুকরণের রাজনীতিও ভাবিয়ে তুলেছে গায়ক অনুপম রায়ের মতো শিল্পীকেও। সেই ভাবনা থেকেই এল অনুপমের ‘পরিচয়’।

[আরও পড়ুন: ‘হবুচন্দ্র রাজা’র শিবিরে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, প্রযোজক দেবের প্রশংসায় পঞ্চমুখ কিংবদন্তী অভিনেতা ]

শুনে নিন সেই গান-

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement