BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

জানেন, প্রথমবার সৃজিতকে দেখে কার কথা মনে হয়েছিল প্রসেনজিতের?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 10, 2017 2:14 pm|    Updated: September 10, 2017 2:14 pm

Prosenjit Chatterjee reveals what he thought of Srijit Mukherji in first encounter

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নায়ক-নায়িকার জুটি যেমন কোনও ছবির সাফল্যের বড় ফ্যাক্টর হয়, তেমনই অনেক ক্ষেত্রে ছবির সাফল্যে বড় ভূমিকা নেয় পরিচালক অভিনেতার জুটি। পরিচালক যা বলতে চাইছেন তা যদি সহজেই বুঝে যান অভিনেতা, তাহলে তার থেকে ভাল আর কীইবা হতে পারে। টলিউডে একসময় পরিচালক অভিনেতার জুটি বলতে প্রথমেই যে নামটা উঠে আসত তা হল, সত্যজিৎ রায় ও সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। এরপর বহু পরিচালক-অভিনেতা জুটিকে দেখেছে টলিউড। কিন্তু বর্তমানে সে উদাহরণ খুবই কম। কয়েকটি সিরিজ বাদে আলাদা আলাদা ছবির ক্ষেত্রে পরিচালক আর অভিনেতার সেই রসায়ন যে কয়েকজনের মধ্যে দেখা যায়, তার প্রথম নামটাই হল সৃজিত মুখোপাধ্যায় ও প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।

16460461

[ট্রেলারেই দুর্গাপুজোর আমেজ নিয়ে হাজির অঙ্কুশ-নুসরত]

‘অটোগ্রাফ’ দিয়ে শুরু এই জার্নি। টলিউডের নবাগত পরিচালক তাঁর প্রথম ছবিই করতে চেয়েছিলেন সুপারস্টার প্রসেনজিতের সঙ্গে। তাই সকাল থেকে হত্যে দিয়ে পড়েছিলেন অভিনেতার শুটিং সেটে। অভিনেত্রী নন্দনা সেন তাঁর পরিচয় করিয়ে দেন বুম্বাদার সঙ্গে। তখন সৃজিত ছিলেন বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা। সিনেমার ঝোঁক যেমন তাঁর মাথায় ছিল, সেরকমই তিনি দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ছিলেন যে, প্রথম ছবি তিনি তৈরি করবেন প্রসেনজিৎকে নিয়েই। আর সেটা হবে সত্যজিৎ রায়ের নায়কের ‘রিমেক’। সারাদিনের শুটিং শেষ করে অভিনেতা জানতে পারেন, তাঁর সঙ্গে দেখা করার জন্য একটি ছেলে সকাল থেকে বসে আছে। এতক্ষণ কেউ তাঁর জন্য অপেক্ষা করছে ভেবেই সৃজিতের সঙ্গে দেখা করেছিলেন তিনি। প্রথম দেখাতেই সৃজিতকে বেশ ‘সিনসিয়ার’ মনে হয়েছিল তাঁর। তাই সোজা তাঁকে নিজের বাড়িতে নিয়ে আসেন। সৃজিতের মুখ থেকে প্রথমবার চিত্রনাট্য শুনে বা তাঁর ব্রিফ করার স্টাইল শুনে কাছের বন্ধু ঋতুপর্ণ ঘোষের কথা মনে পড়েছিল সেদিন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের। এরপর তিনিই সৃজিতকে নিয়ে যান প্রযোজকের কাছে। বাকিটা বুম্বাদার কাছে ‘ইতিহাস’।

[ফের প্রেমে পড়েছেন শুভশ্রী! এবার কার?]

২০১০ সালে মুক্তি পায় অটোগ্রাফ। বাংলা সিনেমার মোড় ঘোরানো এই ছবি ভাল ব্যবসা করে বক্স অফিসে। এরপর ‘বাইশে শ্রাবণ’, ‘মিশর রহস্য’, ‘জাতিস্মর’, ‘জুলফিকার’। সৃজিতের সঙ্গে সঙ্গেই বাংলা সিনেমা আবিষ্কার করে এক অন্য প্রসেনজিতকে। এবছর আবারও আসছে এই পরিচালক-অভিনেতা জুটি। ২২ সেপ্টেম্বর মুক্তি পেতে চলেছে ‘ইয়েতি অভিযান’। সৃজিত ও প্রসেনজিতের রসায়ন আবারও কি ছক্কা হাঁকাবে বক্স অফিসে, এখন সেটাই দেখার।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে