BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২১ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

জনপ্রিয় রিয়ালিটি শোয়ের প্রযোজকের মৃত্যু ঘিরে দানা বেঁধেছে রহস্য

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: June 19, 2019 8:53 pm|    Updated: June 19, 2019 8:53 pm

Famous television post producer Sohan Chauhan's demise

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় টেলিভিশনের জনপ্রিয় দুই রিয়ালিটি শোয়ের পোস্ট প্রোডিউসারের রহস্যজনক মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মুম্বই ইন্ডাস্ট্রিতে। ইন্ডিয়াজ গট ট্যালেন্ট ও মাস্টারশেফ ইন্ডিয়ার মতো দুই বিখ্যাত শোয়ের পোস্ট প্রোডিউসার ছিলেন সোহান চৌহান। রবিবার উদ্ধার হয় সোহানের মৃতদেহ।

[আরও পড়ুন:  আরএসএস-এর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর প্রিয়াঙ্কা! ভাইরাল ছবি ঘিরে বিতর্ক]

মুম্বইয়ের আরে কলোনির রয়্যাল পামস সোসাইটিতে থাকতেন সোহান চৌহান। সেই অঞ্চলেরই ন্যান্সি নামের একটি জলাশয় থেকে তাঁর দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। গত ৬ মাস আগে বিয়ে হয়েছে সোহানের। স্ত্রীয়ের সঙ্গে ওই আবাসনেই থাকতেন তিনি। তবে এই ঘটনার সময়ে তাঁর স্ত্রী শহরে ছিলেন না। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, স্ত্রী দিল্লিতে ছিলেন। গত শনিবার থেকেই সোহানকে ফোনে হাজার চেষ্টা করেও পাননি তাঁর ভাই। সেদিনই থানায় নিখোঁজ ডায়েরি দায়ের করেন। রবিবার সকালে ন্যান্সি লেকে তাঁর মৃতদেহ ভেসে উঠলে স্থানীয় মানুষ পুলিশকে খবর দেন। এরপর লেক থেকে দেহ উদ্ধার করা হয়। এরপর ময়নাতদন্তের জন্য সোহানের মৃতদেহ পাঠানো হয় হাসপাতালে। কিন্তু, কীভাবে তাঁর মৃত্যু হল তা নিয়ে এখনও ধন্দে রয়েছে মুম্বই পুলিশ। তাঁর ফ্ল্যাটে তল্লাশি চালিয়ে ফাঁকা মদের বোতল, ডায়েরি পাওয়া গিয়েছে। পুলিশের তরফে খতিয়ে দেখা হয়েছে সোহান চৌহানের আবাসনের সিসিটিভি ফুটেজও। 

[আরও পড়ুন:  পুলিশি পরিষেবায় গাফিলতির অভিযোগ, উষসী নিগ্রহ কাণ্ডে গঠিত তদন্ত কমিশন]

একটি সংবাদসংস্থার তথ্য অনুযায়ী, সোশ্যাল মিডিয়ায় যথেষ্ট সক্রিয় ছিলেন সোহান চৌহান। গত ১৩ জুন শেষ পোস্ট করেছিলেন। সেই পোস্টে সারেগামাপা লিটল চ্যাম্প-এর ফাইনালের কথাও লিখেছিলেন তিনি। শেষবার তাঁর বাড়ির পরিচারিকা তাঁকে দেখেছিলেন। পুলিশের দাবি, ময়নাতদন্তের রিপোর্টের জন্যই অপেক্ষা করছেন তাঁরা। তবে পুলিশের সন্দেহের তালিকায়  কেউ নেই এখনও পর্যন্ত।  সোহানের মৃত্যুতে এখনও কোনও ধোঁয়াশা দেখেননি তদন্তকারীরা। উল্লেখ্য, গতবছর এই জলাশয় থেকেই একজন পুলিশ আধিকারিকের ছেলের মৃতদেহ পাওয়া গিয়েছিল। পুলিশের অনুমান, তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে