১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ফের বিতর্কে নোবেল, এবার ফাঁসলেন গান চুরির অভিযোগে

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: December 22, 2019 1:20 pm|    Updated: December 22, 2019 1:21 pm

Bangladeshi singer Nobel accused of stealing song ‘Tumi’

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একের পর এক বিতর্কে জড়িয়ে পড়ছেন গায়ক মাইনুল আহসান নোবেল। আলোচনার চেয়ে তাঁকে নিয়ে সমালোচনাই বেশি হয়। সেই নোবেলই ফের খবরের শিরোনামে। এবার তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ গান চুরির।

ঠিক কী ঘটেছে? গায়ক নোবেলের বিরুদ্ধে গান চুরির অভিযোগ এনেছেন ‘অ্যাবাউট ডার্ক’-এর ভোকালিস্ট নাসির উল্লাহ। অভিযোগ ওঠার পরই গত বৃহস্পতিবার নিজের ‘ভেরিফাইড’ ফেসবুক পেজ থেকে গানটি ডিলিট করে ফেলেন নোবেল। এমনটাই জানা গিয়েছে সূত্রের খবরে। প্রসঙ্গত, সংশ্লিষ্ট ব্যান্ডের সঙ্গে নোবেল আগে যুক্ত ছিলেন।

[আরও পড়ুন: ‘রাষ্ট্রদ্রোহী’ ফারহান আখতার, অভিনেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হিন্দু সংগঠনের]

নোবেলের বিরুদ্ধে ‘অ্যাবাউট ডার্ক’-এর ভোকালিস্ট নাসির উল্লাহর অভিযোগ, বুধবার স্থানীয় সময় প্রায় রাত ১টা নাগাদ ‘দেশ’ নামের একটি গান আপলোড করা হয়। যেটির কথা ও সুর নিজের বলে দাবি করেন নোবেল। কিন্তু এই গানটির কথা ও সুরের সঙ্গে হুবহু মিল রয়েছে ‘অ্যাবাউট ডার্ক’-এর গান ‘তুমি’র সঙ্গে। চলতি বছরের ৪ ফেব্রুয়ারি গানটি প্রকাশ করে ‘অ্যাবাউট ডার্ক’। ১৯ তারিখ ফেসবুকে ওই ব্যান্ডের পক্ষ থেকে একটি স্টেটাসেও দেওয়া হয়। যেখানে ‘অ্যাবাউট ডার্ক’-এর ‘তুমি’ গানটির লিংক দেওয়া হয়। এবং তার পাশে নোবেলের দাবি করা ‘দেশ’ গানটিরও লিংক দেওয়া হয়।

ভোকালিস্ট নাসির উল্লাহ নোবেলকে একহাত নিয়ে ফেসবুকে লেখেন, “আবারও নোবেল স্ট্রাইক! এতবার বাধা দেওয়ার পরও আমার কথা শুনল না। আমার হাতে-পায়ে ধরার পরও আমি তাকে গানটি দিইনি। আমার গান আমি দেব কেন ওকে? তার নাকি একশোটা গান আছে, তাহলে আমার গান কাভার করে কেন ও! কাভার করেছে ঠিক আছে, তাতে আবার নাম দিয়েছে নিজের।”  

[আরও পড়ুন: ‘ভীতু-অহংকারী সরকার’, মোদিকে তোপ দেগে টুইটার হামলার শিকার অনুরাগ! ]

ব্যান্ডের সদস্য এরফান আহমেদ পূর্ণর বক্তব্য, “এই গানটা ২০০৫ সালে নাসির উল্লাহের লেখা। নোবেল তখন ২ লাইন যোগ করেছিল মাত্র। কিন্তু ওকে দল থেকে বের করে দেওয়ার পর, আমরা ফের গানটাকে নতুন করে তৈরি করি। যা ইতিমধ্যেই ফেব্রুয়ারিতে মুক্তি পেয়েছে। ১ বছর আগেও নোবেল এটা করেছিল। কিন্তু পরে ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছিল।” ব্যান্ড থেকে বেশ কয়েকটা বাদ্যযন্ত্র চুরি করার অভিযোগেই নোবেলকে বের করে দেওয়া হয়েছিল বলে জানান তিনি। এবার ফের গান চুরি!

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে