৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নাট্য অ্যাকাডেমির সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দিলেন মনোজ মিত্র। শুক্রবার তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরকে চিঠি দিয়ে নিজে ইস্তফার কথা জানান এই নাট্য ব্যক্তিত্ব। চিঠিতে শারীরিক অসুস্থতার কথা উল্লেখ করেন তিনি। যদিও অনেকের ধারণা, নতুন যে কমিটি গঠিত হয়েছে, তা তাঁর মনের মতো হয়নি। যদিও মনোজ মিত্র এনিয়ে কিচ্ছু বলেননি।

দু’সপ্তাহ আগে নাট্য অ্যাকাডেমিতে নতুন কমিটি গঠিত হয়েছে। এই কমিটিতেই সভাপতি পদ পেয়েছিলেন মনোজ মিত্র। রাজ্যের তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তর নাট্য অ্যাকাডেমির উপদেষ্টাদের যে তালিকা প্রকাশিত করা হয়েছিল, সেখানে হরিমাধব মুখোপাধ্যায়, ঊষা গঙ্গোপাধ্যায়দের নাম ছিল না। অথচ নতুন তালিকায় ব্রাত্য বসু, অর্পিতা ঘোষদের নাম ছিল। এবিষয়ে আজ মনোজ মিত্র জানান, তাঁর দীর্ঘদিনের সহকর্মী ও বন্ধুদের নাম তালিকায় ছিল না। এমন হওয়া একেবারেই উচিত হয়নি। যদিও তাঁর ইস্তফার পিছনে এই কারণ দর্শাননি তিনি। শারীরিক অসুস্থতার কারণেই তিনি নাট্য অ্যাকাডেমির সভাপতির পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন বলে জানিয়েছেন মনোজ মিত্র।

[ আরও পড়ুন: বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস! নোবেলের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ কিশোরীর ]

কিছুদিন আগেই নাট্য অ্যাকাডেমি থেকে ইস্তফা দেন নাট্য ব্যক্তিত্ব বিভাস চক্রবর্তী। নাট্যকার জানিয়েছিলেন, বয়সের কারণে তিনি নাটকের জগৎ থেকে অনেকটা সরে এসেছেন। কাজ করেন খুব কম। এমন পরিস্থিতিতে নাট্য অ্যাকাডেমির পদ অধিকার করে বসে থাকার কোনও মানে হয় না। তাছাড়া অ্যাকাডেমিতে এমন কোনও কাজ হয় না যার জন্য তাঁর মতো সিনিয়র মানুষের পরামর্শ দরকার। যা হয়, তা রুটিন কাজ। যাঁরা এখন অ্যাকাডেমিতে রয়েছেন, তাঁরা সেই কাজ সামলে নিতে পারবেন। নতুন পরিকল্পনা গ্রহণ করে কাজ করা হবে। সেখানে তাঁর কোনও কাজ নেই। তাছাড়া অনেক সিনিয়র নাট্যকারই ইতিমধ্যে অবসর নিয়ে ফেলেছেন। তিনিও সেই পথ অনুসরণ করেছেন। এবার বিভাসের সঙ্গে সেই একই পথেরই পথিক হলেন মনোজ মিত্রও।

[ আরও পড়ুন: পটুয়া-কলমকারি-মধুবনী চিত্রকলায় গান্ধীজি, শান্তিনিকেতনে দু’দিনের অভিনব প্রদর্শনী ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং