BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রেজিস্ট্রেশন ছাড়াই ব্যবসা চালাচ্ছেন হৃতিকের প্রাক্তন স্ত্রী!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 19, 2016 4:51 pm|    Updated: June 19, 2016 4:51 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেচ্ছা আর কেলেঙ্কারি পিছু ছাড়তেই চাইছে না বলিউডের এই প্রাক্তন দম্পতির! মাস কয়েক আগেই তো তুমুল শোরগোল পড়ে গিয়েছিল স্বামীটিকে নিয়ে! অভিযোগ উঠেছিল এক বিশেষ নায়িকার সঙ্গে তঞ্চকতার!
সে পর্ব মিটতে না মিটতেই এবার তঞ্চকতার দায়ে অভিযুক্ত হলেন স্ত্রীটি! গোয়া পুলিশের কাছে তাঁর নামে দায়ের করা হল লিখিত অভিযোগ- কোটিরও উপরে টাকা নিয়ে লোক ঠকাচ্ছেন হতিক রোশনের প্রাক্তন স্ত্রী সুজান খান।
সম্প্রতি রিয়েল এস্টেট ফার্ম এমজি প্রপার্টিজ এই অভিযোগ দায়ের করেছে সুজান খানের নামে। তাঁদের দাবি, ২০১৩ সালে সুজানের সঙ্গে তাঁদের একটি চুক্তি হয়েছিল। সুজান সেই ফার্মের সঙ্গে যৌথ ভাবে আর্কিটেক্ট পরিচয়ে একটি প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। চুক্তির সময়ে ১.৮৭ কোটি টাকাও নেন তিনি!
এবার ফার্মের বক্তব্য, এর পরেই তাঁরা নানা দিক থেকে তঞ্চকতার শিকার হন। প্রথমত, সুজান তাঁদের যে সব কাজ দেখিয়েছিলেন, তা মোটেও ঠিকঠাক ছিল না। তখনই তাঁদের সন্দেহ হয় যে, সুজান আদতেই আর্কিটেক্ট নন! তাও তাঁরা চুক্তি বাতিল করেননি। শুধু সুজানকে তাঁর রেজিস্ট্রেশন নম্বর এবং অন্যান্য কাগজপত্র ফার্মে জমা দিতে বলেন।
এর পর দীর্ঘ সময় পেরিয়ে যায়, কিন্তু সুজান ব্যাপারটাকে পাত্তাই দেননি! কাগজপত্র তো জমা দেননি বটেই, পাশাপাশি কাজ না করেও চুপ করে বসে ছিলেন।
তখন বাধ্য হয়েই নিজেদের মতো করে খোঁজখবর নিতে শুরু করে এমজি প্রপার্টিজ। তারা খোঁজখবর নেয় কাউন্সিল অফ আর্কিটেকচারে। তখনই জানা যায়, সুজানের আর্কিটেক্ট হিসেবে ওখানে নাম নথিভুক্ত করা নেই। স্বাভাবিক ভাবেই কোনও রেজিস্ট্রেশন নম্বরও নেই!
এখনও পর্যন্ত এই বিষয়ে কোনও মন্ত্য করতে চাননি সুজান। পুলিশ সাব-ইন্সপেকটর রশমি ভায়েরকর ভারতীয় সংবিধানের ৪২০ নম্বর ধারার অধীনে অভিযোগটি নথিভুক্ত করেছেন। তদন্ত চলছে।
দেখা যাক, এবার জল কত দূর গড়ায়!

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement