৫ কার্তিক  ১৪২৬  বুধবার ২৩ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

বিয়ের মরশুমে চারদিকে উইকেট পড়ছে। এঁরা তবু ধরে রেখেছেন মহামূল্যবান ব্যাচেলর স্টেটাস। দেশের সবচেয়ে লোভনীয় ব্যাচেলরদের মধ্যে প্রিয়দর্শিনী রক্ষিত বেছে দিলেন টপ ৫। সঙ্গে ৫ পাত্রীর সন্ধান।

রাহুল গান্ধী

বয়স: ৪৮

পেশা: রাজনীতি

আনুমানিক আয়: সাংসদের মাসিক বেতন ১২ হাজার এবং অন্যান্য।

বহু বছর ধরে এলিজেবল ব্যাচেলরদের তালিকায় রয়েছেন। ভারতীয় বিচারে বিয়ের বয়স অনেকটা বেশির দিকেই। তার উপর মিম-মার্কেটে তিনি বিশেষ প্রিয়। তবে নিন্দুকেরা যতই তাঁকে ‘পাপ্পু’ বলে ডাকুক, যতই তাঁর বুদ্ধি-বিবেচনা নিয়ে প্রশ্ন তুলুক, পাত্র হিসেবে তিনি এখনও অমূল্য। আফটার অল, পদবিটা তো গান্ধী। ‘রাহুল, নাম তো সুনা হি হোগা’ ডায়ালগটা তাঁর মুখে দিব্যি  মানায়, তাই না? তার উপর এখন তাঁর রাজনৈতিক টিআরপি মগডালে।

পাত্রী হতে পারেন: ক্যাটরিনা কাইফ। দু’জনেরই রক্ত অর্ধেকটা দেশি, অর্ধেক বিদেশি। রিল লাইফে সোনিয়া গান্ধীর ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন ক্যাটরিনা, ‘রাজনীতি’ ফিল্মে। রিয়েল লাইফে সোনিয়ার পুত্রবধূ হিসেবে তাঁকে ভালই মানাবে, কী বলেন?

হার্দিক পাণ্ডিয়া

বয়স: ২৫

পেশা: ক্রিকেটার

আনুমানিক আয়: বার্ষিক ২৪ কোটি

বিরাট কোহলির ব্যর্থ প্রেমে হাফ-সোল খাওয়া বহু ক্রিকেটপ্রেমিকার হৃদয়ে আশ্রয় পেয়েছে এই ছ’ফুট লম্বা, পেটানো গুজরাটি অবয়ব। টিম ইন্ডিয়ার দাড়ি-ট্যাটু-ফেডকাটের ভিড়েও নিজস্ব জায়গা ধরে রেখেছেন হার্দিক। ধরে রেখেছেন দারুণ স্টাইলে। নিত্যনতুন হেয়ারস্টাইল পালটান, নানা রঙে চুল রাঙিয়ে নেন, যার জন্য টিমে তাঁর ডাকনাম ‘হেয়ারি’। মহেন্দ্র সিং ধোনি আবার মনে করেন, হার্দিক পাণ্ডিয়া হচ্ছেন ভারতের নেমার! বলিউডের অনামী হিরোইন এলি আভরামের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক রয়েছে বলে শোনা যায়। কিন্তু বিয়ের পিঁড়িতে না বসা পর্যন্ত তিনি এলিজিবল ব্যাচেলর।

পাত্রী হতে পারেন: স্মৃতি মন্ধানা। ভারতীয় মেয়েদের ক্রিকেট টিমের বিরাট কোহলি হিসেবে খ্যাত বাইশের তরুণী। হার্দিকের মতোই আগ্রাসী ক্রিকেট পছন্দ করেন। তাছাড়া বাকি অনেক ক্ষেত্রে স্বামী-স্ত্রী এক পেশার হলেও ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসে ব্যাপারটা নজিরবিহীন। ক্রিকেটারের সঙ্গে ক্রিকেটারের বিয়ে! দারুণ জমবে কিন্তু।

‘আগে অল্প জেনেই বড় বড় কথা বলতাম’, অকপট শাহরুখ ]

আরিয়ান খান

বয়স: ২১

পেশা: আপাতত কিছু না

আয়: নট অ্যাপ্লিকেবল

এখনও পর্যন্ত একটাও ফিল্ম করেননি। আদৌ করবেন কি না, নিশ্চিত নয়। কিন্তু বাবার নাম যখন শাহরুখ খান, তখন তাঁর উপর কোটি কোটি মহিলার নজর থাকতে বাধ্য। তার উপর যেখানে বাবার সঙ্গে ছেলের মুখের মিল এতটা স্পষ্ট। অমিতাভ বচ্চনের নাতনির সঙ্গে আরিয়ানের প্রেম ছিল শোনা যায়। কিন্তু শাহরুখপুত্র আপাতত সিঙ্গল। বিদেশে পড়াশোনা করেছেন, বাবার মতো তিনিও নাকি দারুণ কথা বলেন। এবং সবচেয়ে জরুরি, বাবার বিখ্যাত ম্যাগনেটিজম নাকি ছেলের মধ্যেও বিদ্যমান।

পাত্রী হতে পারেন: নব্যা নভেলি বচ্চন। লোকে বলে কম বয়সের প্রেম সহজে ভাঙে না। শেষমেশ যদি দুই চাইল্ডহুড সুইটহার্টের বিয়ে হয়, গোটা দেশের কী অবস্থা হবে বুঝতে পারছেন? খান ওয়েডস বচ্চন- স্বপ্নের শিরোনাম!

বরুণ ধাওয়ান

বয়স: ৩১

পেশা: নায়ক

আনুমানিক আয়: বার্ষিক ৩৪ কোটি

হ্যাঁ, তাঁর গার্লফ্রেন্ড আছে। অনেক দিন ধরেই আছে। কিন্তু বিয়ে যখন হয়নি, স্বপ্ন তো দেখাই যায়, তাই না? বিশেষ করে স্বপ্নের বিষয়বস্তু যদি হন এ রকম এক পুরুষ। বরুণ ধাওয়ানের মধ্যে ছেলেমানুষি সারল্য যেমন আছে, তেমনই আছে হান্ড্রেড পার্সেন্ট সেক্স অ্যাপিল। দেখে মনে হয় কফি-ডেট তিনি যতটা জমিয়ে দিতে পারবেন, ততটাই উপভোগ্য হবে তাঁর সঙ্গে বেডরুম সিন। বলিউডের হায়েস্ট পেড হিরোদের অন্যতম বরুণের বিজনেস সেন্সও তুখড়, তাই ব্যাংক ব্যালেন্স বেড়ে চলার সমূহ সম্ভাবনা। আর কী চাই?

পাত্রী হতে পারেন: আলিয়া ভাট। রণবীর কাপুরের সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছেন ঠিকই, কিন্তু প্রেমিক হিসেবে রণবীরের ট্র‌্যাক রেকর্ড নিতান্তই খারাপ। দুষ্টুমিষ্টি আলিয়ার সঙ্গে তাঁর কো-ডেবিউট্যান্টকে বরং বেশি মানাবে। তাঁদের বিয়ের হ্যাশট্যাগ? #শাদিঅফদ্যইয়ার!

জয় আনমোল আম্বানি

বয়স: ২৬

পেশা: ব্যবসা

আনুমানিক আয়: ২০১৬ সালে রিলায়েন্সে যোগ দেওয়ার সময় পেতেন মাসিক ১.২ কোটি + অ্যালাওয়েন্স + লাভের উপর কমিশন।

এখন আরও বেশি অনিল আর টিনা অম্বানির পুত্র বলিউড তারকা বা সুপারস্টার ক্রিকেটার নন, তাই হয়তো তাঁকে নিয়ে বিশেষ গবেষণা হয় না। মিষ্টি দেখতে জয় আনমোল আদতে দুর্দান্ত ব্যবসায়ী। রিলায়েন্স ক্যাপিটালের এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর হয়ে আসার পর মাত্র দু’বছরে কোম্পানির লাভ অনেকটা বাড়িয়ে দিয়েছেন। সাধে কি বাবা অনিল আম্বানি তাঁকে ‘লাকি চার্ম’ মনে করেন? সিক্স-প্যাক অ্যাবস না থাকুক, তরুণ বিজনেস টাইকুনের ব্যাঙ্ক ব্যালান্স সিক্স ফিগারের চেয়েও বেশি। আর পদবি যেখানে ‘আম্বানি’, অ্যাবস দিয়ে কী হবে?

পাত্রী হতে পারেন: সারা আলি খান। সঙ্গিনীর মধ্যে মাকে খোঁজেন অনেক পুরুষ। বলিউড নায়িকা টিনা মুনিমের পুত্র জয় তাই লাইফ পার্টনার হিসেবে ভাবতেই পারেন সইফ-অমৃতার কন্যাকে। দু’জনেই নিজের প্লেয়িং ফিল্ডে রাইজিং স্টার। দুই তারা একত্রিত হলে আকাশ জুড়ে আতশবাজি ফাটবে না, কে বলতে পারে!

বাইচুংয়ের বায়োপিকের চিত্রনাট্য সাজাতে ডার্বিতে থাকছেন প্রশান্ত পাণ্ডে ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং