৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘দেবদাস’ ভোল বদলে এবার ‘দাসদেব’!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 4, 2016 5:05 pm|    Updated: June 4, 2016 6:21 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শরৎবাবুর দেবদাসকে সারা দেশ চেনে৷ বিরহের কথা এলে অবিস্মরণীয় প্রতিনিধি হিসেবে উঠে আসে তার নাম৷ প্রিন্স বড়ুয়া থেকে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় হয়ে শাহরুখ খানের মতো নায়করা এ চরিত্রকে পর্দায় যেভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন, তাতে প্রেমিকা বিরহে কাতর দেবদাসের মূর্তিটিরই সার্থক প্রাণপ্রতিষ্ঠা হয়েছে৷ তবে এবার আর দেবদাস ‘লুজার’ নয়৷ তাকে অন্যরকম করে গড়ে তুলছেন পরিচালক সুধীর মিশ্র৷ দেবদাসের বদলে এবার সে হচ্ছে ‘দাসদেব’৷ ছবির নাম ‘অউর দেবদাস’৷

চলচ্চিত্র দুনিয়া বারবার দেবদাসকে আপন করে নিয়েছে৷ সবথেকে বেশি ভাষায় বেশিবার চলচ্চিত্রায়িত হয়েছে শরৎবাবুর এ কাহিনীই৷ তবে যত সময় গড়িয়েছে তত কাহিনীর পরতে যোগ হয়েছে নয়া মাত্রা৷ দেবদাসের চিরায়ত কাহিনীতে বদল এনে সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালী৷ আধুনিক সময়ের প্রেক্ষিতে নয়া ছাঁচে দেবদাসকে ফেলেছিলেন পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপও৷ তাঁর ‘দেব ডি’ নয়া প্রজন্মের কাছে যথেষ্ট জনপ্রিয়তা পেয়েছিল৷ তবে এবার একেবারে দেবদাসের ভোলবদল৷ জীবনে সব হারানো বিরহবিধূর দেবদাসের চরিত্রে এবার প্রায় একশো আশি ডিগ্রি বদল আনতে চলেছেন পরিচালক সুধীর মিশ্র৷ তবে আদল দেবদাস উপন্যাস থেকে নিলেও, এ কাহিনী হুবহু উপন্যাসকে অনুসরণ করবে না৷ পরিচালক তাঁর দাসদেবের গল্পের কাঠামো তৈরি করছেন তিনি নিজেই৷ তবে চালচিত্র হিসেবে থেকে যাচ্ছে শরৎবাবুর কাহিনীই৷

 তাহলে এই কাহিনীর সঙ্গে দেবদাসের যোগাযোগ কীভাবে? পরিচালক জানাচ্ছেন, “কাহিনীতে দেবদাসের জীবনযাত্রা খেয়াল করলে দেখা যাবে, আসলে সে ‘দেব’ থেকে ‘দাসে’ পরিণত হচ্ছে৷  আমার কাহিনীতে ঠিক এর উল্টো যাত্রা দেখা যাবে৷” তাঁর এই চরিত্রের বিশেষত্ব বর্ণনা করে পরিচালক আরও জানাচ্ছেন, “এই চরিত্র কোনও কিছুতে হেরে যায় না৷ সমস্যার মধ্যে আটকে থাকে না৷ বরং সমস্যার সঙ্গে সঙ্গে নিজেকে বদলে নিতে পারে৷”

দাসদেবের চরিত্রে দেখা যাবে রাহুল ভাটকে৷ দুই নারী চরিত্রে থাকছেন রিচা চাড্ডা ও অদিতি রাও হায়দারি৷ সময়ের পালাবদলে চিরকালীন দেবদাসের এই ঘুরে দাঁড়ানো কতটা গ্রহণযোগ্য হবে দর্শকের দরবারে? জীবনে হেরে গিয়েই সে নায়কের সম্মান পেয়েছে৷ শরৎবাবু এই ভাগ্যনিপীড়িত যুবকের জন্য দু ফোঁটা চোখের জল তুলে রাখতে বলেছিলেন পাঠকদের৷ সেই চোখের জলই দশকের পর দশক দেবদাসকে সমানভাবে জনপ্রিয় করে রেখেছে৷ ওটুকু সরে গেলেও কি দেবদাসের মহিমা একইরকম থাকবে? আপতত পরিচালকের মুন্সিয়ানার উপরই নির্ভর করছে সবকিছু৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement