৪ মাঘ  ১৪২৫  শনিবার ১৯ জানুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফিরে দেখা ২০১৮ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রোহিত শেট্টির সিনেমা মানেই ভরপুর বিনোদন। গাড়ির ঠোকাঠুকি থেকে মারকাটারি মারামারি, কিছুই বাদ দেন না এই পরিচালক। বলা হয়, লজিক যদি বাইরে রেখে সিনেমাহলে ঢুকতে চান, তাহলেই একমাত্র রোহিতের সিনেমা দেখা যায়। ‘সিম্বা’-ও এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম নয়।

পর্দাজুড়ে শুধু রণবীর, রণবীর আর রণবীর। এক কথায় ‘সিম্বা’ ছবিতে রাজত্ব করেছেন তিনি। তাঁকে ঘিরেই এগিয়েছে ছবির গল্প। সংগ্রাম ভালেরাও পেশায় পুলিশ অফিসার। তবে বাজিরাও সিংঘমের সঙ্গে তাঁর আকাশপাতাল তফাত। সিংঘম ছিলেন সৎ। আর সংগ্রাম মাথার চুল থেকে পায়ের নখ পর্যন্ত অসৎ। ঘুষ নেয় সে। এমনকী এলাকার কুখ্যাত গুন্ডা ধ্রুব রানাডের পা চাটতেও অসুবিধা নেই তার। এভাবেই কাটছিল দিন। কিন্তু একটি মেয়ের ধর্ষণের ঘটনা সব ওলট পালট করে দেয়। দোষীদের শাস্তি দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নেয় সে। স্থির করে একজনকেও ছেড়ে দেবে না। কিন্তু অসৎ থেকে সৎ হতে গিয়েই বাধে বিপত্তি। যে এতদিন ঘুষ নিয়ে অপরাধীদের সব কাজে মদত দিয়েছে, তা যদি রাতারাতি বন্ধ হয়ে যায়, তাহলে মেজাজ গরম হয়ে যাওয়াই স্বাভাবিক। তার উপর ঘটনার জন্য যাদের উপর অভিযোগ উঠেছে তাদের মধ্যে একজন রানাডেরই আত্মীয়। এবারই আসল ঘটনার শুরু। ঘুষখোর অফিসার সংগ্রাম ভালেরাও রাতারাতি বাজিরাও সিংঘম হয়ে যায়। এরপরই শুরু হয় গল্পের গরু গাছে ওঠা।

জঙ্গলে কেমন হল জোজোর অ্যাডভেঞ্চার? ]

কিন্তু ওই যে, সিনেমা খারাপ লাগবে না যদি লজিক বাইরে রেখে ছবি দেখতে ঢোকা হয়। তবে রোহিত শেট্টি এফেক্ট বাদ দিলেও ছবিটি গোগ্রাসে গেলা যায় শুধু রণবীর সিংয়ের জন্য। ‘পদ্মাবত’ ছবিতে আলাউদ্দিন খিলজির পর এই ছবিতে সংগ্রাম সিংয়ের চরিত্রে একেবারে নিজেকে পালটে ফেলেছেন অভিনেতা। চরিত্রের প্রয়োজনে যে নতুন লুকে পর্দায় হাজির হয়েছেন অভিনেতা, তা এক কথায় অসাধারণ। গোঁফ আর সিম্বার পৌরুষ মিলিয়ে এক কথায় অনবদ্য রণবীর। উলটো দিকে সারা আলি খান একেবারেই নজর কাড়তে পারেননি। তবে এর জন্য তাঁকে দোষ দেওয়া যায় না। ছবিতে তাঁর চরিত্রটি শুধু প্রেম করার জন্যই রয়েছে। এর বেশি কিছু করারও ছিল না সারার।

ছবিতে আরও একজন নজর কেড়েছেন। তিনি অভিনেতা আশুতোষ রানা। কয়েক মুহূর্তের জন্য পর্দায় এলেও নজর কেড়েছেন বাজিরাও সিংঘম অজয় দেবগন। চিত্রনাট্য বা পরিচালনা নিয়ে তো কোনও প্রশ্নই উঠবে না। কারণ ছবিটি ‘দ্য রোহিত শেট্টির’ ফিল্ম। তাঁর ছবিতে যা যা মালমশলা থাকে, তা থেকে একটাও বাদ পড়েনি। ঝাঁ চকচকে লোকেশন, গাড়ি নিয়ে অ্যাকশন, মারামারি সবই আছে। তাই বছর শেষে স্রেফ বিনোদন পেতে চাইলে দেখে আসতে পারেন ‘সিম্বা’।

মিষ্টি নাকি প্রেমের গল্প? কেমন হল ‘রসগোল্লা’? ]

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং