১৭  মাঘ  ১৪২৯  শুক্রবার ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

স্ত্রীদের ‘থাপ্পড়’ মারার দিন ফুরিয়েছে, গার্হস্থ্য হিংসা নিয়ে সরব স্মৃতি ইরানি

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: February 11, 2020 4:08 pm|    Updated: February 12, 2020 12:05 pm

Smriti Irani opens up on domestic violence, sharing 'Thappad' trailer

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “দরিদ্র পরিবারগুলিতেই কি শুধু মহিলারা গার্হস্থ্য হিংসার শিকার হন? আপনারা কি ভাবেন, শিক্ষিত পড়াশোনা জানা পুরুষরা কি স্ত্রীদের গায়ে হাত তোলেন না? আপনারা নিশ্চয় আপনাদের মেয়ে কিংবা বউমাকেও বলে এসেছেন যে- মা, এরকম তো আমাদের সঙ্গেও হয়েছে, দু’-একটা চড়-থাপ্পড় তো মেয়েদের সহ্য করতেই হয়! সেসব সহ্য করেছি বলেই না আজ সুখে-শান্তিতে ঘরকন্না করছি…। কথাগুলো খুব একটা অচেনা নয় আমাদের সমাজে। ‘মুখ বুজে সইতে হয়’ এমনটাই মেয়েদের শিখিয়ে এসেছে সমাজ। তবে আর নয়! এসব বলার কিংবা শোনার দিন ফুরিয়েছে”, তাপসী পান্নু অভিনীত ‘থাপ্পড়’-এর ট্রেলার দেখে সাফ জানালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি।

দেশের প্রতিটা কোণায় এখনও গার্হস্থ্য হিংসার শিকার মহিলারা। পান থেকে চুল খসলেই শ্বশুরবাড়ির খোঁটা, অপমান থেকে গায়ে হাত তোলার মতো কত কিছুই না সইতে হয় মেয়েদের। বৈপরীত্যও যে নেই এমনটা নয়! তবে তুলনা টানলে মহিলাদের হিংসার শিকার হওয়ার পাল্লাই হারে বেশি। কেন সইতে হবে শুধু মহিলাদেরই? প্রশ্ন তুলে সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে ‘থাপ্পড়’-এর ট্রেলার। ছবিতে অমৃতা নামে আদ্যোপান্ত এক গৃহবধূর ভূমিকায় দেখা যাবে তাপসী পান্নুকে। সংসারই যার ধ্যানজ্ঞান। হঠাৎ একদিন স্বামীর হিংসের শিকার হয় অমৃতাকে। ভরপুর অফিস পার্টিতে সব বন্ধুবান্ধবদের সামনেই অমৃতাকে কষিয়ে চড় মারে তার স্বামী। সেই থাপ্পড়ের কারণেই সংসার ভাঙার সিদ্ধান্ত নেয় অমৃতা। ডিভোর্স ফাইল করে। 

[আরও পড়ুন: পৌরহিত্যেও লিঙ্গভেদ কেন? সমাজের যাবতীয় ট্যাবুকে প্রশ্ন ছুঁড়ল ‘ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি’র ট্রেলার ]

সত্যিই তো ‘থাপ্পড়’, যাকে কিনা এরেবারে গৌণ ইস্যু বলেই ধরা হয়, একটা বৈবাহিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে সেটাও কি অন্তরায় হয়ে দাঁড়াতে পারে। যার জন্য বিচ্ছেদ অবধি জল গড়ায়! স্ত্রী’র গালে থাপ্পড় মারা কিংবা গায়ে হাত তোলা কি এতটাই সোজা? আর এমন কিছু ঘটলে মেয়েরাই বা কেন সহ্য করবে? ‘থাপ্পড়’-এর ট্রেলারে সেই প্রশ্ন তুলে সমাজের উপর থাপ্পড় কষিয়েছে    তাপসী।  আর সেই ট্রেলার দেখেই অভিনেত্রী তাপসীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন স্মৃতি ইরানি। স্মৃতি পাশাপাশি এও বলেছেন যে, “পরিচালকের রাজনৈতিক মতাদর্শের সঙ্গে আমি একমত নই ঠিকই, কিন্তু এই গল্প প্রত্যেকটা ঘরের মেয়ে-স্ত্রী’দের। আমি অবশ্যই এই ছবি দেখব।” 

পরিচালকের আসনে ‘মুলক’ এবং ‘আর্টিকল ফিফটিন’ খ্যাত অনুভব সিনহা। ‘থাপ্পড়’-এর ট্রেলারের এক সংলাপ কিন্তু ফের মনে করিয়ে দিয়েছে সন্দীপ রেড্ডি ভাঙ্গার ‘কবীর সিং’-এর সমালচিত একটি দৃশ্যকে। যেখানে এক উকিলকে বলতে শোনা গিয়েছে, “সম্পর্কে ভালবাসা থাকলে একটু-আধটু মারধরও থাকবে!” দেশে নারীদের প্রতি হিংসা বোধহয় ততটাই বেড়ে গিয়েছে যে গায়ে তোলার মতো বিষয়টিকেও ‘লঘু’ করে দেখা হয়। তাই ‘থাপ্পড়’-এর ট্রেলারের কথা উল্লেখ করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি আরও একবার মেয়েদের মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, না, গার্হস্থ্য হিংসা সহ্য করার দিন শেষ হয়েছে। বরং এসবের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলার সময় এসেছে।

[আরও পড়ুন: সাংস্কৃতিক আদানপ্রদান, নিউ জার্সিতে পাড়ি বাংলা-হিন্দি-মারাঠি নাটকের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে