BREAKING NEWS

২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৯ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘পদ্মাবত’ মুক্তির আগে স্বমহিমায় কর্ণি সেনা, আগুন মাল্টিপ্লেক্সে 

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 24, 2018 3:00 am|    Updated: January 24, 2018 4:39 am

Fringe group attacks cinema halls before Padmaavat release

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাল্টিপ্লেক্সে আগুন। বাইকে আগুন। হল মালিককে মারধর। গাড়ি ভাঙচুর। ‘পদ্মাবত’ নিয়ে রোষের আগুন নিভতেই চাইছে না কর্ণি সেনার। প্রথমে সেন্সরের আশ্বাস এবং পরে সুপ্রিম নির্দেশেও যে তাদের ক্ষোভ এতটুকু বাগ মানেনি, মঙ্গলবার রাতে ফের তার জলজ্যান্ত (পড়ুন জ্বলন্ত) প্রমাণ মিলল। বনশালির ‘রাজপুত পিরিয়ড ড্রামা’র বড়পর্দায় মুক্তি রুখে দিতে বেপরোয়া রাজপুত কর্ণি সেনার সদস্যরা। এদিন আমেদাবাদে একটি প্রেক্ষাগৃহ এবং একটি শপিং মল জ্বালিয়ে দিল। ব্যস্ত রাজপথে বেশ কয়েক ঘণ্টা দাউ দাউ করে জ্বলতে দেখা গেল আমেদাবাদের হিমালয় শপিং মল এবং থলটেজ এলাকার পিভিআর মাল্টিপ্লেক্সকে। কর্ণি সেনার রোষানল থেকে রেহাই পেল না প্রেক্ষাগৃহের অনতিদূরে সার দিয়ে রাখা এক ডজন বাইকও। পুড়িয়ে ছারখার করে দেওয়া হল সেই সব যানও। নির্বিচারে ভাঙচুর চালানো হল পার্কিং লটে রাখা গাড়িগুলির উপর। যদিও পরে কর্ণি সেনা দাবি করে আমেদাবাদের এই হিংসার নেপথ্যে তাদের কোনও হাত নেই। এদিকে হরিয়ানার গুরুগ্রামে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

[কেন রণবীরকে এত পছন্দ? ফাঁস করলেন দীপিকা]

অন্যদিকে গুজরাটের পড়শি রাজ্য উত্তরপ্রদেশের কানপুরে ছিঁড়ে দেওয়া হল ছবির পোস্টার। হল মালিকের উপর চড়াও হয়ে দেওয়া হল উত্তম-মধ্যমও। সব মিলিয়ে ২৫-এ মুক্তির একদিন আগেও বিতর্কে জেরবার রণবীর-দীপিকা এবং শাহিদের এই ছবি। মঙ্গলবার প্রথমটায় এই ঘটনার অভিঘাত অতটা বোঝা যায়নি। কিন্তু পরে রাতের দিকে হঠাৎই সোশ্যাল মিডিয়া ছেয়ে যায় কর্ণি সেনার ভাঙচুরেরর খবর, ছবি এবং ভিডিওয়।

আমেদাবাদের যে হিমালয় শপিং মলে এদিন আগুন লাগায় কর্ণি সেনা, তার ভিতরেই রয়েছে বিগ সিনেমাস। সেখানেই আগামী দিন কয়েকের মধ্যে ‘পদ্মাবত’ ছবির প্রদর্শন হওয়ার কথা। কিন্তু ছবি ঘিরে রাজপুত কর্ণি সেনার দেওয়া হিংসাত্মক হুমকির কথা মাথায় রেখেই সেখানে এবং পিভিআর মাল্টিপ্লেক্সে বনশালির ছবিটি দেখানো হবে না বলে আগেভাগেই পোস্টার-বার্তা দিয়ে রাখা হয়েছিল। অথচ তা সত্ত্বেও শপিং মল এবং প্রেক্ষাগৃহে হামলা চালায় কর্ণি সেনা। আগুন লাগিয়ে দেয় বাইকে। ঘটনার জেরে বেশ কিছুক্ষণ ওই এলাকায় গুরুতর ট্রাফিক সমস্যা দেখা দেয়। টুইটার-ফেসবুকের মতো সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই এই খবরের ‘লিংক’ ‘শেয়ার’ করে আত্মীয়-বন্ধু-পরিজনদের উপদ্রুত এলাকা এড়িয়ে যেতে সতর্ক করে দেন।

 

[পর্নস্টারকে নিয়ে ছবির সমালোচনা, বিক্ষুব্ধদের বেদম মার রামুর]

অন্যদিকে ‘পদ্মাবত’ মামলায় নিজেদের রায়ে অনড় দেশের শীর্ষ আদালত। দেশজুড়ে আগামী ২৫ জানুয়ারি মুক্তি পাচ্ছে ‘পদ্মাবত’। সিনেমার মুক্তির বিরোধিতা করে দায়ের করা রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশ সরকারের আরজি মঙ্গলবার খারিজ করেছে দেশের শীর্ষ আদালত। আদালত জানায়, দেশের শীর্ষ আদালতের একবার রায় ঘোষণার অর্থ সেই রায়ই বহাল থাকছে। সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র, বিচারপতি এ এম খানউইলকর ও বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় দুই রাজ্যের পাঠানো আবেদনপত্রগুলি খতিয়ে দেখেন। তারপরই নাকচ করে দেওয়া হয় রায় সংশোধনের আবেদন। সুপ্রিম কোর্ট সাফ জানিয়ে দেয় যে, সারা দেশে মুক্তির নির্দেশ পালন করতে হবে। এই রায়ের পর হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খাট্টার বলেন, ‘যে প্রেক্ষাগৃহের মালিকরা ছবিটি প্রদর্শন করতে চাইবেন, তাঁদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে। নিরাপত্তা থাকবে প্রেক্ষাগৃহেও।’ তবে রাজস্থানে ২৫ তারিখ আদৌ ছবিটি মুক্তি পাবে কি না, তা নিয়ে বেশ চিন্তায় রয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। মঙ্গলবার অবশ্য তিন বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ বলে, রায় সংশোধনের প্রশ্নই নেই। এদিন দুই রাজ্যের আরজি খারিজ করে দিয়ে সুপ্রিম কোর্ট জানায়, আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখার দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট রাজ্য সরকারের। প্রতিটি রাজ্যেই প্রদর্শিত হবে ছবিটি।

প্রতিদিনই বিতর্ক চলছে ‘পদ্মাবত’-কে ঘিরে। দুই রাজ্যের আরজি ছাড়াও রাষ্ট্রীয় কর্ণি সেনা ও অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় মহাসভার ‘পদ্মাবত’ মুক্তি রদের আবেদনও নাকচ করে দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ। কিন্তু রায় সংশোধনের আরজি খারিজের পর এটা নিশ্চিত হয়ে গেল যে আগামী বৃহস্পতিবার শীর্ষ আদালতের নির্দেশে দেশের সব রাজ্যেই মু্ক্তি পাবে সঞ্জয় লীলা বনশালির ছবি।

[শাহরুখের মুকুটে জুড়ল আরও এক পালক, সুইজারল্যান্ডে পুরস্কৃত অভিনেতা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে