৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রিংকি দাস ভট্টাচার্য: প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে অব্যাহত রইল ‘রাম কে নাম’ তথ্যচিত্র দেখানো নিয়ে জটিলতা। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ রাজি না থাকায় সোমবার দেখানো হচ্ছে না জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত চিত্রনির্মাতা আনন্দ পট্টবর্ধনের ‘রাম কে নাম’ তথ্যচিত্র। তবে এব্যাপারে সিদ্ধান্তে অনড় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। সেখানে আজ সন্ধে ৬টায় দেখানোর কথা ‘রাম কে নাম’।

জাতীয় পুরস্কার পেলেও আনন্দ পট্টবর্ধনের তথ্যচিত্র ‘রাম কে নাম’ বিতর্ক কম হয়নি। বাবরি মসজিদ ভাঙার ঘটনা নিয়ে তৈরি হয়েছে এই তথ্যচিত্রটি। এই তথ্যচিত্রটি সেই সময়ের একটি উল্লেখযোগ্য দলিল। ফ্যাসিস্টদের ইতিহাসবিকৃতি ও উন্মত্ততার নিদর্শন এই জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত তথ্যচিত্রে তুলে ধরা হয়েছে। কিন্তু অভিযোগ, রাম মন্দিরের জন্য যারা সোচ্চার, তারা কোনওভাবেই এই তথ্যচিত্র প্রদর্শনীর সপক্ষে নয়। তার জেরেই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যের কাছে তথ্যচিত্রটি দেখানো বন্ধ করার আরজি জানিয়ে চিঠি দিয়েছে এবিভিপি। কিন্তু বেঁকে বসেছে অন্য ছাত্রছাত্রীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের বাকি সব ছাত্র সংগঠন একযোগে জানিয়েছে, এমন কোনও হুঁশিয়ারির কাছে তারা মাথা নত করতে রাজি নয়। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা বিভাগের ছাত্র সংগঠনের জেনারেল সেক্রেটারি দেবরাজ দেবনাথও একথা জানিয়েছেন। তিনি স্পষ্ট বলেছেন, সিদ্ধান্ত হয়েছিল সোমবার সন্ধে ৬টায় ওয়ার্ল্ড ভিউতে দেখানো হবে ‘রাম কে নাম’। সেই সিদ্ধান্তে অনড় থাকবেন তাঁরা।

[ আরও পড়ুন: ‘মাথা উঁচু করে বাঁচব’, সব্যসাচী দত্তের ভিডিও বার্তায় জল্পনা ]

এদিকে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে তথ্যচিত্র দেখানো নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। আয়োজক পড়ুয়াদের দাবি, প্রথমে মৌখিকভাবে তথ্যচিত্রটি প্রদর্শনের অনুমতি দিয়েছিল কর্তৃপক্ষ। সেই অনুমতি সাপেক্ষেই তাঁরা ছবিটি দেখানোর ব্যবস্থা করেছিলেন। তাহলে রাতারাতি এই নিষেধাজ্ঞার অর্থ কী? এই প্রশ্ন তুলে তথ্যচিত্র দেখানোর পক্ষে জোরদার সওয়াল করছেন আয়োজকরা। এও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে প্রেসিডেন্সির কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কি বিজেপির ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয়েছে? সেই কারণেই কি বন্ধ করা হয়েছে ‘রাম কে নাম’? এনিয়ে কর্তৃপক্ষের তরফে কিছু জানানো হয়নি। উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন, বিকেলের দিকে উপাচার্য আসার কথা। তাঁর সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে কবে তথ্যচিত্র দেখানো হবে বা আদৌ তথ্যচিত্রটি দেখানো যাবে কিনা।

[ আরও পড়ুন: অর্থ দপ্তরের অনুমতি ছাড়া কোনও নিয়োগ নয় পুরসভায়, বিজ্ঞপ্তি দিয়ে নির্দেশ নবান্নের ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং