BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বহুদিন পর বাংলা ছবিতে তনুজা, কেমন হল ‘সোনার পাহাড়’-এর খোঁজ?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 8, 2018 4:37 pm|    Updated: July 11, 2018 4:43 pm

Review of Tanuja Starrer Bengali Movie 'Sonar Pahar'

বিদিশা চট্টোপাধ্যায়: যদি কোনও দরকারে বাবা বা মাকে ফোন করতে হয়, সাধারণত দুই থেকে তিন মিনিটের বেশি কথা হয় না৷ জরুরি কথা শেষ করেই ফোন রেখে দেওয়া৷ কেন কথা এগোয় না আমারা কি কখনও ভেবে দেখেছি? না, এর সঙ্গে যে ছবি নিয়ে লিখছি তার কোনও সরাসরি সম্পর্ক নেই, আবার হয়তো আছেও৷ ‘সোনার পাহাড়’ আসলে সেইসব বড়দের ছবি যারা বড় হয়ে গেলে মা-বাবার হাতছুট হয়ে অন্য বড়দের ভিড়ে হারিয়ে যায়৷ ‘সোনার পাহাড়’ সেই বুড়ো মা-বাবার ছবি, যারা নিজেদের সন্তানদের হারিয়ে ফেলে এবং যার পোশাকি নাম দিয়ে থাকি- জেনারেশন গ্যাপ৷ সোনার পাহাড় এই গ্যাপ বা দূরত্ব কমিয়ে আনারই ছবি৷

মাল্টিপ্লেক্সে বসে সোনার পাহাড় দেখতে দেখতে একটা কথাই শুধু মনে হচ্ছিল, ‘সঞ্জু’র দাপট সত্ত্বেও হাউসফুল উইকএন্ডের শো৷ ছবির টিকিট খুঁজতে গিয়ে দেখলাম সমস্ত মাল্টিপ্লেকে মাত্র একটা করেই শো৷ এমন একটা ছবির আরও বেশি শো হওয়া উচিত ছিল৷

[  জীবনের ‘ক্রিসক্রস’ নিয়ে হাজির টলিপাড়ার পাঁচ কন্যা, দেখুন টিজার ]

সংক্ষেপে গল্পটা বলে নিই৷ উপমা (অভিনয়ে তনুজা) তাঁর শেষ বয়সে একা থাকে৷ ছেলে সৌম্য(যিশু) আলাদা থাকে স্ত্রীর (অরুণিমা) সঙ্গে৷ ঘটনাচক্রে উপমার জীবনে আসে বিটলু (শ্রীজাত)৷ সে থাকত অনাথ আশ্রমে, যেটা চালায় রাজদীপ (পরমব্রত)৷ রাজদীপের মধ্যস্থতায় উপমার ভবানীপুরের বাড়িতে আসে বিটলু৷ বিটলুর মধ্যে যেন নিজের ছেলে পাপুনকে খুঁজে পান উপমা৷ ছেলেটা দস্যি আর উপমা খিটখিটে৷ তাই দু’জনের কেমিস্ট্রি দারুণ জমে যায়৷ উপমার পুরনো গল্প লেখার খাতা খুঁজে পায় বিটলু৷ সেখানে পাপুন আর তার মায়ের গল্প৷ আর আছে পাপুন এর আংকা৷ সোনার পাহাড়-এর গল্পটা শেষ হয়নি৷ সেই গল্প শেষ করতে অনুরোধ করে বিটলু৷ উপমা যেমন পাপুনকে দেখতে পায় বিটলুর মধ্যে, বিটলুও সেটা বুঝতে পারে যে, বিটলু নয় আসলে পাপুনকে খুঁজে বেড়ায় তার মা৷ সেই সোনার পাহাড়ের অ্যাডভেঞ্চারে বেরিয়ে পড়ে বিটলু আর উপমা৷ কাউকে কিছু না জানিয়ে৷ কেন? কী খুঁজে পায় তারা? এটা জানতে ছবিটা দেখতে হবে৷

তনুজা, যিশু, পরমব্রত এবং বিটলু মানে শ্রীজাত-প্রত্যেকের অভিনয় এতটাই জীবন্ত যে অভিনয় মনেই হয় না৷ অনেকদিন পর তনুজাকে বাংলা ছবিতে পেয়ে ভাল লাগল৷ বিটলুর চরিত্রে শ্রীজাতকে ভাল না বেসে উপায় নেই৷ ছবিতে একটি বিশেষ চরিত্রে আছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ও৷ সৌমিত্র-তনুজাকে এতদিন পরে একসঙ্গে পাওয়া মানে বাঙালির সোনার স্মৃতিতে ডুব, এ ছবিতে সে স্বাদও পূরণ হল৷ আর তনুজা এবং যিশুর যে শেষ পর্বে কথোপকথন, তাতে চোখে জল আসবেই৷ যিশু যে বিটলুর চেয়েও ছেলেমানুষ হতে পারে এই দৃশ্য না দেখলে বুঝতে পারবেন না৷ আসলে সন্তান মা-বাবার কাছে কখনওই বড় হয় না৷ নীল দত্তের সংগীতের কথাও আলাদ করে বলতে হয়৷

[  বিবাহ আসরে হাজির পুলিশ, শেষমুহূর্তে ভেস্তে গেল ধর্ষণে অভিযুক্ত মিমোর বিয়ে ]

পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়কে আন্তরিক ধন্যবাদ এই ছবিটি উপহার দেওয়ার জন্য৷ হলফ করে বলতে পারি ছবিটি দেখে বেরিয়ে নিজের কথা, আপনার বাবা-মায়ের সঙ্গে আপনার সম্পর্কের কথা বারবার মনে হবে৷ সময় থাকতে থাকতে সেই সম্পর্ক আরও একবার ঝালিয়ে নেওয়াই তো যায়৷ যেমন সময় থাকতে থাকতেই হলে গিয়ে সোনার পাহাড় দেখে আসুন অবশ্যই, নইলে সত্যিই খুব মিস করবেন৷

………………

সোনার পাহাড়

পরিচালনাঃ পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়

অভিনয়ঃ তনুজা, শ্রীজাত, যিশু সেনগুপ্ত প্রমুখ

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে