BREAKING NEWS

২৩ শ্রাবণ  ১৪২৭  রবিবার ৯ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

ধুতি পরে ব়্যাপ করছেন ব্যোমকেশ! নেটদুনিয়ায় নিন্দার ঝড়

Published by: Sulaya Singha |    Posted: March 29, 2019 9:54 pm|    Updated: March 29, 2019 9:54 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘সত্য মিথ্যা অন্বেষণে ঘুরছে জনে জনে…।’ ব়্যাপ করছেন ব্যোমকেশ বক্সি। হ্যাঁ, একদম ঠিক পড়েছেন। শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৃষ্ট ব্যোমকেশই ব়্যাপ করছেন। ভাবতে না পারলেও এমনটা আপনাকে ভাবতে বাধ্য করেছে হইচই। কারণ সেখানেই ফিরছে ব্যোমকেশ। আর নতুন সিজনের চমকটা তারা দিয়েছে ব্যোমকেশের ব়্যাপ দিয়ে। নিঃসন্দেহে এতে চমকেই গিয়েছেন দর্শকরা।

পরনে ধুতির সঙ্গে ব্লেজার। পুরনো কাঠের গদি আঁটা চেয়ারে বসে ব়্যাপ করছেন সত্যান্বেষী রূপী অনির্বাণ! চোখে দেখেও যেন এ দৃশ্য বিশ্বাস করা কঠিন। কিন্তু এমনটাই হচ্ছে। হইচই-এর ফেসবুক পেজে গেলেই দেখতে পাবেন এই ভিডিও। আসলে ব্যোমকেশকে একটু অন্যরকমভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে আর কী। তা বলে ব়্যাপ! ভিডিও পোস্ট হওয়ার পর থেকেই সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এমন ভাবনাকে তুলোধোনা করছেন নেটিজেনরা। অনেকেই বলছেন, শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৃষ্ট গোয়েন্দা চরিত্রকে নিয়ে এহেন ঠাট্টা-তামাশা না করলেই পারতেন নির্মাতারা। এতে চমকের থেকে বেশি নিন্দাই জুটবে হইচই-এর কপালে। অনেকে তো আবার বলছেন, ভাগ্যিস শরদিন্দুকে ব্যোমকেশের এই চেহারা দেখতে হল না। নিঃসন্দেহে বড্ড কষ্ট পেতেন তিনি। প্রত্যেকেরই প্রশ্ন, এই ব়্যাপের কি কোনও দরকার ছিল? বেঁচে থাকতে কত রঙ্গই যে দেখতে হবে, কে জানে!

ব্যোমকেশের আগের সিজনগুলি ইতিমধ্যেই মনে ধরেছে দর্শকদের। প্রশংসিত হয়েছে অনির্বাণের অভিনয়ও। কিন্তু তাঁর এই ব়্যাপ কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না দর্শকরা। অনির্বাণ জানান, তিনি নিজেই ব়্যাপটি করেছেন। ‘শাহজাহান রিজেন্সি‘-তে প্রথমবার নিজে গান গেয়েছিলেন তিনি। এবার ওয়েব সিরিজের জন্য এই অভিনব ব়্যাপটি করেছেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত, অভিনয়ের মতো তাঁর এ ব়্যাপ প্রশংসা পেল না।

[আরও পড়ুন: ৫ এপ্রিল থেকে ফের শহরের প্রেক্ষাগৃহ কাঁপাবে ‘ভবিষ্যতের ভূত’]

আগামী ১২ এপ্রিল এই ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে শুরু হবে ব্যোমকেশের চতুর্থ সিজন। ইতিমধ্যেই মুক্তি পেয়েছে ওয়েব সিরিজটির টিজার। সাহিত্যিকের ‘অগ্নিবাণ’ গল্প অবলম্বনে তৈরি এবারের সিজন। কিন্তু টিজারের থেকে বেশি চর্চা হচ্ছে ব্যোমকেশের ব়্যাপ নিয়েই। ব্যোমকেশের এ রূপ দেখার পর পরবর্তী সিজনটি জনপ্রিয় হয় কিনা, সেটাই এখন লাখ টাকার প্রশ্ন। 

 

[আরও পড়ুন: ‘সেলুলয়েডের মোদি জনমানসে প্রভাব ফেলবেই’, কমিশনকে জবাব নির্মাতাদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement