২৬ বৈশাখ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

প্রিয়ার গানে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত, পরিচালককে নোটিস পুলিশের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 19, 2018 4:24 pm|    Updated: February 19, 2018 4:43 pm

Police serves notice to Priya Prakash Varrier’s wink song director

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  মুসলিমদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করেছে প্রিয়া প্রকাশ ভারিয়েরের গান। সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে এবার ছবির পরিচালককে নোটিস পাঠাল পুলিশ। হায়দরাবাদের ফলকনুমা পুলিশের তরফে পাঠানো হয়েছে নোটিস। একটি কপি ডাক মারফৎ পৌঁছবে পরিচালক ওমর লুলুর কাছে। অন্যটি তাঁকে হাতেই ধরানো হবে। সেজন্য ফলকনুমা পুলিশের একটি দল কেরলের উদ্দেশে রওনা হয়ে গিয়েছে। ওমর লুলুর ‘ওদু আদার লাভ’ ছবিতে অভিনয় করছেন প্রিয়া। সেখানেই রয়েছে ‘মানকিয়া মালারাই পুভি’ গানটি। ইতিমধ্যেই গানের তালে জনপ্রিয় হয়েছে দক্ষিণী অভিনেত্রী প্রিয়ার আঁখি পল্লবের ইশারা। নেটদুনিয়া কাঁপিয়ে সেই ভিডিও এখন ইউটিউবে ভাইরাল।

[এবার মেঘালয়ের ভোটযুদ্ধে কংগ্রেসের হাতিয়ার স্যানিটারি ন্যাপকিন]

ইন্টারনেটে সেনসেশন তৈরি করা প্রিয়ার আখির নাচনে এখন মাতোয়ার আট থেকে আশি। তবে গানের কথা নিয়ে অভিযোগ থাকলেও প্রিয়ার চাহনি নিয়ে কোনওরকম অভিযোগ কিন্তু ওঠেনি। তাই লক্ষ লক্ষ হৃদয় জিতেও ‘পদ্মাবতে’র পথ ধরেই বিতর্কের চূড়ায় উঠছে লুলুর ‘ওদু আদার লাভ’। যদিও বিতর্কে পাত্তা দিতে রাজি নন পরিচালক লুলু। তাঁর স্পষ্ট দাবি, ওই গানে কোনও ভাবেই মুসলিম ভাবাবেগে আঘাত দেওয়া হয়নি। আদ্যপান্ত প্রেমের অনুষঙ্গে লেখা গানের কথা। তাছাড়া ১৯৭০ সাল থেকেই এই গানের জনপ্রিয়াত রয়েছে কেরলে। তাই কোনওভাবেই ইউটিউবে থেকে গানটি সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে না।

লুলুর এহেন ব্যাখ্যার পরে দুরকমের পন্থা নিয়েছে ফলকনুমা পুলিশ। ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৬০ ধারায় ফৌজদারি মামালা রুজু হয়েছে লুলুর বিরুদ্ধে। নোটিসে উল্লেখ করা হয়েছে, ১৫ দিনের মধ্যে সংশ্লিষ্ট গান কেন ছবিতে থাকবে তার ব্যাখ্যা দেবেন পরিচালক ওমর লুলু। সেই ব্যাখ্যা যদি কোর্টের কাছে সন্তোষজনক না হয় তাহলে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪১ ধারার আওতায় নতুন মামলা  রুজু হবে ওমরের বিরুদ্ধে। এখানে অভিযুক্ত হিসেবেই মানা হবে লুলুকে। তবে এই আইনি প্রক্রিয়া শুরুর আগে ১৬০ ধারার ফৌজদারি মামলাটি বন্ধ করে দিতে হবে। এদিকে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত দেওয়ার অভিযোগে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৯৫ ধারার আওতায় আরও একটি মামালা রুজু হয়েছে লুলুর বিরদ্ধে। সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে মামলাটি করেছে ফলকনুমা পুলিশ।

[৮০০ কোটির ঋণখেলাপ, সিবিআইয়ের জালে রোটোম্যাক কর্তা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে